কাজে যোগদানের সময় নির্ণয়।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কর্মচারীগণের জন্য চাকুরীরত অবস্থায় বদলী কিংবা অন্য কোন কারণে কর্মস্থল পরিবর্তন করতে হলে একটা সময়ের প্রয়োজন হয়। এই সময়টি কে আমরা অনেক সময় ট্রানজিট লীভ বলে থাকি। এই সময়কাল ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতিতে ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে।নিচে তার বিস্তারিত উল্লেখ করা হলো। কাজে যোগদান কাল (Joining time in duty).

যথারীতি নির্দেশ ব্যতিরেকে কোন কর্মচারী যদি দায়িত্বসীমার বহির্ভূত সময়ে দায়িত্ব পালন করেন, তবে সেই সময়ের জন্য তাহাকে বেতন-ভাতা দেওয়া যায় না (বিধি- ৩০)।

(ক) ভ্রমণ ভাতা নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ:
ভ্রমণ ভাতা নিয়ন্ত্রনের জন্য সরকার যে কর্তৃপক্ষকে নিয়ন্ত্রনকারী কর্তৃপক্ষ হিসাবে ঘোষণা করিয়াছে সেই কর্তৃপক্ষ তাহার নিয়ন্ত্রণ সীমার আওতায় ভ্রমণ করার জন্য অধস্তন যে কোন কর্মচারীকে ভ্রমন ভাতা প্রদানের অনুমতি দিতে পারে। (বিধি-৩৯)

(খ) সরকারি চাকুরীতে একটানা পাঁচ বত্সর অনুপস্থিত:
বিশেষ পরিস্থিতির জন্য যদি সরকারের বিপরীতে অন্য রকম নির্দেশ না থাকে তবে কোন সরকারি কর্মচারী দায়িত্ব হইতে ৫ বৎসর অনবরত অনুপস্থিত থাকিলে স্বাভাবিকভাবে সরকারি কর্মচারী হিসাবে গণ্য হইবেন না। উল্লখ্যে যে, কর্মচারী যদি বৈদেশিক চাকুরীতে অথবা সাময়িকভাবে বরখাস্ত থাকনে তাহা হইলে এইরূপ বিধান কার্যকরী হইবে না৷ (বিধি-৩৪)

(গ) কাজে যোগদানের সময়:

বাংলাদেশ চাকুরী বিধিমালা (বিএসআর)-এর প্রথম খন্ডে যোগদানের সময় সম্পর্কিত বিধান বিধৃত আছে। সরকারি কর্মচারীকে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত পদে যোগদানের নিমিত্ত অথবা বদলীর স্থানে ভ্রমনের জন্য যে সময় প্রদান করা হয় তাহাকে যোগদানের সময় বা জয়েনিং টাইম বলে। [এফ আর (১০)]

(ঘ) কাজে যোগদানের সময় মঞ্জুর:
(ক) পূর্ব পদে চাকুরী করা অবস্থায় অন্যত্র নতুন পদে চাকুরীপ্রাপ্ত হইলে ঐ পদে যোগদানের জন্য অথবা


(খ) নতুন পদে যোগদানের জন্য:
(১)
অনধিক চার মাস সময়ের জন্য গড় বেতনের ছুটি হইতে প্রত্যাবর্তনের পর; অথবা
(২) চার মাসের অধিক সময়ের গড় বেতনের ছুটি নহে, এমন অন্য প্রকারে ছুটি হইতে প্রত্যাবর্তনের পর যদি নতুন পদে নিযুক্তির বিষয়ে তাহাকে যথাযথভাবে জ্ঞাত না করান হইয়া থাকে; অথবা
(গ) দেশের বাইরে চার মাসের অধিককাল গড় বেতনের ছুটি ভোগের পর বন্দর এবং বিমানে ভ্রমন করিয়া থাকিলে প্রথম নিয়মিত (রেগুলার) বিমান বন্দর হইতে ভ্রমনের নিমিত্ত; অথবা
(ঘ) (১) ছুটি হইতে প্রত্যার্বতনরে পর কোন নির্দিষ্ট স্থান হইতে কোন দূরবর্তী দুর্গম এলাকায় যোগদানের জন্য; অথবা
(ঙ) কোন দূরবর্তী দুর্গম এলাকায় কার্যভার অর্পনের পর কোন নির্দিষ্ট স্থানে কাজে যোগদানের জন্য, কাজে যোগদানের সময় মঞ্জুর প্রসঙ্গে

সামরিক অফিসারগণ বেসামরিক চাকুরীতে বহাল হইলে তাহাদের ক্ষেত্রে কর্মস্থলে যোগদানের সময় এবং যাতায়াত ভাতা প্রভৃতি বেসামরিক আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় যাহা সামরিক বিধি ব্যবস্থা, সামরিক চাকুরী আইন অথবা যাতায়াত প্রবিধান (Passage regulation)-এর সঙ্গে সামঞ্জস্যতা রক্ষা করিয়া রচিত হয় এবং তাহা কোন সামরিক অফিসারের বেসামরিক চাকুরীতে নিয়োগের সময় অথবা বেসামরিক চাকুরী হইতে সামরিক চাকুরীতে পূনরায় প্রত্যাবর্তনের ক্ষেত্রে ছাড়াও যখন তিনি বাস্তব ক্ষেত্রে বেসামরিক চাকুরীতে নিয়োজিত থাকেন শুধুমাত্র সেই সময়ের জন্যও প্রযোজ্য। এক্ষেত্রে সামরিক ছুটি বিধিমালার (Privilege leave) পূর্ণ গড় বেতনে সাধারণ ছুটি হিসাবে গণ্য করা হইবে যাহা চার মাসের অধিক নয় (বিধি-৮০, বিএসআর প্রথম খন্ড)৷

(চ) কাজে যোগদানের সময় নির্ণয়
৮২ ও ৮৩ বিধিতে উল্লেখিত বিষয়বস্তু ছাড়া ৮০নং বিধির প্রথম ৩টি উপ-বিধির আওতায় কাজে যোগদানের সময়সীমা নিম্নরূপ:

(ক) প্রস্তুতির জন্য ছয় দিন; এবং
(খ) ভ্রমনের সেই সইে অংশের জন্য যখন একজন সরকারি র্কমচারী নিম্নলিখিত মাধ্যম দ্বারা ভ্রমন করেন বা করিতে পারেন:


রেলপথ: ২৫০ মাইলে ১ দিন, সাগর পথে স্টীমার: ২০০ মাইলে ১ দিন, নদীপথে স্টীমার: ৮০ মাইলে ১ দিন, মোটর জাতীয় যানবাহন: ৮০ মাইলে ১ দিন, অন্যান্য যানবাহন: ১৫ মাইলে ১ দিন, উল্লেখ্য, যদি স্টীমার পথে ভ্রমনের জন্য বরাদ্দকৃত সময়ের চাইতে অতিরিক্ত সময়ের প্রয়োজন বাস্তবকিভাবে প্রয়োজন হয় তাহা দেওয়া যাবে, এবং


(গ) এই বিধির (খ) উপ-বিধিতে উল্লিখিত যে কোন দুরত্বের কোন ভগ্নাংশের জন্য ১ দিন অতিরিক্ত সময় বরাদ্দযোগ্য।

কিন্তু অনুরূপ কাজে যোগদানরে সময়ের জন্য বরাদ্দকৃত সময়সীমা র্সবোচ্চ ৩০ দিন এবং ৮০ বিধির (গ) উপবিধির আওতাধীন ক্ষেত্রসমূহে সরকারি কর্মচারী ইচ্ছা করিলে সর্বনিম্ন ১০ দিন সময় নিতে পারেন৷

ভ্রমনের একাংশ স্টীমারে হইলে স্টীমার প্রাপ্তির জন্য অপেক্ষমান সময় বরাদ্দকৃত প্রস্তুতি হিসাবে গণ্য হইব৷

  • মাইলের পরিবর্তে আনুপাতিক হারে কিলোমিটার পড়িতে হইবে।
    দ্রষ্টব্য: র্অথ মন্ত্রনালয় প্রবিধি শাখা স্মারক নং এম,এফ/বেগ-২ এ/ডি, এ-১৭/৮৫/১৫২ তারিখ: ১০/০৮/১৯৮৫খ্রি.

রেল স্টেশন অথবা স্টীমার ঘাট র্পযন্ত যাইতে বা সেখান হইতে কর্মস্তলে যাইতে ব্যবহৃত সড়কপথ যদি ৫ মাইলের কম হয় তবে সেখানে বর্ধিত সময় যোগদানের সময়ের ভিতর বিবেচ্য হইবে না৷


৩৷ বরাদ্দকৃত যোগদানের সময়ের মধ্যকার সাপ্তাহিক ছুটির দিন গণনার মধ্যে আসিবে না৷

৪৷ যে সকল সরকারি র্কমচারী বদলীর সময়ে বিমান পথে ভ্রমনের অধিকারী অথবা যদি যথাযোগ্য কর্তৃপক্ষের আদেশক্রমে তিনি অধিকার লাভ করেন; তবে তাহাদের জন্য বরাদ্দৃকত যোগদানের সময় হইবে প্রস্ততির জন্য ৬ দিন এবং বিমান পথে ব্যয়িত সময় (বিধি ৮১)।


বদলীস্থল যদি নূতন স্থানে না হয় এবং সরকারি র্কমচারীকে যদি বাসস্থান বা চাকুরীস্থল ত্যাগ করিতে না হয় এমন ক্ষেত্রে ৮০ বিধির (ক) ও (খ) উপবিধি মতে বরাদ্দকৃত যোগদানের সময় হইবে ১ দিন (বিধি ৮২)। এইক্ষেত্রে ছুটির দিনও Joining time-এর অন্তর্ভূক্ত হইবে।

কোন সরকারি র্কমচারীর পুরাতন অথবা নূতন কর্মস্থল যদি নিচের ছকের ১নং কলামে উল্লিখিত স্থানে হয় তবে ৮০ ধারার (ক) উপধারা অনুযায়ী যোগদানের সময় ধরা হইবে ও ২নং কলামে বর্ণিত স্থান (১) এই দুইয়ের মধ্যে যাত্রাপথে ব্যয়িত প্রকৃত সময় অথবা ২ ও ৩নং কলামে উল্লিখিত সময় অনুযায়ী:

চট্টগ্রাম জেলার সীমান্তরেখা:
রাঙামাটি – ২ দিন, রামগড় ১ দিন, মহলছড়ি ৪ দিন, দিঘিনালা ৬ দিন, খাগড়াছড়ি ৫ দিন, বান্দরবান ১ দিন, রুমা ৩ দিন, লামা ১ দিন, নাইক্ষংছড়ি ১ দিন, কাসালং ৩ দিন, মানকিছড়ি ১ দিন, মনিমিুখ ৫ দিন, বরকল ৩ দিন, লাঙ্গাড় – ৪ দিন, নড়াইছড়ি ৮ দিন, কাপ্তাই ২ দিন, আলকিদম ৯ দিন, মাধু ২ দিন, টংকিমেয়িা ২ দিন, পানছড়ি ৬ দিন, টামব্রা ১ দিন, নাইড়াং ৩ দিন (বিধি-৮৩)

যে সকল পথে সাধারণত ভ্রমণকারীরা চলাচল করিয়া থাকেন, সরকারি র্কমচারীর যোগদানের সময় সেই পথের জন্যই বিবেচ্য হইবে যদি-না উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিশেষ কারণে অন্যভাবে নির্দেশ দিয়া থাকেন (বিধি-৮৮)।


২৮ বিধির ক্ষমতাবলে কোন সরকারি কর্মচারীকে যদি হেডকোয়ার্টারস ব্যতীত অন্য কোন জায়গায় দায়িত্ব বুঝাইয়া দিতে বলা হয় তবে তাহার যোগদানের সময় সেই স্থান হইতেই বিবেচ্য হইবে যেখানে তিনি দায়িত্ব বুঝাইয়া দিবেন (বিধি-৮৬)।

কোন সরকারি কর্মচারী যদি একপদ হইতে অন্যপদে স্থানান্তরতি হওয়ার অর্ন্তর্বতীকালীন সময়ে নূতন বদলীর আদেশ পান তবে তাহার নূতন বদলীর জন্য যোগদানের সময় যেদিন আদেশ পান তাহার পরের দিন হইতেই বিবেচ্য হইবে। সেইক্ষেত্রে তিনি কোন প্রস্তুতি সময় পাইবেন না (বিধি-৮৭)।


কোন সরকারি কর্মচারী একপদ হইতে অন্যপদে স্থানান্তরতি হওয়ার অর্ন্তর্বতীকালীন সময় ছুটি নেন, তবে তিনি যে তারিখ তাহার পুরাতন দায়িত্বভার বুঝাইয়া দিয়াছেন তাহার ছুটি সেইদিন হইতেই গন্য হইবে যদি স্বাস্থ্যগত প্রত্যয়ন পত্র না থাকে৷ আর ডাক্তারী সার্টিফিকেট থাকিলে তাহা জয়েনিং টাইমে অন্তর্ভুক্ত হইবে (বিধি-৮৮)।


৮০ বিধির (খ) উপবিধি মতে কোন সরকারি কর্মচারীর যোগদানের সময় তাহার পুরাতন কর্মস্থল অথবা যেখানে বসিয়া তিনি বদলীর আদেশ পাইয়াছেন সেই স্থান দুইয়ের মধ্যে যেখান হইতে নূতন র্কমস্থলের দুরত্ব অপেক্ষাকৃত কম-সেই স্থান হইতেই গণ্য করা হইবে৷ একই বিধির (২) উপবিধির বেলায় যোগদানের সময় সেইদিন হইতে গণ্য করা হইবে যেইদিন তিনি বদলীর আদেশ পাইয়াছেন। তবে ছুটি অতিক্রান্ত হইবার পর নহে।
যদি কোন সরকারি র্কমচারী ছুটিতে দেশের বাইরে থাকেন এবং দেশে ফেরার আগেই তাহার বদলীর আদেশ পান, তবে যেখানে বসিয়া তিনি বদলীর আদশে পাইয়াছেন, সেখান হইতেই যোগদানের সময় বিবেচ্য হইবে (বিধি-৮৯)।


কোন সরকারি কর্মচারী ছুটিতে (Vacation) থাকাবস্থায় যদি বদলীর আদেশ পান তবে তিনি ছুটি শেষে নূতন কর্মস্থলে যোগ দিতে পারেন যদিও এইক্ষেত্রে সাধারণ বরাদ্দকৃত যোগদানের সময় ছাড়াইয়া যায়৷ এতদবিষয়ে ১৫৩ ও ১৫৪ বিধি দ্রষ্টব্য (বিধি-৯০)৷


(১) ৮১ বিধিতে বর্ণিত সর্বোচ্চ যোগদানের সময়ের বিষয়ে কোন বিভাগীয় প্রধান নিম্নেবর্ণিত পারিপার্শ্বিকতার প্রয়োজনে ও যথোপযুক্ত মনে করিলে যে কোন সরকারি সাধারণ বরাদ্দকৃত যোগদানের সময় বাড়াইয়া দিতে পারেন৷


(ক) কোন সরকারি র্কমচারী; অনিচ্ছাকৃত বা উদ্দেশ্য প্রণোদতি না হইয়া বরাদ্দকৃত সময়ের বেশি ব্যয় করেন; অথবা


(খ) এই বিলম্ব বা অতিরিক্ত সময় ব্যয় যদি সরকারি স্বার্থে বা সরকারি অর্থের অপচয় রোধের ক্ষেত্রে হইয়া থাকে।


(গ) কোন বিশেষ ক্ষেত্রে প্রচলতি আইন পরিস্থিতির যথাযোগ্যতা বিবেচনায় ব্যর্থ হয়৷ যদি কোন সরকারি র্কমচারী তাহার যাত্রাকালে অসুস্থ্য হইয়া পড়েন অথবা তিনি যদি কোন কারণে (নিজের ভুলের জন্য নয়) স্টীমার ধরতে ব্যর্থ হন৷ যোগদানের সময়ের জন্য একজন সরকারি কর্মচারী নিম্নলিখিত পারিশ্রমিক পাবেন। (ক) ৮০ বিধির (এ) উপবিধি মতে তিনি বদলী না হইয়া থাকিলে যে বেতন তুলিতেন অথবা তিনি নূতন দায়িত্ব গ্রহণের পর যে বেতন তুলিবেন দুইটির মধ্যে যাহা অপেক্ষাকৃত কম। (খ) ৮০ বিধির (খ) ও (গ) উপবিধি অনুযায়ী:


(১) অসাধারণ ছুটি হইতে ফেরার পর এবং যাহা অন্য ছুটির সহিত সহিত সংযুক্ত করিয়া বরাদ্দ করা হয় এবং যাহা ১৪ দিনের বেশি নহে অনুরূপ ক্ষেত্র ছাড়া অন্যান্য ক্ষেত্রে পাইবার যোগ্য নহে।


(২) অন্য যে কোন ছুটি ভোগের শেষে প্রত্যাবর্তনের পরে সরকারের ছুটিকালীন বেতনের নিয়মানুসারে পরিচালিত হইবে এবং যে হারে সরকারি কর্মচারী ছুটিতে থাকাকালীন সর্বশেষ বেতন তুলিয়াছেন (বিধি-৯৩)।

কোন সরকারি কর্মচারী যদি তাহার যোগদানের সময় এবং বরাদ্দ সময়সীমার মধ্যে তাহার বদলীকৃত দায়িত্বে যোগদান না করেন তবে তিনি সেই অতিরিক্ত সময়ের জন্য যোগদানের সময় শেষ হওয়া হইতে নূতন পদে যোগদান পর্যন্ত অতিরিক্ত সময়ের জন্য কোন ছুটি ভাতার জন্য বিবেচ্য হইবে না৷

[সূত্র: চাকুরীর বিধিমালা, বিচারপতি সিদ্দিকুর রহমান]

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.