iBAS++ এ যে কোন সিডিউল ব্যাংকের একাউন্ট নম্বর দিয়ে বেতন ভাতাদি গ্রহণ করা যাবে।

বাংলাদেশ সরকার সরকারি কর্মচারীদের বেতন ভাতাদি পরিশোধের জন্য ব্যাংকিং ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দিয়েছে ২০১৭ সালে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি সকল দপ্তরগুলো কর্মচারীদের বেতন বা যে কোন ভাতাদি পরিশোধ করে ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে। এক্ষেত্রে সোনালি ব্যাংক নির্দেশনা প্রকাশ করেছে যে শুধুমাত্র তাদের ব্যাংক হিসাব অর্থাৎ সোনালি ব্যাংক হিসাবে একাউন্ট থাকলেই সরকারি বিলের অর্থ কস্ট ম্যামো বা চার্জ ব্যতীত বিলের অর্থ ট্রান্সফার করা যাবে, অন্য কোন ব্যাংকের একাউন্ট ব্যবহার করা যাবে না। আইবাস++ চালু হওয়ার ফলে EFT সুবিধা কার্যকর হয়েছে এক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর হিসাব ক্রেডিট করে থাকে বিধায় বাংলাদেশের যে কোন সিডিউল ব্যাংক একাউন্ট সরকারি বেতন ভাতাদি গ্রহণের জন্য ব্যবহার করা যাবে। অর্থাৎ সোনালি ব্যাংক বা সরকারি ব্যাংক এ একাউন্ট খুলতে হবে বা থাকতে হবে এ ব্যবস্থা বিদ্যমান নেই। 

যে কোন সিডিউল ব্যাংকের মাধ্যমে সরকারি বেতন ভাতাদি গ্রহণ করা যাবে, সিডিউল ব্যাংক কোনগুলো?

বাংলাদেশের ব্যাংকসমূহের তালিকা দ্বারা বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ব, বাণিজ্যিক, বিশেষায়িত ও ভূমি উন্নয়ন ব্যাংক সমূহের নামসমূহ একত্র প্রকাশিত। বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম জীবনীশক্তি এই ব্যাংকগুলো দেশের মুদ্রাবাজারকে রাখে গতিশীল ও বৈদেশিক বাণিজ্যকে করে পরিশীলিত। বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক হলো বাংলাদেশ ব্যাংক, এবং ৬টি রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংক ছাড়াও রয়েছে আরো বহু সংখ্যক ব্যাংক। অন্যান্য ব্যাংকের মধ্যে রয়েছে ৩টি বিশেষায়িত ব্যাংক, ৪১টি ব্যক্তি মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং ৫ টি অতালিকাভুক্ত ব্যাংক। এছাড়া বাংলাদেশই প্রথম দেশ, যেখানে সামাজিক ব্যবসার ধারণায় প্রথম প্রতিষ্ঠিত হয় গ্রামীণ ব্যাংক নামক ক্ষুদ্রঋণ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান, যা একটি বিশেষায়িত ব্যষ্টিক-অর্থায়নকারী প্রতিষ্ঠান। যে ব্যাংকগুলো EFT এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে: তবে অবশ্যই অনলাইন শাখা হতে হবে।

রাষ্ট্রয়াত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক
সোনালী ব্যাংক
অগ্রণী ব্যাংক
রূপালী ব্যাংক
জনতা ব্যাংক
বেসিক ব্যাংক লিমিটেড
বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড

ব্যক্তি মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক
আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড
ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড
ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড
এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড
এনআরবি ব্যাংক লিমিটেড
এবি ব্যাংক লিমিটেড
এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড
ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড
ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড
ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড
দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেড
ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড
ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড
পূবালী ব্যাংক লিমিটেড
প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড
প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড
বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক লিমিটেড
ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড
ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড
মধুমতি ব্যাংক লিমিটেড
মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড
মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক
মিডল্যান্ড ব্যাংক লিমিটেড
মেঘনা ব্যাংক লিমিটেড
যমুনা ব্যাংক লিমিটেড
সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড
সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার এন্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেড
সিটি ব্যাংক লিমিটেড
উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড
কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড
বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড (অনুমোদনপ্রাপ্ত)

ইসলামী
আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড
আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড
ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড
এক্সিম ব্যাংক
ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
শাহ্‌জালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড
সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডে
গ্লোবাল ইসলামী ব্যাংক
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড
ইসলামী ব্যাংকিং শাখা
সোনালী ব্যাংক
অগ্রণী ব্যাংক
পূবালী ব্যাংক লিমিটেড
এবি ব্যাংক লিমিটেড
সিটি ব্যাংক লিমিটেড
প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড
সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড
ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড
প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড
ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড
ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড
যমুনা ব্যাংক লিমিটেড
মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড

বিদেশী
এইচএসবিসি
ওরি ব্যাংক
কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন
ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান
ব্যাংক আলফালাহ্
স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া
সিটিব্যাংক এনএ
স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ
হাবিব ব্যাংক লিমিটেড

বিশেষায়িত ব্যাংক
বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক
রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক
প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক
কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড

যে ব্যাংক গুলো EFT এর জন্য প্রযোজ্য হবে না

অ-তালিকাভুক্ত ব্যাংক
গ্রামীণ ব্যাংক
আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক
কর্মসংস্থান ব্যাংক
পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক
জুবিলী ব্যাংক

ভূমি উন্নয়ন ব্যাংক
প্রগতি কো-অপারেটিভ ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেড (প্রগতি ব্যাংক)

ব্যাংকগুলোর ব্যাংক একাউন্ট নম্বর ছাড়া আর কি কি তথ্য লাগে?

হিসাবধারীর নাম, হিসাবের ধরন, শাখার নাম, রাউটিং নম্বর।

বি:দ্র: অবশ্যই ইএফটি’র ক্ষেত্রে এজেন্ট ব্যাংকিং অবশ্যই ব্যবহার করবেন না। মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট ব্যবহার কোন ক্রমেই করা যাবে না। 

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.