যে সকল চাকুরীর জন্য পেনশন প্রাপ্য হয় না।

সকল চাকুরীর জন্য পেনশন প্রাপ্য হয় না। কেবলমাত্র পেনশনযোগ্য চাকুরীর জন্য পেনশন দেওয়া হয়। সরকারের সাধারণ রাজস্ব খাত হইতে যাহারা বেতন ভোগ করেন কেবল তাহাদের চাকুরীই পেনশনযোগ্য। নিম্নবর্ণিত চাকুরীসমূহ পেনশনযোগ্য নহে:

১। যে চাকুরীর জন্য চুক্তি ভাতা হইতে বেতন দেওয়া হয়।

২। যে চাকুরীর জন্য স্থানীয় ফান্ড ও ট্রাস্ট ফান্ড হইতে বেতন দেওয়া হয়।

৩। যে চাকুরির বেতন কমিশন ও ফি হইতে দেওয়া হয়।

৪। অস্থায়ী চাকুরীর বিরতি সময়কাল।

৫। পরীক্ষাধীন কাল শেষ হইবার সঙ্গে সঙ্গে স্থায়ীকরণ করা না হইলে।

৬। শিক্ষানবিশকাল।

৭। যদি সাময়িক বরখাস্তকৃত কোন অফিসারকে তাহার আচরণের তদন্ত সাপেক্ষে চাকুরীল পুনর্বহাল করা হয় কিন্তু তাহার সাময়িক বরখাস্ত থাকাকালীন সময়ে প্রাপ্য ভাতার কোন অংশ বাজেয়াপ্ত করা হয়, তাহা হইলে সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়কে পেনশনের জন্য গণ্য করা যাইবে না। তবে পুনর্বহালকারী কর্তৃপক্ষ যদি ঐ সময়েকে পেনশনের জন্য গণ্য করিয়া আদেশ দেন তাহা পেনশনের জন্য গণ্য হইবে।

৮। সরকারি চাকুরী হইতে ইস্তফা দিলে, অসদাচরণ, দেউলিয়া, অদক্ষতার জন্য সরকারি চাকুরী হইতে বরখাস্ত কিংবা অপসারিত হইলে পূর্ব চাকুরী বাজেয়াপ্ত হিসাবে পরিগণিত হয়। কিন্তু বয়সের কারণে কিংবা নির্ধারিত বিভাগীয় পরীক্ষায় পাস না করিবার কারণে যদি চাকুরী হইতে অপসারিত হয়, তাহা হইলে তাহার পূর্ব চাকুরী বাজেয়াপ্ত হিসাবে গণ্য হয় না।

৯। অসাধারণ ছুটি পেনশনের জন্য গণ্য করা যাইবে না।

১০। মঞ্জুরীকৃত ছুটির মেয়াদের পর অতিরিক্ত কাল উপভোগ করিলে সেই কাল পেনশনের জন্য গণ্য করা যায় না।

১১। অক্ষমতাজণিত মেডিকেল সার্টিফিকেট দাখিল করার পর যদি কেহ চাকুরী করে তবে সেই চাকুরী পেনশনের জন্য গণ্য করা যাইবে না।

১২। বয়সজণিত কারণে নির্দিষ্ট বয়সীমা অতিক্রান্ত হইবার পর চাকুরী করিলে সেই চাকুরী পেনশনযোগ্য হয় না।

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply