সাময়িক বরখাস্ত, নব নিয়োগপ্রাপ্ত, কন্টিনজেন্ট উৎসব ভাতা।

প্রয়াত সরকার প্রধান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ রাষ্ট্র পরিচালনার পূর্ব পর্যন্ত সরকার কর্মচারীগণ যে পরিমাণ অর্থ উৎসব ভাতা অর্থাৎ দুটি ঈদে বোনাস হিসাবে যে পরিমাণ অর্থ প্রাপ্য হতেন, সেই পরিমান অর্থ মাসিক বেতন হতে প্রতিমাসে কর্তন করে ফেরত নেয়া হতো, ১৯৮৩ সালে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণের পর ১৯৮৮ সালে তিনি তা অফেরৎযোগ্য মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ ঈদ বোনাস হিসাবে ঘোষণা করেন। অর্থ বিভাগ, অর্থ মন্ত্রণালয়, স্মারক নং ২৯, ০৩/০৭/১৯৮৮ তারিখের পত্র মোতাবেক আমরা মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ উৎসব ভাতা হিসাবে গ্রহণ করি। 

উৎসব ভাতা / ঈদ বোনাস কারা পায়?

সরকারী/ আধা-সরকারী, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত মুসলমান কর্মকর্তা/ কর্মচারীবৃন্দ দুটি ঈদে এবং অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরা তাদের নিজ নিজ উৎসবে দুটি বোনাস একসাথে ইনক্রিমেন্টসহ গ্রহণ করে থাকে।

দু’ মাসের মূল বেতনের সমান অর্থ দুটি কিস্তিতে। (পূর্ববর্তী মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ উৎসব ভাতা হিসাবে প্রাপ্য হন)।

মুসলিম কর্মচারীগণ-(দুই ঈদে দুইটি উৎসব ভাতা পান, ঈদুল ফিতরে যে পরিমাণ অর্থ পান, ঈদুল আযহায় একটি ইনক্রিমেন্ট সহ পেয়ে থাকেন যেহেতু বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি হয়ে থাকে ১ লা জুলাই মাসে)।

নব নিযুক্ত কর্মচারীর উৎসব ভাতা (এক্ষেত্রে উৎসব অনুষ্ঠিত হওয়ার পূর্ব মাসে যোগদান করলে পূর্ব মাসে যে পরিমাণ অর্থ মূল বেতন হিসাবে গ্রহণ করেন ঠিক ঐ পরিমাণ অর্থ উৎসব ভাতা হিসাবে গ্রহণ করেন, যদি ১০ দিনের বেতন গ্রহণ করেন তবে ১০ দিনের মূল বেতনের সমপরিমাণ উৎসব ভাতা পাবেন। অন্যদিকে যদি উৎসব অনুষ্ঠিত হওয়ার মাসে যোগদান করেন তবে যোগদানের দিন থেকে উৎসব অনুষ্ঠিত হওয়ার দিন পর্যন্ত দিনের জন্য যে মূল বেতন প্রাপ্য হবেন সেই পরিমাণ অর্থ বোনাস বা উৎসব ভাতা হিসাবে প্রদেয় হবে)।

যে সকল কর্মচারী উৎসব ভাতা বা বোনাস প্রাপ্ত হন না:

সরকারি দপ্তরে দৈনিক ভিত্তিতে নিয়োজিত কর্মচারীগণ।

নির্ধারিত বেতনে নিযুক্ত কর্মচারীগণ।

পেনশনারসহ অন্যান্যদের উৎসব ভাতা বা বোনাস প্রাপ্তির বিধান:

ক) চুক্তিভিত্তিক কর্মচারী।

খ) ওয়ার্কচার্জড, কন্টিনজেন্সী।

গ) সাময়িক বরখাস্তকৃত কর্মচারী (খোরাকি ভাতার সমপরিমাণ)।

ঘ) পিআর এল (অবসর উত্তর ছুটিতে থাকাকালীন কর্মচারী)।

ঙ) ইনক্রিমেন্ট প্রাপ্ত কর্মচারীগণ।

চ) উৎসব অনুষ্ঠানের মাসে মৃত্যুবরণকারী কর্মচারী।

ছ) মাসিক পেনশনভোগী/১০০% পেনশন সমর্পণকারী পেনশন ভোগী/ পেনশন পুন:স্থাপনকারী পেনশন ভোগী।

জ) বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ মিশনে কর্মরত কর্মচারীগণ।

উৎসব ভাতা কি বকেয়া পাওয়া যাবে কিনা:

সাময়িক বরখাস্তকৃত কর্মচারী বহাল হলে তিনি বকেয়া উৎসব ভাতা প্রাপ্য হবেন।

ভুলক্রমে কম উত্তোলন করেছে এমন হলে তার বকেয়া প্রাপ্য হবেন না।

উপরোক্ত তথ্যগুলো PDF ডাউনলোড করে রাখতে পারেন: ডাউনলোড

উৎসব ভাতা প্রাপ্তি বিধান সংক্রান্ত আদেশগুলো দেখে নিতে পারেন: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.