কোন কর্মচারী তার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মামলায় পড়লে আইনি সহায়তা ও আর্থিক সহায়তা সরকার বহন করবে।

সরকারি কর্মচারী আইন, ২০১৮ এর অষ্টম অধ্যায়ের ২৪ নং অনুচ্ছেদ মোতাবেক কোন কর্মচারী তার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মামলায় পড়লে আইনি সহায়তা ও আর্থিক সহায়তা সরকার বহন করবে। কোনো কর্মচারীর বিরুদ্ধে, সরকারি দায়িত্ব পালনের সহিত সম্পর্কিত কোনো বিষয়ে তাহাকে ব্যক্তিগতভাবে দায়ী করিয়া, ক্ষতিপূরণ, অবমাননা, মানহানি বা অন্য কোনো মামলা ‍বা আইনি কার্যধারা রুজু করা হইলে তিনি সরকারি আইন কর্মকর্তার সহায়তায় বা নিজ দায়িত্বে উহা পরিচালনা করিতে পারিবেন এবং উক্ত মামলা পরিচালনায় ব্যয়িত অর্থ নির্ধারিত পদ্ধতি ও শর্তে সরকার কর্তৃক প্রদেয় হইবে।

অষ্টম অধ্যায়
কল্যাণ ও সহায়তা

২৪। আইনি সহায়তা:- (১) কোনো কর্মচারীর বিরুদ্ধে, সরকারি দায়িত্ব পালনের সহিত সম্পর্কিত কোনো বিষয়ে তাহাকে ব্যক্তিগতভাবে দায়ী করিয়া, ক্ষতিপূরণ, অবমাননা, মানহানি বা অন্য কোনো মামলা ‍বা আইনি কার্যধারা রুজু করা হইলে তিনি সরকারি আইন কর্মকর্তার সহায়তায় বা নিজ দায়িত্বে উহা পরিচালনা করিতে পারিবেন এবং উক্ত মামলা পরিচালনায় ব্যয়িত অর্থ নির্ধারিত পদ্ধতি ও শর্তে সরকার কর্তৃক প্রদেয় হইবে।

(২) দুর্নীতির অভিযোগে অথবা সরকার বা, ক্ষেত্রমত, উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে কোনো কর্মচারীকে ব্যক্তিগতভাবে দায়ী করিয়া কোনো মামলা বা আইনি কার্যধারা ‍রুজু করা হইলে, উপ-ধারা (১) এর অধীন অনুরূপ অর্থ প্রদেয় হইবে না।

(৩) সরকারি কর্মচারীর দায়িত্ব পালন সম্পর্কিত বিষয়ে তাহাকে ব্যক্তিগতভাবে দায়ী করিয়া দায়েরকৃত কোনো অভিযোগ, মামলা বা আইনি কার্যধারা মিথ্যা প্রমাণিত হইলে, উক্ত কর্মচারীর আবেদনক্রমে, সরকার বা, ক্ষেত্রমত, উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ অনুরূপ মিথ্যা অভিযোগ দায়েরকারী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে পারিবে।

বিস্তারিত জানতে দেখুন সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮: ডাউনলোড

 

পুরাতন পোস্ট

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ১৬/০২/২০২০ তারিখের ৬৪ নং স্মারকের প্রজ্ঞাপনের বেতন গ্রেড ১৩-২০ পর্যন্ত পদে সরকারি কর্মচারী নিয়োগের কর্তৃপক্ষ ও পদ্ধতি নির্ধারণ সংক্রান্ত বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়ের প্রস্তাবটি পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মহোদয়কে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠিত হয়। উক্ত কমিটির বিগত ০২/০৯/২০২০ তারিখের ১ম সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ/দপ্তর/সংস্থার ১৩তম-২০তম গ্রেডের পদে নিয়োগের লক্ষ্যে নির্ধারিত ছকে ১০ (দশ) কর্মদিবসের মধ্যে তথ্য সংগ্রহের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়

বিধি-১ শাখা

www.mopa.gov.bd

নং-০৫.০০.০০০০.১৭০.২২.০১৬.২০২০.১১২; তারিখ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিষয়: বেতন গ্রেড ১৩-২০ পর্যন্ত পদে সরকারি কর্মচারী নিয়োগের কর্তৃপক্ষ ও পদ্ধতি নির্ধারণ সংক্রান্ত

উপর্যুক্ত বিষয় ও সূত্রস্থ স্মারকের পরিপ্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ১৬/০২/২০২০ তারিখের ৬৪ নং স্মারকের প্রজ্ঞাপনের বেতন গ্রেড ১৩-২০ পর্যন্ত পদে সরকারি কর্মচারী নিয়োগের কর্তৃপক্ষ ও পদ্ধতি নির্ধারণ সংক্রান্ত বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়ের প্রস্তাবটি পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মহোদয়কে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠিত হয়। উক্ত কমিটির বিগত ০২/০৯/২০২০ তারিখের ১ম সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ/দপ্তর/সংস্থার ১৩তম-২০তম গ্রেডের পদে নিয়োগের লক্ষ্যে নির্ধারিত ছকে ১০ (দশ) কর্মদিবসের মধ্যে তথ্য সংগ্রহের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

২। উল্লিখিত সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে নির্ধারিত ছক (কপি সংযুক্ত) পূরণ করে পত্র প্রাপ্তির ১০ (দশ) কর্ম দিবসের মধ্যে তা প্রেরণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হ’ল।

 

(মাহফুজা আকতার

উপসচিব

ফোন: ৯৫১৫৫৫২

১৩তম-২০তম গ্রেডের নিয়োগের লক্ষ্যে জনপ্রশাসন কমিটির তথ্য সংগ্রহ: ডাউনলোড

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply