কোন উন্নয়ন প্রকল্প বা সরকারি চাকরি কালীন আইবাস++ হতে অনলাইন ফিক্সেশন করে বেতন গ্রহণ করতে হয়। উন্নয়ন প্রকল্প সমাপ্ত শেষে অথবা নতুন কোন সরকারি চাকরিতে নিয়োগ পেলে অবশ্যই পূর্বে পে ফিক্সেশন বাতিল করতে হবে। একটি চাকরি কালীন পে ফিক্সেশন করা হলে উক্ত এনআইডি দিয়ে দ্বিতীয়বার কোন ভাবে পে ফিক্সেশন করা যাবে না।

চাকরির ধারাবাহিকতা রক্ষার্থে বেতন সংরক্ষণ নিয়ম ২০২২

যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে যদি আপনি একই দপ্তরে বা অন্য কোন দপ্তরে চাকরি গ্রহণ করে থাকেন অর্থাৎ নতুন কোন চাকরি হয়ে থাকে সেক্ষেত্রেও আপনাকে বেতন সংরক্ষণ করতে হবে। অর্থাৎ চাকরির ধারাবাহিকতা রক্ষা করা হলেও পেনশনযোগ্য চাকরিকাল বৃদ্ধি পাবে। ধরুন আপনি কোন একটি দপ্তরে ৫ বছর চাকরি করেছেন এবং  ৫বছর পর অন্য কোন দপ্তরে চাকরি হল তবে আপনি যদি উচ্চতর পদে চাকরি নিয়ে থাকেন তবে বেতন সংরক্ষণের মাধ্যমে উক্ত মূল বেতন সংরক্ষণের মাধ্যমে সেই স্কেল বা মূল বেতন থেকেই নতুন চাকরি শুরু হবে অথবা নতুন স্কেলে নতুন বেতন শুরু হবে কিন্তু সরকারি চাকরিকাল গণনা করা হবে। বেতন সংরক্ষণ কি? বেতন সংরক্ষণে কি কি কাগজপত্র লাগে?

পে ফিক্সেশন বাতিলের পদ্ধতি ২০২২

আপনি আপনার দপ্তরের মাধ্যমে অর্থাৎ যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে উপজেলা/জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসে পেনশন বাতিলের আবেদন করতে হবে। উপজেলা বা জেলা হিসাবরক্ষণ অফিস বর্তমানে পে ফিক্সেশন বাতিলের ক্ষমতা সংরক্ষণ করে না বিধায় উপজেলা / জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা ডিভিশনাল কন্ট্রোলার অব একাউন্টস বা মহাহিসাব নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়, ঢাকায় প্রেরণ করতে হবে। স্থানীয় হিসাবরক্ষণ অফিসের মাধ্যমে ফরওয়ার্ডিং দিয়ে আপনার আবেদন অথবা স্থানীয় হিসাবরক্ষণ অফিস পে ফিক্সেশন বাতিলের জন্য বিভাগী বা প্রধান কার্যালয়ে নিচের পত্রের মত পত্র প্রেরণ করবে।

পে ফিক্সেশন বাতিল করার পদ্ধতি ২০২২

পে ফিক্সেশন বাতিল করার পদ্ধতি

উপরোক্ত পত্র প্রাপ্তির পর বিভাগীয় হিসাবরক্ষণ অফিস বা মহাহিসাব নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় ফিক্সেশন বাতিল করলে আপনি নতুন কর্মস্থলের জন্য আপনার এনআইডি এবং মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে ফিক্সেশনের কাজ শুরু করতে পারবেন। মোট কথা আপনার পুরাতন ফিক্সেশন বাতিল না করে আপনি নতুন করে ফিক্সেশন করতে পারবেন না।

এখন কি তাহলে কর্তৃপক্ষকে অবগত করা ছাড়া নতুন চাকরি নিয়ে ফিক্সেশন করা যাবে না?

অবশ্যই না। আপনি যদি কোন দপ্তরের মাধ্যমে হিসাবরক্ষণ অফিসে ফিক্সেশন করে থাকেন তবে উক্ত কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেই আপনার ফিক্সশন বাতিল করতে হবে। পুরাতন ফিক্সেশন বাতিল না করে কোনভাবে নতুন চাকরির ফিক্সেশন সম্পন্ন করতে পারবেন না। পূর্বে ম্যানুয়াল বেতন বিল হতো তাই একটি চাকরি ছেড়ে দিয়ে গোপনে অন্য একটি চাকরিতে যোগদান করলেই বেতন ভাতা পেতেন এবং কোন সমস্যা হতো না। কিন্তু বর্তমানে কর্তৃপক্ষকে অবগত করেই আপনার ফিক্সেশন বাতিল করে নতুন ফিক্সেশন করতে হবে। তাই আমরা পরামর্শ দিব আপনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েই নতুন চাকরির জন্য আবেদন করুন এবং বেতন সংরক্ষণ বা পে প্রটেকশনের মাধ্যমেই নতুন চাকরিতে যোগদান করুন।

ধন্যবাদ

উর্ধ্ব গ্রেডের চাকুরী প্রাপ্ত হইলে Pay Protection সুবিধা।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 2981 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *