ইএফটি চালু না হলে প্রচলিত নিয়মে বেতন হবে না।

গত ১৯-১১-২০১৯ খ্রি: তারিখের অর্থবিভাগের একটি আদেশের মাধ্যমে নন-গেজেটেড কর্মচারীদের বেতন ভাতা অনলাইনে দাখিল ও ইএফটির মাধ্যমে দাখিলের জন্য সময় সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সময় সীমার বাহিরে হার্ডকপি দাখিলের মাধ্যমে বেতন নেয়া বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এতে ৪৪টি মন্ত্রণালয়ের নাম উল্লেখ করে নামে পার্শ্বে সময়সীমা উল্লেখ করে দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে যে, অর্থ বিভাগে বাস্তবায়নাধীন সরকারি ব্যয় ব্যবস্থাপনা শক্তিশালীকরণ কর্মসূচীর আওতায় প্রণীত iBAS++ এর মাধ্যমে সকল মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নন-গেজেটেড কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদি অনলাইনে দাখিল ও ইএফটির মাধ্যমে পরিশোধের উদ্যোগ দেয়া হয়েছে। বর্তমানে ১০টি প্রতিষ্ঠানে এর কার্যক্রম সম্প্রসারিত হয়েছে। অবশিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের কর্মরত নন-গেজেটেড কর্মচারীদের পর্যায়ক্রমে নিম্নবর্ণিত সময়সূচী অনুযায়ী ইলেকট্রনিক পেমেন্টের আওতায় আনয়ন করা হবে। উল্লেখ্য নিম্নবর্ণিত সময়সূচী হতে অনলাইন ব্যতিত প্রচলিত পদ্ধতিতে বেতন ভাতাদি দাখিল করা যাবে না।

  • মন্ত্রণালয় গুলোর মধ্যে আপন বিভাগ, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়সহ মোট ৫টি ডিসেম্বর/২০ এর মধ্যে চালু হবে।
  • সেতু বিভাগ সহ ক্রমিক ৬-১৫ পর্যন্ত জানুয়ারি/২০ এর মধ্যে চালু হবে।
  • নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়সহ ক্রমিক ১৬ থেকে ৩৫ পর্যন্ত ফেব্রুয়ারি/২০ এর মধ্যে সম্পন্ন হবে।
  • গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়সহ ক্রমিক ৩৬ থেকে ৪৫ পর্যন্ত মার্চ/২০ এর মধ্যে চালু হবে।
  • জননিরাপত্তা বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ ৪৬ থেকে ৫১ পর্যন্ত মোট ৬টি মার্চ ২০২০ এর মধ্যে চালু হবে।

 

নন-গেজেটেড কর্মচারীদের বেতন ভাতা অনলাইনে দাখিল ও ইএফটির মাধ্যমে দাখিলের জন্য সময় সীমা নির্ধারণ সংক্রান্ত তালিকাটি সংগ্রহ করে রাখতে পারেন: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.