কর্তৃপক্ষের জারীকৃত পত্র ফেসবুক বা সোসাল মিডিয়ায় প্রকাশ নয়।

উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের জারীকৃত বিভিন্ন পত্র যেমন-আদেশ/নোটিশ/পরিপত্র/প্রশাসনিক/বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইস্যুকৃত পত্র ইত্যাদি ফেসবুকে বা সোসাল মিডিয়ায় কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করা হলো। 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

বিভাগীয় উপপরিচালকের কার্যালয়

প্রাথমিক শিক্ষা, ঢাকা বিভাগ, ঢাকা

সেকশন-২, মিরপুর, ঢাকা-১২১৬


স্মারক নং-৩৮.০১.৩০০০.০০০.৩৬.০১৯.২০.১৩১৮/২০৪; তারিখ: ২০ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রি:


বিষয়: অনুমতি ব্যতীত উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের জারীকৃত পত্র ফেসবুক বা সোসাল মিডিয়ায় প্রকাশ না করা প্রসঙ্গে।

উপর্যুক্ত বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, সম্প্রতি পর্যবেক্ষণে দেখা যাচ্ছে যে, ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয় ও উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের জারীকৃত বিভিন্ন পত্র যেমন-আদেশ/নেটিশ/পরিপত্র/প্রশাসনিক/বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইস্যুকৃত পত্র ইত্যাদি কতিপয় কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক হয়রানী বা হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছে এবং প্রাথমিক শিক্ষার প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। বিষয়টি অতি দূর্ভাগ্যজনক, অনভিপ্রেত ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী।

০২। এমতাবস্থায় তাঁর জেলার আওতাধীন উপজেলা/ থানার কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের জারীকৃত বিভিন্ন পত্র যেমন-আদেশ/নোটিশ/পরিপত্র/প্রশাসনিক/বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইস্যুকৃত পত্র ইত্যাদি ফেসবুকে বা সোসাল মিডিয়ায় কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করা হলো। 


০৩। যদি কোন কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক উক্ত কার্যক্রমের সাথে জড়িত থাকে তাঁর বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো। 
বিষয়টি অতীব গুরুত্বপূর্ণ। 


(মো: ইফতেখার হোসেন ভূঁইয়া)

বিভাগীয় উপ পরিচালক

প্রাথমিক শিক্ষা, ঢাকা বিভাগ। 

 

অনুমতি ব্যতীত উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের জারীকৃত পত্র ফেসবুক বা সোসাল মিডিয়ায় প্রকাশ নয়: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.