যে সকল ছুটিকালে ছুটি অর্জিত হইবে না।

বাংলাদেশ সার্ভিস রুলস ২য় খন্ড বিধি ১৪৫। কেবল কর্মের দ্বারাই ছুটি অর্জিত হয়। বৈদেশিক চাকরিতে কর্মরত থাকার সময়ের লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশন অনুমোদিত যথাযথ হিসাবে প্রেরণ বা প্রদান করা হইলে, এই বিধির উদ্দেশ্যে উক্ত সময়কে কর্মকাল হিসাবে গণনা করা হইবে।

মূল বিধি নিম্নে প্রদর্শিত হইল:

Leave is earned by duty only. For the purpose of this rule a period spent in foreign service counts as duty if contribution towards leave salary is paid or remained under proper section on account of such period.

ব্যাখা: (১) কর্মকাল দ্বারা ছুটি অর্জিত হয় ছুটির হিসাবের জন্য নিম্নোক্ত সময়কে কর্মকাল হিসাবে গণ্য করা যাইবে-

(ক) স্বপদে প্রকৃত সময়কাল;

(খ) প্রেষণকাল;

(গ) যোগদানকাল (ট্রানজিট কাল);

(ঘ) বৈদেশিক চাকরিকাল;

(ঙ) বাধ্যতামূলক বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের জন্য যাতায়াতের প্রয়োজনীয় সময় এবং পরীক্ষার দিনসমূহ;

(চ) প্রশিক্ষণকাল;

(ছ) পদায়নের জন্য বাধ্যতামূলক অপেক্ষাকাল

(জ) নৈমিত্তিক ছুটিকাল; এবং

(ঝ) সংগ নিরোধ ছুটিকাল।

ব্যাখ্যা: (২) নিম্নোক্ত সময়কে ছুটির হিসাবের জন্য কর্মকাল হিসাবে গণনা করা যাইবে না-

(ক) নৈমিত্তিক ও সংগ নিরোধ ছুটিকাল ব্যতীত অন্যান্য ছুটিকাল।

(খ) সাময়িক বরখাস্তকাল এবং জেল বা হাজত বাসের সময়কাল পরবর্তী পর্যায়ে কর্মকাল হিসাবে গণ্য করার ক্ষেত্রে উক্ত সময়কাল।

(গ) অননুমোদিত অনুপস্থিতকাল।

(ঘ) চাকরির বিরতীকাল।

ব্যাখ্যা: (৩) বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বৈদেশিক চাকরির সময়ের এবং বহি: বাংলাদেশে বৈদেশিক চাকরির লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশন সরকারের যথাযথ হিসাবে জমাম দেওয়া হইলেই কেবল উক্ত সময় ছুটির হিসাবের জন্য গণনা করা যাইবে। লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশন জমা দেওয়া না হইলে উক্ত বৈদেশিক চাকরিকাল ছুটির জন্য গণনা করা যাইবে না। লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশন জমাদান সংক্রান্ত বিধান নিম্নরূপ-

(১) অর্থ মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং অম/অবি/প্রবি-১/২পি-২/২০০৫ (অংশ-১)/৫, তারিখ: ২৭ জানুয়ারি, ২০০৯ এর মাধ্যমে জারিকৃত পেনশন সহজীকরণ নীতিমালার ২.০৯ অনুচ্ছেদ নিম্নরূপ নির্দেশনা রহিয়াছে-

“দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন স্বায়ত্তশাসিত /আধা-স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা/কর্পোরেশন/রাষ্ট্রায়ত্ব বানিজ্যিক ব্যাংক/অর্থ লগ্নী প্রতিষ্ঠান/স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহে প্রেষণে নিয়োজিত থাকাকালীন সময়ের জন্য সরকারি চাকুরেদের লীভ স্যালারী ও কন্ট্রিবিউশন সরকারি খাতে জমা দেওয়ার বর্তমান প্রথা বিলুপ্ত করা হইল। এই সুবিধা পূর্বে প্রেষণে নিয়োজিত সরকারি চাকুরেদের জন্যও প্রযোজ্য হইবে। তবে বিদেশী সরকার/সংস্থায় প্রেষণে কর্মরত সরকারি চাকুরেদের লীভ স্যালারী কন্ট্রিবিউশন প্রদানের প্রথা যথারীতি চালু থাকিবে।”

(২) বিধি-১০৪ অনুযায়ী লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশনের হার হইবে ১২.৫%। উল্লেখ্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং অম/অবি/প্রবিধি-৩/বিবিধ-২/২০০১/৪৭, তারিখ: ৮ মে, ২০০১ অনুসারে একজন সরকারী কর্মচারীর বৈদেশিক চাকুরীকালীন সময়ের লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশন উক্ত কর্মচারীর বৈদেশেকি চাকুরিতে যোগদানের পূর্বে সরকার হইতে প্রাপ্ত তাঁহার শেষ মাসিক মূল বেতনের ভিত্তিতে নির্ধারিত হইবে। অর্থ লিভ সেলারী কন্ট্রিবিউশনের হার হইবে তাহার মূল বেতনের ১২.৫%।

(৩) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের রিজিলিউশন নং সম(:বৈ:নি:) নিয়োগনীতি-১/৯২-৫০০ , তারিখ: ৮ সেপ্টেম্বর, ১৯৯২ এর সহিত সংযুক্ত সংযোজনী “খ” এর “আই” অনুচ্ছেদ অনুযায়ী লিভ স্যালারী কন্ট্রিবিউশন বৈদেশিক নিয়োগকর্তা বা সংশ্লিষ্ট কর্মচারী নিজে প্রদান করিবেন।

Avatar

admin

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। ভালবাসি চাকরি সংক্রান্ত বিধি বিধান জানতে ও অন্যকে জানাতে। আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন alaminmia.tangail@gmail.com ঠিকানায়। ধন্যবাদ আপনাকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.