শ্রান্তিবিনোদন ছুটি মঞ্জুরী ছাড়া মূল বেতনের সমপরিমাণ ভাতা প্রদানের সুযোগ নাই ।

অনেক সময় সরকারি কর্তৃপক্ষ কাজের চাপে কর্মচারীকে শুধু ভাতা মঞ্জুর করতে চায়। মঞ্জুরীকৃত ছুটি ভোগ করতে দিতে চায় না। জনস্বার্থে ব্যাপারটি হতেই পারে। কিন্তু প্রায় বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এমণটি দেখা যায়। আসলে ছুটি ছাড়া ভাতা মঞ্জুর করা যায় না। আবার ভাতা ছাড়া ছুটি মঞ্জুর করা যায় না।

  • নন গেজেটেড কর্মচারীরা গেজেটেড পদের দায়িত্ব পালন করলে শ্রান্তিবিনোদন ছুটির ক্ষেত্রে তারা গেজেটেড অফিসার হিসাবে গন্য হবেন না।
  • এলপিআর বা পিআরএল এ থাকাকালীন বিনোদন ভাতা প্রাপ্ত হবেন না।
  • শ্রান্তি বিনোদন ছুটিগ্রহণ না করিলে কোন কর্মচারী বিনোদন ভাতা গ্রহণ করিতে পারবেন না।
  • শ্রান্তিবিনোদন ছুটি এক মাসের কম সময়ে মঞ্জুরীর নতুন আদেশ কার্যকর।

শ্রান্তিবিনোদন ছুটির আদেশ নিম্নরুপ:

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, অর্থ মন্ত্রণালয়, অর্থ বিভাগ, প্রবিধান উইং, শাখা-২

নং-এম, এফ(আর-২)এল-১/৭৮(অংশ-২)/৫৯ তারিখ: ৮-৯-১৯৭৯

অত্র বিভাগ কর্তৃক জারিকৃত ১৭-৩-১৯৭৯ তারিখের S.R.O No. 61-L/79-MF(R-II)L-1/78-71 বিজ্ঞপ্তিতে বর্ণিত বিনোদন ভাতা মঞ্জুরীর ক্ষেত্রে নিম্নবর্ণিত সংশয়গুলি দেখা দিয়েছে-

১) নন-গেজেটেড কর্মচারীরা চলতি দায়িত্বের ভিত্তিতে গেজেটেড পদ ধারণ করিলে শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটির ক্ষেত্রে তাঁহারা গেজেটেড অফিসার হিসাবে গণ্য হইবেন কিনা।

২) নূতন জাতীয় বেতনের ১৪ নং স্কেলের উর্ধ্বের কর্মচারীরা শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটির ক্ষেত্রে গেজেটেড গন্য হইবেন কিনা।

৩। যে সমস্ত কর্মচারীরা অবসর প্রস্তুতি ছুটিতে (এল.পি.আর) আছেন তাঁহারা বিনোদন ভাতা প্রাপ্ত হইবেন কিনা।

৪) শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি গ্রহণ না করিয়া কোন কর্মচারী বিনোদন ভাতা গ্রহণ করিতে পারেন কিনা।

৫) শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটির পরিমাণ এক মাসের কম সময়ের জন্য মঞ্জুরী দেওয়া যাইবে কি না।

৬। বিনোদন ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা কিভাবে নির্নিত হইবে।

বর্ণিত সংশয়গুলি পরীক্ষা করত: সরকার সদসয় হইয়া ক্রমিক নং অনুযায়ী নিম্নবর্ণিত স্পষ্টীকরণ প্রদান করিতেছে:

১। যে সমস্ত নন-গেজেটেড কর্মচারীরা চলতি দায়িত্বে ভিত্তিতে গেজেটেড পদে কাজ করিতেছেন তাঁহারা গেজেটেড পদের বেতন প্রাপ্ত হন না। তাঁহারা স্ব-কাজের দায়িত্বসহ উচ্চতর পদের কাজ দেখা শোনা করিয়া থাকেন। অতএব, তাঁরা গেজেটেড পদের পূর্ণ দায়িত্বও পালন করেন না। গেজেটেড পদের পূর্ণ দায়িত্বে পালন না করিয়া এবং পদের বেতন প্রাপ্ত না হইলে গেজেটেড অফিসার হিসাবে গণ্য করিবার সুযোগ নাই। অতএব, বিনোদন ভাতার ক্ষেত্রে তাঁহাদিগকে গেজেটেড অফিসার হিসাবে গণ্য করিবার অবকাশ নাই।

২। নূন জাতীয় বেতন স্কেল অনুযায়ী কোন পদের মর্যাদার পুন:বিন্যাস এখনও করা হয় নাই। অর্থাৎ কোন পদ গেজেটেড অথবা নন-গেজেটেড বলিয়া গণ্য হইবে এই বিষয়টি নূতন জাতীয় বেতন স্কেলের পরিপ্রেক্ষিতে এখানও নির্ধারিণ করা হয় নাই। অতএব, যে সমস্ত পদ ৩০-০৬-৭৭ তারিখে নন-গেজেটেড পদ হিসাবে গণ্য হইত, ঐ সকল পদ নূতন জাতীয় বেতন স্কেলেই অন্তর্ভূক্ত হোক না কেন-সেই সকল পদের স্খেসেত্র বিনোদন ভাতা প্রদানযোগ্য হইবে।

৩। বিনোদন ভাতা প্রদানের মূল শর্ত হইল শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি গ্রহণ। যে সমস্ত কর্মচারীরা অবসর প্রস্তুতির ছুটিতে (এল.পি.আর) আছে তাঁহাদের পক্ষে উক্ত ছুটি শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটিতে পরিবর্তিত করিবার অবকাশ নাই। অতএব, বর্ণিত বিনোদন ভাতা প্রাপ্ত হইবেন না।

৪। বিনোদন ভাতা প্রদানের মূল শর্ত হইল যুগপৎভাবে শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটির মঞ্জুরী। অতএব, উক্ত ছুটির মঞ্জুরী ছাড়া বিনোদন ভাতা প্রদানের অবকাশ নাই।

৫। বিনোদন ভাতা প্রদানের মূল শর্ত হইল এক মাস শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি মঞ্জুরী। অতএব, উক্ত সময়ের কম সময়ের জন্য ছুটি মঞ্জুরীর ক্ষেত্রে বিনোদন ভাতা প্রাপ্তব্য নহে।

৬। বিনোদন ভাতা মঞ্জুরীর বিষয়ে সরকারি কর্মচারীর জ্যেষ্ঠতা সরকারি চাকরিতে তাহারা যোগদানের তারিখ থেকে নির্ধারিত হইবে। তবে যে সমস্ত কর্মচারীর অবসর প্রস্তুতির ছুটি/চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ নিকটবর্তী তাহাদেরকে বিনোদন ভাতা মঞ্জুরীর ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার প্রদান করিতে হইবে।

মো: সাইদুর রহমান

উপ-সচিব

উপরোক্ত আদেশটির PDF নিতে পারেন: ডাউনলোড

Avatar

admin

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। ভালবাসি চাকরি সংক্রান্ত বিধি বিধান জানতে ও অন্যকে জানাতে। আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন alaminmia.tangail@gmail.com ঠিকানায়। ধন্যবাদ আপনাকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.