মহার্ঘ ভাতাসহ ৮ দফা দাবীতে সরকারী কর্মচারীদের মানববন্ধন!

গত ১৮/০৬/২০২১ খ্রি: তারিখে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যানার ফেষ্টুন নিয়ে কর্মচারীরা জমায়েত হয়। তারা তাদের দাবীগুলো তুলে ধরার সময় কেউ কেউ আর্তনাদে ভেঙ্গে পড়েন। তাদের দাবী গুলোর পিছনে যুক্তিগুলোর তুলে ধরেন।  ১১-২০  তাদের আন্দোলন যে, ন্যায্য এবং যুক্তিসঙ্গত বিভিন্ন জেলায়  গড়ে উঠা সংগঠনগুলো তারই প্রমান রেখেছে। দাবী আদায় না হলে কঠোর কর্মসূচীর ঘোষণা করা হবে বলেও উল্লেখ করেন সরকারী কর্মচারীগণ।

তাদের দাবিগুলো হলো-

১। ২০১৫ সালে প্রদত্ত ৮ম পে-স্কেলের সংশোধনসহ বেতন বৈষম্য নিরসন করে গ্রেড অনুযায়ী বেতন স্কেলের পার্থক্য সমহারে নির্ধারণ ও গ্রেড সংখ্যা কমাতে হবে। (ILO চুক্তি অনুযায়ী বেতন নির্ধারণ করতে হবে)

২। এক ও অভিন্ন নিয়োগ বিধি বাস্তবায়ন করতে হবে।

৩। সকল পদে পদোন্নতি বা ০৫ বছর পর পর উচ্চতর গ্রেড প্রদান করতে হবে। (ব্লক পোস্ট নিয়মিতকরণ করতে হবে)

৪। টাইমস্কেল, সিলেকশন গ্রেড পুর্ন:বহালসহ বেতন জ্যেষ্ঠতা বজায় রাখতে হবে।

৫। সচিবালয়ের ন্যায় পদবী ও গ্রেড পরিবর্তন করতে হবে।

৬। সকল ভাতা বাজার চাহিদা অনুযায়ী সমন্বয় করতে হবে।

৭। নিম্ন বেতনভোগীদের জন্য রেশন, শতভাগ পেনশন চালুসহ পেনশন গ্র্যাচুইটি হার এক টাকা সমান পাঁচশত টাকা করা

৮. কাজের ধরন অনুযায়ী পদের নাম ও গ্রেট একীভূত করা।

যানবাহন চলাচলে কোন রকম বিঘ্ন না ঘটিয়ে যে, এত বড় মানববন্ধব সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে পালন করা যায় তা সরকারি কর্মচারীগণ বুঝিয়ে দিয়েছেন।

সূত্র: ১১-২০ গ্রেডের সরকারি চাকুরিজীবীদের সম্মিলিত অধিকার আদায় ফোরাম

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.