সরকারি যানবাহন মেরামতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ব্যয়ের পরিমান কত?

আর্থিক ক্ষমতা অর্পণ নীতিমালা ২০১৫ এর পৃষ্ঠা ১৪ এর ক্রমিক ৯ এর নীতিমালা অনুসারে মেরামত, সংরক্ষণ ও পুর্নবাসনের আওতাধীন আইটেম সমূহের ব্যয় মঞ্জুরী থাকতে হবে। উর্ধ্বতন অফিসের মঞ্জুরী থাকতে হবে। সরকারি যান বাহন মেরামতে অর্থ বছরে যে পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয় তা হতে শর্তসাপেক্ষ মন্ত্রণালয় বা দপ্তর প্রধান নিম্নোক্ত শর্ত ও নির্ধাধিত পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে পারবে।

মন্ত্রণালয় বা বিভাগের ক্ষেত্রে- (ক) বাজেট বরাদ্দ থাকা সাপেক্ষে বৎসরে ১টি যানবাহনের ক্ষেত্রে অনুর্ধ ১ লক্ষ টাকা।

শর্তাবলী:

১। সরকারি যানবাহন কারখানা কর্তৃক প্রত্যায়িত হতে হবে যে, তারা উক্ত মেরামত কাজ করতে অসমর্থ;

২। এতদসংশ্লিষ্ট বিধি বিধান ও সরকারি আদেশ নির্দেশ অনুসরণ করতে হবে;

৩। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ব্যয় মঞ্জুরি এড়ানোর উদ্দেশ্যে মোট মেরামত ব্যয় বিভাজন করা যাবে না। এবং

৪। পাবলিক প্রকিউরমেন্ট এ্যাক্ট-২০০৬ ও পাবলিক প্রকিউরমেন্ট রুলস-২০০৮ অনুসরণ করতে হবে।

অধিদপ্তর বা পরিদপ্তর পর্যায়ের অফিস- কলাম ৩ এ বর্ণিত শর্তাবলী ও বাজেট বরাদ্দ সাপেক্ষে বৎসরে ১টি যানবাহনের ক্ষেত্রে অনুর্ধ্ব ৭৫,০০০ টাকা ।

বিভাগীয়/আঞ্চলিক পর্যায়ের অফিস- কলাম ৩ এ বর্ণিত শর্তাবলী ও বাজেট বরাদ্দ সাপেক্ষে বৎসরে ১টি যানবাহনের ক্ষেত্রে অনুর্ধ্ব ৫০,০০০ টাকা ।

জেলা পর্যায়ের অফিস- কলাম ৩ এ বর্ণিত শর্তাবলী ও বাজেট বরাদ্দ সাপেক্ষে বৎসরে ১টি যানবাহনের ক্ষেত্রে অনুর্ধ্ব ৩০,০০০ টাকা ।

উপজেলা পর্যায়ের অফিস– কলাম ৩ এ বর্ণিত শর্তাবলী ও বাজেট বরাদ্দ সাপেক্ষে বৎসরে ১টি যানবাহনের ক্ষেত্রে অনুর্ধ্ব ২০,০০০ টাকা ।

বাজেট বরাদ্দ থাকলেই সমস্ত টাকা সরকারি গাড়ি মেরামত করলে ব্যয় করা যাবে এমণ নয়। তবে শর্তপূরণে ব্যয় করা যেতে পারে। তবে আর্থিক ক্ষমতার বাহিরে ব্যয় সম্পাদন করিয়া থাকিলে অবশ্যই অডিট আপত্তিতে পড়তে হবে।

উপরোক্ত আদেশ সম্পর্কে আরও স্পষ্ট ধারণ পেতে আর্থিক ক্ষমতা অর্পন বিধিমালা বা নীতিমালা ২০১৫ দেখে নিতে পারেন: ডাউনলোড

Avatar

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.