ইএফটি হওয়ার কত দিন পর ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট হয় জেনে নিন।

অনলাইনে বেতন দাখিল করায় সরাসরি কর্মকর্তাদের ব্যাংক হিসাবে বেতন চলে আসে। বেতন বিল দাখিল করা হয় প্রতি মাসের ২০-৩০ তারিখের মধ্যে। একাউন্টস অফিস সাধারণত ৩০ তারিখের মধ্যে বিল পাশ করে থাকে। বিল পাশের পর বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক EFT (ইলেক্ট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার) জেনারেট হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী EFT হওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যে মানে পরবর্তী কর্মদিবসের মধ্যে টাকা সংশ্লিষ্ট Account এ Credit হবে।

তাহলে মাসিক বেতন ভাতাদির এসএমএস পেতে দেরি হয় কেন?

  • যদি কোন কারণে সীমিত আকারে Banking ব্যবস্থা চালু থাকে।
  • মাঝে সাপ্তাহিক ছুটি এসে যায় তবে Credit হতে দেরি হয়।
  • সংশ্লিষ্ট ব্রাঞ্চ ইএফটি রিসিভ করতে দেরি করিলে অথবা ব্রাঞ্চের কার্যক্রম কোন কারণে সংকুচিত করা হলে।
  • অনেক সময় সিস্টেম ঠিকমত কাজ না করার কারণে মোবাইলে এসএমএস আসে না কিন্তু একাউন্ট ঠিকই ক্রেডিট হয়ে থাকে। 
  • এহেন পরিস্থিতে অনলাইনে সব ঠিক দেখালে হিসাব ক্রেডিট না হলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক শাখায় যোগাযোগ করবেন।

অনেক সময় মাসের ১০ তারিখেও ব্যাংক একাউন্ট ক্রেডিট হয় এর কারণ?

হিসাব রক্ষণ অফিস ইএফটি সেন্ট করতে দেরী করে বা কাজের চাপের কারণে সময়মত ইএফটি সেন্ট করতে পারে না। অন্য দিকে বাংলাদেশ ব্যাংক ইএফটি জেনারেট করতেও বিলম্ব করতে পারে। সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের ব্রাঞ্চ ইএফটি রিসিভ করতে দেরী করলে অথবা সিস্টেম স্লো কাজ করলে এমনটি হয়। 

যদি আপনার একাউন্ট ক্রেডিট হতে অনেক বেশি দেরী হয়ে যায় আপনি অনলাইনে নিম্নোক্ত বিষয়গুলি চেক করে দেখতে পারেন।

Bill approved by accounting office স্ট্যাটাস কখন শো করে?

অনলাইনে প্রেরিত বেতন বিল হিসাব রক্ষণ অফিস কর্তৃক পাশ হওয়ার পর Bill approved by accounting office স্ট্যাটাস দেখায়। এতে হিসাব রক্ষণ অফিস হতে বাংলাদেশ ব্যাংক এ EFT Generated হল। সাথে সাথে উক্ত কর্মকর্তার মোবাইলে একটি ম্যাসেজ প্রেরিত হয়।

EFT File Generated or EFT File Transmitted স্ট্যাটাস কখন শো করে?

হিসাবর রক্ষণ অফিস বেতন বিল পাশ করে বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রেরণ করলে EFT File Generated or EFT File Transmitted লেখা প্রদর্শন করে। তখন বুঝতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংক এ এর কাজ চলমান রয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে একাউন্টে টাকা ঢুকে যাবে। এতে কিছুটা সময় লেগে যায় কারণ একই সময়ে সার্ভারকে অনেক চাপ নিতে হয় ফলে সময় লেগে যেতে পারে। কারও ক্ষেত্রে ১ তারিখেই টাকা ঢুকে যায়। আবার কারও ক্ষেত্রে ১০ তারিখ পর্যন্ত লেগে যায়। এ নিয়ে দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই।

ইএফটি জেনারেট হলে নিচের মতে ম্যাসেজ শো করে। বর্তমানে Generated শব্দের পরিবর্তে Transmitted শব্দ ব্যবহার করা হচ্ছে।

একাউন্টে টাকা ঢুকলে কেমন ম্যাসেজ আসে?

সাধারণত ইএফটি ট্রান্সমিটেড হওয়ার ১-১০ তারিখের মধ্যে একাউন্টে টাকা ঢুকে যায়। এক্ষেত্রে বিচলিত হওয়ার কিছু নেই। কারও সাথে কোথাও যোগাযোগ করার দরকার নেই। ফাইন্যান্স ডিভিশন কর্তৃক কর্মকর্তা হিসাবে বেতনের অর্থ প্রেরণ করা হয়। একাউন্টে ঢাকা ঢোকলে নিচের চিত্রের মতো মোবাইলে ম্যাসেজ শো করে।

বি:দ্র: ইএফটি চালু করতে শুধু মাত্র সোনালি ব্যাংকে একাউন্ট থাকতে হবে এমণ নয় । যে কোন ব্যাংক হিসাবেই ইএফটি চালু করা যায়। এক্ষেত্রে কোন ব্যাংকের কোন হিসাবে টাকা আনবেন তার ডিটেইলস হিসাব রক্ষণ অফিসে প্রেরণ করতে হয়। ধন্যবাদ

আরও দেখুন: 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close