অনলাইনে রিটার্ণ বা আয়কর দাখিল পদ্ধতি (ভিডিও সহ)।

জাতীয় বাজেট ২০২০-২১ অর্থ বছরে কর দাতাদের অনলাইনে রিটার্ণ জমা দেয়ায় উৎসাহিক করতেই প্রথম বারের মত এনবিআর এর ওয়েব সাইটের মাধ্যমে রিটার্ণ দাখিল করলে ২ হাজার টাকা আয়কর ছাড় পাওয়া যাবে।

যদি গত ২ বছর ধরেই অনলাইনে রিটার্ণ দাখিল করার সুযোগ করেছে সরকার। সবচেয়ে বেশি লাভবান তে তারা যারা ৩, ৪ ও ৫ হাজার টাকা আয়কর প্রদান করে থাকে। অন্য দিকে শুধুমাত্র রিটার্ণ দাখিলের জন্য টেনশন আর নিতে হবে না, ঘরে বসেই দাখিল করা যাবে আয়কর।

আয়কর প্রদানের সর্বনিম্ন আয়সীমা দুই লক্ষ ৫০ হাজার রাখা হয়েছে যা ৩ বা সাড়ে ৩ লক্ষ উন্নীতের সিদ্ধান্ত নেয়ার চিন্তা ভাবনা করছে সরকার। তথ্য সূত্র: প্রথম আলো

আজ আমরা দেখে নিবো কিভাবে অনলাইনে ব্যক্তি শ্রেণীর রিটার্ণ বা আয়কর দাখিল করতে হয়।

অনলাইন সার্ভিস প্রবেশ

ইলেক্ট্রনিক মাধ্যমে আয়কর দাখিলের জন্য www.etaxnbr.gov.bd লিংকে প্রবেশ করে এনবিআর এর ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমে একটি ইউজার আইডি ও একটি পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করতে হবে। অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশনের জন্য নির্দেশনা Guideline ট্যাব লিংক থেকে দেখে নিতে পারবেন। প্রথমত ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড প্রদানের মাধ্যমে সাইটটিতে প্রবেশ করতে হবে। মনে রাখতে হবে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড এর সাথে ক্যাপচা এন্ট্রি করে অনলাইন সিস্টেমে প্রবেশ করতে হবে।

ফর্মে তথ্য প্রদান

প্রবেশের পর টাস্ক ওভার ভিউ ও ফাইলিং ট্যাপ পাবেন। প্রথমে টাস্ক ফাইলিং ট্যাবে গিয়ে অনেকগুলো ফম পাবেন। এগুলো ঢুকে বেতন ভাতা, অন্যান্য উৎস হতে আয়, কৃষি আয় ও অন্য সকল তথ্য সঠিক ভাবে সাবধানতার সাথে তথ্য এন্ট্রি করতে হবে। প্রতিটি পদ্ধতি এবং এন্ট্রি সিস্টেম ভিডিওতে দেখে নিতে হবে। এটি একটি স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি যার ফর্মগুলোতে সকল তথ্য সঠিক ভাবে প্রবেশ করালে তার প্রদেয় আয়কর নির্ণয় হয়ে যাবে। খেলায় করে দেখবেন * চিহ্নিত তথ্যটি অবশ্যই সরবরাহ করতে হবে। চেক এন্ড ক্যালকুলেট বাটনে ক্লিক করে ফর্মগুলো সেভ করবেন। প্রত্যেকটি ফর্ম পূরণ করে সেভ করে বেরিয়ে আসতে হবে। কোন ডকুমেন্টসও আপলোড করতে চাইলে প্রুভ হিসাবে সংযুক্ত করা যাবে।

রিটার্ণ দাখিল

নো এরর ফাউন্ড ম্যাসেজটি দেখালে করদাতাকে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে এবং স্ক্রীন থেকে সাবমিট পছন্দ করতে হবে। দাখিলের সাথে সাথে সিস্টেম সাবমিশন আইডি, দাখিল তারিখ, রিটার্ণ তারিখ ও একটি প্রাপ্তি স্বীকার প্রাপ্তি প্রদর্শন করবেন।

দাখিলকৃত রিটার্ণ দেখা

একজন করদাতা সাবমিশন আইডি দিয়ে তার দাখিলকৃত রিটার্ণটি দেখতে পারবেন। রিটার্ণ অনুসন্ধানের জন্য ট্যাক্স টাইপ ট্যাক্স ফরম ও সময় থেকেও এটি অনুসন্ধান করা যাবে। সাবমিশন আইডি ফিন্ডে সাবমিশন আইডি ইনপুট করেও দাখিলকৃত রিটার্ণ প্রদর্শন করা যাবে।

সার্টিফিকেট গ্রহণ

প্রাপ্তি স্বীকার পত্র বা কনফার্মেশন ফরমটি প্রিন্ট করার জন্য প্রিন্ট বাটনে ক্লিক করতে হবে। অনলাইনে রিটার্ণ সার্টিফিকেট ৫ মিনিটের মধ্যে দেখা যাবে এবং এটি ওপেন করে পুনরায় প্রিন্ট করা যাবে অথবা ডেস্কটপে সেভ করে দেখে দিতে পারবেন।

যেভাবে অনলাইনে রিটার্ণ দাখিল করবেন

মনে রাখতে হবে যে, অনলাইনে করদাতার প্রদানকৃত তথ্যের ভিত্তিতে প্রাপ্তি স্বীকার পত্র স্বয়ংক্রিয় ভাবে প্রদান করছেন। তাই পরবর্তী ভেরিফিকেশন বা যাচাই কালে কোন ত্রুটি বা ভুল পরিলক্ষিত হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রাপ্ত সার্টিফিকেট বাতি বলে গণ্য হবে।

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.