সরকারি চাকরি গ্রহণের পর জটিলতা এড়াতে জাতীয় পরিচয়পত্রে জন্ম তারিখ পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ে। একাডেমিক সার্টিফিকেটগুলো জন্ম তারিখ ঠিক থাকলেও NID কার্ডে জন্ম তারিখ ভুল থাকায় তা পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়ে। সকল ক্ষেত্রে জন্ম তারিখ ঠিক রয়েছে শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্রে যদি জন্মতারিখ ভুল থাকে তবে তা সহজেই সংশোধন করে নিতে পারেন।

জন্ম তারিখ সংশোধনের ক্ষেত্রে কোন না কোন সঠিক রেফারেন্স অবশ্যই নির্বাচন কমিশনের কাছে উপস্থাপন করতে হবে। যদি অসৎ কোন উদ্দেশ্য না থাকে এবং সঠিক রেফারেন্স বা প্রমানক দেখাতে পারেন তবে অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র NID তে জন্ম তারিখের ভুল সংশোধন করা যাবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে সঠিক জন্ম তারিখটি পরিবর্তন করে ভুল জন্ম তারিখে বসানোর চেষ্টা যেন না করা হয়।

নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশের সাধারণ জিজ্ঞাসা প্রশ্নত্তোর পর্বের ক্রমিক নম্বর ১৯ এ সুষ্পষ্টভাবে জন্ম তারিখ পরিবর্তনের প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে।

১৯। প্রশ্নঃ বয়স/ জন্ম তারিখ পরিবর্তন করার প্রক্রিয়া কি?

উত্তরঃ এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষার সনদের সত্যায়িত ফটোকপি আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে। এসএসসি বা সমমানের সনদ প্রাপ্ত না হয়ে থাকলে সঠিক বয়সের পক্ষে সকল দলিল উপস্থাপনপূর্বক আবেদন করতে হবে। আবেদনের পর বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনে ডাক্তারী পরীক্ষা সাপেক্ষে সঠিক নির্ধারণ করে প্রয়োজনীয় সংশোধন করা হবে।

যদি এস.এস.সি পাশের সার্টিফিকেট না থাকে?

এস.এস.সি সার্টিফিকেট যদি না থাকে বা আপনি এস.এস.সি পাশ না করে থাকেন তবে চাকরি নেয়ার সময়ের অষ্টম শ্রেণী পাশের সার্টিফিকেটের সত্যায়িত কপি এবং সার্ভিস বুক বা খতিয়ান বইয়ের তৃতীয় পৃষ্ঠা যেখানে জন্ম তারিখ লিখিত থাকে সেই পৃষ্ঠার সত্যায়িত কপি। তবে সত্যায়িত করা ক্ষেত্রে সার্টিফিকেট এবং সার্ভিস বুকের তৃতীয় পৃষ্ঠা দপ্তর প্রধান কর্তৃক সত্যায়িত করে নিন। প্রয়োজনে দপ্তর থেকে একটি চিঠি ইস্যু করে নিন। জন্ম সনদ থাকলে তাও আপনি রেফারেন্স হিসাবে দাখিল করুন।

যদি তিনি চাকরিজীবী না হন এবং যদি সাধারণ জনগন হয়ে থাকে তবে?

যদি আপনার এস.এস.সি বা কোন প্রকার সার্টিফিকেট না থাকে এবং আপনি জন্ম সনদ দাখিল করুন এবং জন্ম সনদ এর সাথে আপনি আপনার নিজ নামে জমির দলিল বা পাসপোর্ট বা অন্য কোন রেফারেন্স দাখিল করুন যাতে নির্বাচন কমিশন সন্তুষ্ট হয়। জন্ম তারিখ পরিবর্তন বা সংশোধন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তাই এটি সংশোধনের আপনাকে যথেষ্ট যত্নবান বা প্রমানক দাখিলের চেষ্ট করতে হবে।

জন্ম তারিখ পরিবর্তনে কি উপজেলা নির্বাচন কমিশনে যোগাযোগ করলেই হবে?

হ্যাঁ, যথাযথ প্রমানক সহ আপনি আপনার নিকটস্থ উপজেলা নির্বাচন কমিশন বা জেলা নির্বাচন কমিশন অফিসে যোগাযোগ করুন। মনে রাখবেন ভুল তথ্য প্রদান করে তাদেরকে বিভ্রান্ত করবেন না তাতে পরবর্তীতে বা উক্ত সময়ে জন্ম তারিখ সংশোধনের জটিলতার সম্মুখীন হতে পারেন। তবে বর্তমানে অনলাইনেও আপনি আপনার নাম, জন্ম তারিখ, রক্তের গ্রুপ, ঠিকানা, পেশা, বৈবাহিক অবস্থা ইত্যাদি তথ্য পরিবর্তনের জন্য আবেদন করতে পারেন। খুব সহজেই আপনি অনলাইনে প্রত্যেকটি তথ্য হালনাগাদ করতে আপনাকে রেফারেন্স দাখিল করতে হবে। ঘরে বসেই জাতীয় পরিচয়পত্র রেজিস্ট্রেশন ও সংশোধন করুন।

তথ্য পরিবর্তনের জন্য নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশের সাধারণ জিজ্ঞাসাগুলো নিম্নরূপ:

১। প্রশ্নঃ কার্ডের তথ্য কিভাবে সংশোধন করা যায়?
উত্তরঃ এনআইডি রেজিস্ট্রেশন উইং/উপজেলা/থানা/জেলা নির্বাচন অফিসে ভুল তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করতে হবে। সংশোধনের পক্ষে পর্যাপ্ত উপযুক্ত দলিলাদি আবেদনের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

২। প্রশ্নঃ কার্ডে কোন সংশোধন করা হলে তার কি কোন রেকর্ড রাখা হবে?
উত্তরঃ সকল সংশোধনের রেকর্ড সেন্ট্রাল ডাটাবেজে সংরক্ষিত থাকে।

৩। প্রশ্নঃ ভুলক্রমে পিতা/স্বামী/মাতাকে মৃত হিসেবে উল্লেখ করা হলে সংশোধনের জন্য কি কি সনদ দাখিল করতে হবে?
উত্তরঃ জীবিত পিতা/স্বামী/মাতাকে ভুলক্রমে মৃত হিসেবে উল্লেখ করার কারণে পরিচয়পত্র সংশোধন করতে হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পরিচয়পত্র দাখিল করতে হবে।

৪। প্রশ্নঃ আমি অবিবাহিত। আমার কার্ডে পিতা না লিখে স্বামী লেখা হয়েছে। কিভাবে তা সংশোধন করা যাবে?
উত্তরঃ সংশ্লিষ্ট উপজেলা/থানা/জেলা নির্বাচন অফিসে আপনি বিবাহিত নন মর্মে প্রমাণাদিসহ আবেদন করতে হবে।

৫। প্রশ্নঃ বিয়ের পর স্বামীর নাম সংযোজনের প্রক্রিয়া কি?
উত্তরঃ নিকাহনামা ও স্বামীর আইডি কার্ড এর ফটোকপি সংযুক্ত করে NID Registration Wing/ সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ থানা/ জেলা নির্বাচন অফিস বরাবর আবেদন করতে হবে।

৬। প্রশ্নঃ বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। এখন ID Card থেকে স্বামীর নাম বিভাবে বাদ দিতে হবে?
উত্তরঃ বিবাহ বিচ্ছেদ সংক্রান্ত দলিল (তালাকনামা) সংযুক্ত করে NID Registration Wing/সংশ্লিষ্ট উপজেলা/ থানা/ জেলা নির্বাচন অফিসে আবেদন করতে হবে।

৭। প্রশ্নঃ বিবাহ বিচ্ছেদের পর নতুন বিবাহ করেছি এখন আগের স্বামীর নামের স্থলে বর্তমান স্বামীর নাম কিভাবে সংযুক্ত করতে পারি?
উত্তরঃ প্রথম বিবাহ বিচ্ছেদের তালাকনামা ও পরবর্তী বিয়ে কাবিননামাসহ সংশোধন ফর্ম পূরণ করে আবেদন করতে হবে।

৮। প্রশ্নঃ আমি আমার পেশা পরিবর্তন করতে চাই কিন্তু কিভাবে করতে পারি?
উত্তরঃ এনআইডি রেজিস্ট্রেশন উইং/উপজেলা/জেলা নির্বাচন অফিসে প্রামাণিক কাগজপত্র দাখিল করতে হবে। উলেখ্য, আইডি কার্ডে এ তথ্য মুদ্রণ করা হয় না।

৯। প্রশ্নঃ আমার ID Card এর ছবি অস্পষ্ট, ছবি পরিবর্তন করতে হলে কি করা দরকার?
উত্তরঃ এক্ষেত্রে নিজে সরাসরি উপস্থিত হয়ে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগে আবেদন করতে হবে।

১০। প্রশ্নঃ নিজ/পিতা/স্বামী/মাতার নামের বানান সংশোধন করতে আবেদনের সাথে কি কি দলিল জমা দিতে হবে?
উত্তরঃ এসএসসি/সমমান সনদ, জন্ম সনদ, পাসপোর্ট, নাগরিকত্ব সদন, চাকুরীর প্রমাণপত্র, নিকাহ্‌নামা, পিতা/স্বামী/মাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি জমা দিতে হয়।

১১। প্রশ্নঃ নিজের ডাক নাম বা অন্য নামে নিবন্ধিত হলে সংশোধনের জন্য আবেদনের সাথে কি কি দলিল জমা দিতে হবে?
উত্তরঃ এসএসসি/সমমান সনদ, বিবাহিতদের ক্ষেত্রে স্ত্রী/ স্বামীর জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি, ম্যাজিট্রেট কোর্টে সম্পাদিত এফিডেভিট ও জাতীয় পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি,ওয়ারিশ সনদ,ইউনিয়ন/পৌর বা সিটি কর্পোরেশন হতে আপনার নাম সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র।

১২। প্রশ্নঃ পিতা/মাতাকে ‘মৃত’ উল্লেখ করতে চাইলে কি কি সনদ দাখিল করতে হয়?
উত্তরঃ পিতা/মাতা/স্বামী মৃত উল্লেখ করতে চাইলে মৃত সনদ দাখিল করতে হবে।

১৩। প্রশ্নঃ ঠিকানা কিভাবে পরিবর্তন/ সংশোধন করা যায়?
উত্তরঃ শুধুমাত্র আবাসস্থল পরিবর্তনের কারনেই ঠিকানা পরিবর্তনের জন্য বর্তমানে যে এলাকায় বসবাস করছেন সেই এলাকার উপজেলা/ থানা নির্বাচন অফিসে ফর্ম ১৩ এর মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। তবে একই ভোটার এলাকার মধ্যে পরিবর্তন বা ঠিকানার তথ্য বা বানানগত কোন ভুল থাকলে সাধারণ সংশোধনের আবেদন ফরমে আবেদন করে সংশোধন করা যাবে।

১৪। প্রশ্নঃ আমি বৃদ্ধ ও অত্যন্ত দরিদ্র ফলে বয়স্ক ভাতা বা অন্য কোন ভাতা খুব প্রয়োজন। কিন্তু নির্দিষ্ট বয়স না হওয়ার ফলে কোন সরকারী সুবিধা পাচ্ছি না। লোকে বলে ID Card –এ বয়সটা বাড়ালে ঐ সকল ভাতা পাওয়া যাবে?
উত্তরঃ ID Card এ প্রদত্ত বয়স প্রামাণিক দলিল ব্যতিত পরিবর্তন সম্ভব নয়। উল্লেখ্য, প্রামানিক দলিল তদন্ত ও পরীক্ষা করে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

১৫। প্রশ্নঃ একই পরিবারের বিভিন্ন সদস্যের কার্ডে পিতা/মাতার নাম বিভিন্নভাবে লেখা হয়েছে কিভাবে তা সংশোধন করা যায়?
উত্তরঃ সকলের কার্ডের কপি ও সম্পর্কের বিবরণ দিয়ে NID Registration Wing/ উপজেলা/ জেলা নির্বাচন অফিস বরাবর পর্যাপ্ত প্রামাণিক দলিলসহ আবেদন করতে হবে।

১৬। প্রশ্নঃ আমি পাশ না করেও অজ্ঞতাবশতঃ শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি বা তদুর্দ্ধ লিখেছিলাম এখন আমার বয়স বা অন্যান্য তথ্যাদি সংশোধনের উপায় কি?
উত্তরঃ আপনি ম্যাজিট্রেট আদালতে এস.এস.সি পাশ করেননি, ভুলক্রমে লিখেছিলেন মর্মে হলফনামা করে এর কপিসহ সংশোধনের আবেদন করলে তা সংশোধন করা যাবে।

১৭। প্রশ্নঃ ID Card এ অন্য ব্যক্তির তথ্য চলে এসেছে। এ ভুল কিভাবে সংশোধন করা যাবে?
উত্তরঃ ভুল তথ্যের সংশোধনের পক্ষে পর্যাপ্ত দলিল উপস্থাপন করে NID Registration Wing/সংশ্লিষ্ট উপজেলা/থানা/জেলা নির্বাচন অফিসে আবেদন করতে হবে।এক্ষেত্রে বায়োমেট্রিক যাচাই করার পর সঠিক পাওয়া গেলে সংশোধনের প্রক্রিয়া করা হবে।

১৮। প্রশ্নঃ রক্তের গ্রুপ অন্তর্ভূক্ত বা সংশোধনের জন্য কি করতে হয়?
উত্তরঃ রক্তের গ্রুপ অন্তর্ভুক্ত বা সংশোধন করতে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়কৃত ডায়াগনোসটিক রিপোর্ট দাখিল করতে হয়।

১৯। প্রশ্নঃ বয়স/ জন্ম তারিখ পরিবর্তন করার প্রক্রিয়া কি?
উত্তরঃ এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষার সনদের সত্যায়িত ফটোকপি আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে। এসএসসি বা সমমানের সনদ প্রাপ্ত না হয়ে থাকলে সঠিক বয়সের পক্ষে সকল দলিল উপস্থাপনপূর্বক আবেদন করতে হবে। আবেদনের পর বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনে ডাক্তারী পরীক্ষা সাপেক্ষে সঠিক নির্ধারণ করে প্রয়োজনীয় সংশোধন করা হবে।

২০। প্রশ্নঃ স্বাক্ষর পরিবর্তন করতে চাই, কিভাবে করতে পারি?
উত্তরঃ নতুন স্বাক্ষর এর নমুনাসহ গ্রহণযোগ্য প্রমাণপত্র সংযুক্ত করে আবেদন করতে হবে। তবে স্বাক্ষর একবারই পরিবর্তন করা যাবে।

২১। প্রশ্নঃ আমার জন্ম তারিখ যথাযথভাবে লেখা হয়নি, আমার কাছে প্রামাণিক কোন দলিল নেই, কিভাবে সংশোধন করা যাবে?
উত্তরঃ সংশ্লিষ্ট উপজেলা/জেলা নির্বাচন অফিসে আবেদন করতে হবে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২২। প্রশ্নঃ একটি কার্ড কতবার সংশোধন করা যায়?
উত্তরঃ এক তথ্য শুধুমাত্র একবার সংশোধন করা যাবে। তবে যুক্তিযুক্ত না হলে কোন সংশোধন গ্রহণযোগ্য হবে না।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3002 posts and counting. See all posts by admin

51 thoughts on “জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন ২০২২ । NID কার্ডে জন্ম তারিখ পরিবর্তনের প্রক্রিয়া দেখে নিন

  • Md kaisar Hamid

  • আমার nid Card এ বয়স কমানোর উপায় কি

  • বয়স চাইলেই কমানো যায় না। যদি বয়স ভুল থাকে তা উপযুক্ত প্রমান দাখিল সাপেক্ষে সঠিক করতে পারেন।

  • ভাই আমার বাবার
    Nid এর বয়স ভুল আসছে। ১৪ বছর
    এটা কি সংশোধন করা সম্ভব

  • জন্ম নিবন্ধন নিয়ে যান। অথবা জমির দলিলের কপি। অথবা এসএসসি বা এইচ.এসসি সার্টিফিকেট।

  • ভাইয়া আমার জন্ম নিবন্ধ ২০০৪ সাল এবং আমার সকল সার্টিফিকেট ও ২০০৪ সাল দেয়া কিন্তু আমাকে একটি কাজের জন্য ১৮ বছর দেখানোর জন্য একটি জন্ম নিবন্ধন তৈরী করি যেটি ১৯৯৮। আমি তখন ঢাকায় যখন আমাদের বাড়িতে NID কার্ড এর জন্য লোক আসে তখন আমার বাবা মা আমাকে না জানিয়ে ওটা তাদের দিয়ে দায় পরবর্তীতে আমি শুধু গিয়ে আমার ছবি এবং ফিঙ্গারপ্রিয়েন্ট দিয়ে আসি আমি জানতাম না যে তারা ওটা দিয়েছে। যখন আমি সাময়িক কার্ট হাতে পাই তখন দেখি এ অবস্থা। আমি অনেক হতাশ হয়ে গেছি ভাইয়া এখন আমি কি করতে পারি। একটি সাজেশন দিবেন আমায় দয়া করে। ধন্যবাদ

  • ভাইয়া আমার জন্ম নিবন্ধ ২০০১ সাল এবং আমার সকল সার্টিফিকেট ও ২০০১ সাল দেয়া কিন্তু আমাকে একটি কাজের জন্য ১৮ বছর দেখানোর জন্য একটি জন্ম নিবন্ধন তৈরী করি যেটি ১৯৯৮। আমি তখন ঢাকায় যখন আমাদের বাড়িতে NID কার্ড এর জন্য লোক আসে তখন আমার বাবা মা আমাকে না জানিয়ে ওটা তাদের দিয়ে দায় পরবর্তীতে আমি শুধু গিয়ে আমার ছবি এবং ফিঙ্গারপ্রিয়েন্ট দিয়ে আসি আমি জানতাম না যে তারা ওটা দিয়েছে। যখন আমি সাময়িক কার্ট হাতে পাই তখন দেখি এ অবস্থা। আমি অনেক হতাশ হয়ে গেছি ভাইয়া এখন আমি কি করতে পারি। একটি সাজেশন দিবেন আমায় দয়া করে। ধন্যবাদ

  • আপনি অনলাইনে সংশোধনের আবেদন করুন। কিছু ডকুমেন্ট স্ক্যান করে দিবেন। ঠিক হয়ে যাবে।

  • অনলাইনেই সংশোধনের আবেদন করা যায়।

  • ভাই আমার জন্ম তারিখ ভুলক্রমে আমার অভিভাবক গন ১৯৮৩ এর স্থানে ১৯৯৬ দিয়েছে কিন্তু আমার জন্ম সনদ,এস এস সি, এইচ স সি,আছে সকল ভাবে ১৯৮৩ আছে। কিন্তু আমি সংশোধন এর জন্য আবেদন করেছি কিন্তুু সেটা ফেরত এসেছে এখন আমি কি করতে পারি যদি পরামর্শ দেওয়া যেত

  • আপনি প্রথমে অনলাইনে আবেদন করুন। এটি সরাসরি ইসি দেখে। তারপর না হলে সরাসরি ঢাকায় যোগাযোগ করুন।

  • ভাই আমার বাবা একটি হাইস্কুলের নৈশ প্রহরী হিসেবে চাকরিরত আছেন। সমস্যা হল তার জন্ম তারিখ NID তে ভুল দেয়া। সহজ সরল মানুষ পেয়ে অনেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। কিন্তুু সংশোধন করে দিতে পারেনি। চাকরিটাই আমাদের সম্বল।NIDকার্ড অনুযায়ী অল্পকিছু দিন চাকরির মেয়াদ আছে। বড় সমস্যা হল সার্টিফিকেটের সাথে।এখন কি কি কাগজ পত্র লাগবে এবং কোথায় যেতে হবে কিছুই বুঝতে পারছি না। দয়াকরে বললে অনেক উপকার হত।

  • ওনার যে সার্ভিস বই আছে তার তৃতীয় পৃষ্ঠা দপ্তর প্রধান কর্তৃক সত্যায়িত করে নিয়ে নির্বাচন কমিশন অফিসে যান ঠিক করে দিবে। জন্ম সনদ থাকলেও সেটি দেখাতে পারেন।

  • উপযুক্ত প্রমানক লাগবে। জন্ম সনদে বা এসএসসি সার্টিফিকেটে যা আছে তা করতে পারবেন।

  • আমি NiD তে বয়স বাড়াতে চাই. কিন্তু কোন সার্টিফিকেট নাই এখন কি করবো.?.জানাবেন দয়া করে

  • কোন না কোন ডকুমেন্ট পেশ করতে হবে।

  • আসসালামুয়ালাইকুম ভাই আমার নাম মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম আমার জন্ম তারিখ 1990 দিকে আমার মনে নাই হারিয়েছে আমি ভোটার হতে পারিনি এখন আমি কী করবো

  • জন্ম সনদ না থাকলে করে নিন। এস.এস. সি সার্টিফিকেট এবং যে কোন রেফারেন্স দিতে হবে জাতীয় পরিচয়পত্র নিতে।

  • আমার আইডি কাডের বয়স টা বাড়াতে চাই ভাই আমার কোন সাটিফিকেট নাই plz
    যদি কোন উপায় থাকে তাহলে আমার
    আমার নাম্বার একটা মিস কল দিয়েন plz plz help me
    Namber 01725133807

  • বুঝতে পারছি। কিন্তু জন্ম সনদ, নিকাহ নামা, বাড়ির দলিল ইত্যাদি কোন না কোন ডকুমেন্ট শো করতে হবে।

  • আমার আইডি কাড এর বয়স বাড়তে চাই ইমার জিনছি জদি হয় নাম্বার দিতেছি কল দিবেন আর আমার কোন কাগজ পএ কিছু নেই এমনি বয়সটা বুলে কম আসছে 01888306472

  • প্রমানক ছাড়া বয়স হেরফেন হবে না। তবে জন্ম সনদ করে নিন।

  • ভাই আমার এসএসসির সারটিফিকেট চেয়ে ভোটার আইডি কার্ডের বয়স ১১ বছর বেশি।আমি ভোটার হবার পর উন্মুক্ত থেকে এসএসসি পাশ করেছি।তবে আমার জন্ম নিবন্ধন সাটিফিকেট এসএসসি সারটিফিকেট এর সাথে বয়সে মিল আছে।এখন আমি কিভাবে বয়স সংশোধন করবো বললে উপকৃত হবো।

  • নাম,মোঃরাকিব,জন্ম তারিখ,10তারিখ01মাস2003,,,টোকেন নাম্বার,56749016

  • অনলাইনে লগিন করে অবস্থা চেক করুন।

  • ভাইআর এক কুমিল্লার আত্তীয় তার ভোটার আইডি কার্ড এবং জন্ম নিবন্দন এ বয়স বেশি তার বয়স হওয়ার কথা 1994 হয়ে আছে 1984 তার মার বয়স 1970 ।
    ওনি কোন পরা লেখা করে নাই এখন কি করাযায়? ওনি পাসপোর্ট করবে বয়েস বেশি হলে বিশা পাবে না

    এটা আমার নাম্বার 01624662069

  • বয়সের স্বপক্ষে কোন না কোন ডকুমেন্ট দাখিল করতে হবে। জমির দলিল বা অন্য কোন কিছু যেখানে প্রমাণ হয় তা বয়স কম হবে। প্রয়োজনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধনে মেডিকেল সার্টিফিকেট বা স্থায়ী অফিসের কারও প্রত্যয়ন পত্র গ্রহণ করে জন্ম নিবন্ধন আগে সংশোধন করুন।

  • আমার ভোটার আইডি কার্ডের বয়স ১৮ আর পাসপোর্টে হলো ২২ এখন কী আমার পাসপোর্ট অনুযায়ী আমার আইডি কার্ডের বয়স দেওয়া যাবে

  • জন্ম নিবন্ধন, পাবলিক পরীক্ষা ও পাসপোর্ট অনুযায়ী পরিবর্তন করতে পারবেন।

  • স্যার আমি সংশোধন এর জন্য আবেদন করে ছিলাম একন আবেদন টা বাতিল করতে চাই ওনে কি করা লাগবে স্যার

  • ম্যানুয়াল হলে আবেদনের তারিখ উল্লেখ করে বাতিল করতে হবে। অনলাইনে হলে হেল্প লাইনে কল করুন।

  • আমার সাটিফিকেট, জন্ম নিবন্ধনে জন্ম তারিখ হল 7 march 1992 NID কার্ডে 10 september 1989 আবেদন করেছিলাম দুইবার ফেরত এসেছে। উপজেলা নির্বাচন কমিশনে যোগাযোগ করি তারা বলে আপনার সংশোধন হবেনা কারন যখন আপনার ভোট হয় তখন শিক্ষাগত যোগ্যতা দেয়া পঞ্চম শ্রেনী। এটা নাকি ঠিক করা সম্ভব না।

  • অনুগ্রহ করে আপনি অনলাইনে একবার আবেদন করে দেখুন।সংযুক্তিগুলো অনলাইনেই দাখিল করুন। যেহেতু অনলাইন কার্যক্রম প্রধান অফিস দেখে তাই হতেও পারে।

  • বড় ভাই আমার জন্ম সাল ২০০২ কিন্তু ভুলে আমার আইডি কার্ডে ১৯৯৪ আসছে।

    আমার এসএসসি সার্টিফিকেট ও আছে ২০০২ সাল দেওয়া।

    কিন্তু আমি এখন আইডি কার্ডটা ২০০২ করবো কীভাবে যদি বলতেন খুব উপক্রিত হতাম।

  • আইডি কার্ড আগে হয়েছে নাকী এসএসসি পাশ? যদি এসএসসি পাশ আগে করে থাকেন তবে এসএসসি সনদ দিয়েই সংশোধন আবেদন করতে পারবেন এবং সেটি গ্রহণ যোগ্য হবে।

  • বড় ভাই, আমি এনআইডি কার্ডের জন্ম তারিখ পরিবর্তনের জন্য আবেদন করেছিলাম আজ থেকে তিন মাস আগে ।অনলাইনে আমার জন্ম সার্টিফিকেট এবং এসএসসি সার্টিফিকেট আপলোড করেছি। আমি কয়েকবার চিটাগাং নির্বাচন কমিশন অফিসে খ পর্যায় জাহাঙ্গীর স্যারের সাথে দেখা করেছি। উনি বলেছেন হয়ে যাবে। চলে আসার পর এসএমএস আসলো ১০৫ থেকে। যে উপজেলা নির্বাচন কমিশন অফিসারের সরজমিনে একটা তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করতে হবে ।কিন্তু উপজেলা নির্বাচন কমিশন অফিসার আমাকে তদন্ত রিপোর্টটা দিতে ইচ্ছুক নয় ।আমি তিন-চারবার গিয়েছি অনেকগুলো ফাইল ,কাগজপত্র নিয়ে। তারপরও দেয়নি, এখন আমার করনীয় কি?

  • উপজেলা নির্বাচন কমিশনারের উর্ধ্বতন অফিসারের কাছে লিখুন।

  • স্যার,আসসালামু আলাইকুম
    ভোটার আই ডি কারড কতবার সংশোধন করা যাবে

  • তিন বা ততোধিকবার।

  • ভাই আমার জন্ম ২০০২ সালে কিন্তু বাবা মা আমার তা ভুল করে জন্ম নিবন্ধন কার্ডে দিয়েছেন ২০০৩ সাল,,, তার পর আমার Nid কার্ডে ও দেওয়া হয় ২০০৩,,,, এখন আমি আমার বয়স ঠিক করতে চাই,,,এখন আমার কাছে তেমন কোনো পর্যাপ্ত প্রমাণ নেই,,, এখন আমি কি করতে পারি, প্লিজ একটু জানাবেন,,,

  • এসব প্রমানক দিয়েই অনলাইনে আবেদন করুন। হয়তো ঠিক হয়ে যাবে। কারণ জন্ম তারিখ আগাতে প্রমানক বেশি জরুরি কিন্তু পিছাতে নয়।

  • এনআইডি ও এসএসসি সার্টিফিকেট এ জন্ম তারিখ ১/১১/১৯৯০ ইং। এসএসসি পাশ ২০০৫ সাল । কিন্তু আমার নামে জমির দলিল হয়েছে তার সাল ৩০/০৬/১৯৯০ ইং । এখন এনআইডি কার্ডের বয়স বৃদ্ধি করা প্রয়োজন । করণীয় কি।

  • যাবে না। জমির দলিল দিয়ে এনআইডি সংশোধন করা যাবে না।

  • ২০১৯ সালে ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করেছিলাম এবং ভোটার হয়েছি। সার্টিফিকেটে বয়স ছিল তখন ২০০৩ যা ভুল। ( আমার বোনের 2003 আমারও 2003 ছিল সার্টিফিকেটে)। বর্তমানে আমার বোনের সার্টিফিকেট এবং জন্ম নিবন্ধনের ২০০৩ আছে। এবং আমি আমার সার্টিফিকেট সংশোধন করে জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী ২০০৫ করতে চাচ্ছি। আমি যদি জন্ম নিবন্ধন এবং সার্টিফিকেট সংশোধন করি তাহলে কি আমি আমার ভোটার আইডি কার্ডের বয়স সংশোধন করতে পারবো?

    [ ২০১৯ সালে ২০০৩ আমার জন্ম তারিখ দিয়ে আমি ভোটার হয়েছিলাম কিন্তু ২০০৫ করলে ১৯ সালে আমি ভোটার হওয়ার যোগ্যতা রাখি না। এখন আমি যদি আমার জন্ম তারিখ ২০০৫ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন এবং সার্টিফিকেট ঠিক করি পরবর্তীতে কি আইডি কার্ড ঠিক করতে পারব নাকি আটকায়ে রাখবে? ]

  • ভোটার হওয়ার পূর্বে যদি আপনি পাস করে থাকেন তবেই সেই সার্টিফিকেট গ্রহনযোগ্য। জন্ম নিবন্ধনও যদি আপনি ভোটার হওয়ার পূর্বে করে থাকে তবেই কেবল গ্রহণযোগ্য। ভোটার আইডি তথ্য পরিবর্তন করতে ভোটার হওয়ার পূর্বের কোন সার্টিফিকেট বা প্রমানক প্রয়োজন হবে।

  • ভাই আমার ভোটার আইডি কার্ড আগে করা বয়স ভুল দেয়া ১৯৯৯ সাল
    কিন্তু এস এস সি পরে দেয়া এবং যে এস সি ও
    সব জাগায় ২০০৭ দেয়া বয়স
    বাবা মার আইডি কার্ড এর সাথে অ সব মিল আছে সুধু আমার ভোটার আইডি কার্ড এ ঠিক নাই কি করবো?

  • প্রথমে অনলাইনে প্রমানক আপলোড করে আবেদন করুন। কাজ না হলে সরাসরি নির্বাচন কমিশনের সাক্ষাত করে প্রমানাদি দাখিল করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *