স্বতঃস্ফূর্তভাবে কোন সরকারি কর্মচারী যখন চাকুরীতে অধিষ্ঠিত গত বা স্বত্ব পরিত্যাগ করে তখন এইরূপ অধিকার বা স্বত্ব পরিত্যাগ করা অভিধানিক ভাবে পদত্যাগ বলিয়া গণ্য হয়। পদত্যাগের মাধ্যমে একজন সরকারি কর্মচারী কর্মের যেমন অধিকার রহিয়াছে তেমনি তাহার কর্ম পরিত্যাগেরও অধিকার রহিয়াছে।

পদত্যাগ তাৎক্ষণিক অথবা প্রস্পেকটিভ এই দুইভাবে হইতে পারে। তাৎক্ষতি পদত্যাগ পদত্যাগপত্র দাখিল করার সাথে সাথে কার্যকর হইবে এবং প্রস্পেকটিভ পদত্যাগ ভবিষ্যত কোন তারিখ হইতে কার্যকর হইবে। কোন সরকারি কর্মচারী রে তারিখ হইতে পদত্যাগ করিতে ইচ্ছা প্রকাশ করিবেন সেই তারিখ হইতে তাহা কার্যকর হইবে কিন্তু পদত্যাগপত্র গৃহীত হইবার বিষয়টি যেখানে জরুরি ও প্রয়ােজনীয় সেখানে সরকার কর্তৃক তাহা গৃহীত না হওয়া পর্যন্ত পদত্যাগ কার্যকর হইবে না। পদত্যাগ কার্যকর হওয়ার পূর্বে পদত্যাগপত্র গৃহীত হইবার সংবাদ সংশ্লিষ্ট সরকারি কর্মচারীর নিকট পৌছানাে জরুরি ও প্রয়ােজনীয় নয়। 

একটি উদাহরণ দিলে বিষয়টি পরিষ্কার হইবে। ধরা যাক, একজন সরকারি কর্মচারী ৩১ ডিসেম্বর, ১৯৯০ সাল থেকে পদত্যাগের অভিপ্রায় ব্যক্ত করিয়া ১৭ ডিসেম্বর, ১৯৯০ সালে পদত্যাগপত্র দখিল করেন। কর্তৃপক্ষ ৩১ ডিসেম্বর ১৯৯০ সাল হইতে কার্যকারিতা প্রদান করিয়া ২ জানুয়ারি ১৯৯১ সালে পদত্যাগপত্র গ্রহণের আদেশ জারি করে এই শর্তে যে, তাহাকে একমাসের আগাম নােটিশ প্রদানের পরিবর্তে এক মাসের মূল বেতনের সমপপিরমান অর্থ পরিশােধ করিতে হইবে। চিঠি পাওয়ার পর ৩ জানুয়ারি, ১৯৯১ সালে এক মাত মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ উক্ত কর্মচারী পরিশােধ করিলেন। এইক্ষেত্রে ধরিয়া লইতে হইবে যে, ৩ জানুয়ারি ১৯৯১ সাল হইতে তাহার পদত্যাগ কার্যকর হহয়াছে। 

পদত্যাগ সম্পর্কে সাধারণ নীতিমালা এই যে, আইনগত, চুক্তি সাংবিধানিক কোন প্রতিবন্ধকতা থাকিলে প্রস্পেকটিভ পদত্যাগ, ইহার কা শুরু হওয়ার পূর্বে যে কোন সময় প্রত্যাহার করা যায়। কোন সরকার ক হইতে পদত্যাগ করিলে তাহা কার্যকর হওয়ার জন্য নিয়ােগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গৃহীত হইতে হইবে। চাকুরী প্রদানের যােগ্য কর্তৃপক্ষের দ্বারা তাহা গৃহীত না হওয়া পর্যন্ত পদত্যাগপত্র কার্যকর হইবে না। কোন কর্তৃপক্ষ চাকুরীর যােগ্য কর্তৃপক্ষ না হইলে উহার দ্বারা গৃহীত পদত্যাগপত্র কার্যকর হইবে না। কাজেই পদত্যাগপত্র কার্যকর হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর নিয়ােগকারী কর্তৃপক্ষ বা উক্ত কর্তৃপক্ষের দ্বারা ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তাহা গৃহীত হইতে হইবে।

কোন সরকারি কর্মচারীর পদত্যাগ বা অবসর গ্রহণের পর চাকুরী হইতে বরখাস্ত কিংবা ডিসচার্জের আদেশ বাতিল ও অকার্যকর বলিয়া গণ্য হইবে। কারণ পদত্যাগপত্র গৃহীত হওয়ার পর উক্ত সরকারি কর্মচারী আর চাকুরীতে বহাল থাকে না।

সরকার কোন অস্থায়ী কর্মচারীকে ১৪ দিনের নােটিশ প্রদান করিয়া চাকুরী হইতে অপসারণ করিতে পারেন। পক্ষান্তরে, কোন সরকারি কর্মচারী নিয়ােগ কর্তৃপক্ষের বরাবরে ১৪ দিনের অগ্রিম নােটিশ প্রদান করিয়া চাকুরী হইতে পদত্যাগের অভিপ্রায় জানাইতে পাবেন। চৌদ্দতম দিনে উক্ত সরকারি কর্মচারী পদত্যাগপত্র পেশ করিবেন। নিয়ােগ কর্তপক্ষ এইরূপ পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করিতে বা না করিতে পারেন।

অপেক্ষমাণ শৃঙ্খলামূলক কার্যক্রম বা অন্য কোন কারণে পদত্যাগপত্র গৃহীত না হইলে ১৪ দিনের এইরূপ অগ্রিম নােটিশ প্রদান সত্ত্বেও উক্ত সরকারি কর্মচারী চাকুরীতে বহাল থাকিবেন। পদত্যাগপত্র দাখিল করিয়া কোন সরকারি কর্মচারী তাহা গৃহীত হওয়া অবধি বিনা ছুটিতে চাকুরীতে অনুপস্থিত থাকিবেন না। পদত্যাগ পত্র গৃহীত হইলে কোন সরকারি কর্মচারী চাকুরীতে বহাল থাকেন না বিধায় অফিসে তাহার উপস্থিতি নিষ্পপ্রয়ােজন। পদত্যাগপত্র গৃহীত হওয়ার প্রাক্কালে চলমান শৃঙ্খলামূলক কার্যক্রম অগ্রসর করা সমীচীন হইবে না। কারণ তিনি চাকুরীতে বহাল নাই বিধায় তাহাকে উক্ত শৃঙ্খলামূলক কার্যক্রমের দ্বারা কোন শাস্তি প্রদান করিতে পারা যায় না। পদত্যাগের অভিপ্রায় প্রকাশ করিয়া কোন অস্থায়ী কর্মচারী নােটিশ প্রদান করিলে তাহাকে নােটিশের মেয়াদান্তে পদত্যাগ করিতে হয়। পক্ষান্তরে, সরকার কর্তৃক গৃহীত না হওয়া পর্যন্ত উক্ত পদত্যাগ কার্যকর হয় না। স্থায়ী চাকুরী একটি দ্বিপাক্ষিক চুক্তির ফলশ্রুতি বিধায় পদত্যাগের মাধ্যমে চাকুরী অবসানের ক্ষেত্রে উভয়পক্ষের সম্মতি প্রয়ােজন। এই ব্যাপারে ১৭/৫/১৯৪৯ সালের সংস্থাপন বিভাগের একটি স্মারকের ব্যাখ্যা নিম্নরূপ :

‘Permanent service’ is the result of bilateral contract for the wination of which the consent of both the employer and employees is cessary. If a permanent Govt servant tenders his resignation, he continues service untill the resignation is accepted, for the reason that, for the ation of contract of service, the consent of other party is also essary. Till his resignation is accepted, the employees continues to be in employment of the employer a penalty prescribed 10 cases. A permanent of the employer and if he absents himself from duty, he incurs escribed for such default which may be dismissal in certain Cases. A Permanent Govt Servant, therefore, continues to be remain in service till his resignation is accepted.

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 2981 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *