সাধারণভাবে সকল বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদনই একজন প্রতিবেদনকারী কর্তৃক স্বাক্ষরিত ও প্রতিবেদনকারীর প্রশাসনিক অব্যবহিত উপরের ধাপের অফিসার কর্তৃক প্রতিস্বাক্ষরিত হওয়ার কথা। কিন্তু এমন কিছু কিছু অফিসার/ কর্মচারী আছেন যাঁহাদের কার্য পরিধি বিশেষ একজন অফিসারের তদারকির আওতাভুক্ত।

একমাত্র তিনি ব্যতীত অন্য কাহারো পক্ষে এই সব প্রতিবেদনাধীন অফিসার/কর্মচারীর কাজের মূল্যায়ন সম্ভব হয় না। একান্ত সচিব ও ব্যক্তিগত সহকারীরা এই ধরনের অফিসার/কর্মচারী। এই কারণে একান্ত সচিব/ব্যক্তিগত সহকারী হিসাবে নিয়োজিত কোন অফিসার বা কর্মচারীর বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদনে প্রতিস্বাক্ষর লাগিবে না।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
সংস্থাপন মন্ত্রণালয়
শাখাঃ সিআর/সিপি-৩।

নং-সম(সিআর/সিপি-৩)-১৩/৮৬-৮৫(৪৫) তারিখঃ ২৫-৫-৮৭ ইং/ ১০-২-১৩৯৪ বাং

বিষয়ঃ একান্ত সচিব/ব্যক্তিগত সহকারী হিসাবে নিয়োজিত অফিসার/কর্মচারীর বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদন প্রতিস্বাক্ষর করণ।


নির্দেশ মোতাবেক জানানো যাইতেছে যে, সাধারণভাবে সকল বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদনই একজন প্রতিবেদনকারী কর্তৃক স্বাক্ষরিত ও প্রতিবেদনকারীর প্রশাসনিক অব্যবহিত উপরের ধাপের অফিসার কর্তৃক প্রতিস্বাক্ষরিত হওয়ার কথা। কিন্তু এমন কিছু কিছু অফিসার/ কর্মচারী আছেন যাঁহাদের কার্য পরিধি বিশেষ একজন অফিসারের তদারকির আওতাভুক্ত। একমাত্র তিনি ব্যতীত অন্য কাহারো পক্ষে এই সব প্রতিবেদনাধীন অফিসার/কর্মচারীর কাজের মূল্যায়ন সম্ভব হয় না। একান্ত সচিব ও ব্যক্তিগত সহকারীরা এই ধরনের অফিসার/কর্মচারী। এই কারণে একান্ত সচিব/ব্যক্তিগত সহকারী হিসাবে নিয়োজিত কোন অফিসার বা কর্মচারীর বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদনে প্রতিস্বাক্ষর লাগিবে না।

পান্না লাল চৌধুরী
সহকারী সচিব

আপনি চাইলে এ সংক্রান্ত আদেশটি সংগ্রহে রাখতে পারেন: ডাউনলোড

আরও দেখুন: 

সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে যারা প্রশাসন শাখা বা হিসাব শাখায় কাজ করেন তারাই কেবল চাকরি সম্পর্কিত বিধি বিধানগুলো সম্পর্কে ভাল ধারণা রাখেন। অবশিষ্ট ৮০% কর্মকর্তা/ কর্মচারীই সরকারি চাকরির বিধানাবলী, বাংলাদেশ সার্ভিস রুলস, হালনাগাদ পেনশন রুলস, ভ্রমণ বিধি ও প্রাপ্যতা , উৎসব ভাতার প্রাপ্যতা, সরকারি কর্মচারীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা বা চিকিৎসা শেষে ব্যয় উত্তোলন, বিভিন্ন ভাতাদির প্রাপ্যতা, বিভিন্ন ধরনের অগ্রিম সুবিধা গ্রহণ, নিয়োগ ও বদলি নীতিমালা, বিভিন্ন ধরনের ছুটি কিভাবে নিতে হয়, বাসা বরাদ্দ বা বাড়ি ভাড়া প্রাপ্যতা, শিক্ষা সহায়ক ভাতা বা রেশন সুবিধা ইত্যাদি সর্ম্পকে ভাল ধারনা রাখেন না। এই ওয়েবসাইটটিতে উপরোক্ত বিষয়গুলো সহজ ভাবে তুলে ধরা হয়েছে। সরল ও প্রাঞ্জল ভাষায় ব্যাখ্যা করা হয়েছে। সাধারণ কর্মচারী যাতে সহজেই ব্যাপার গুলো বুঝতে পারে এবং যদি কোন বিধি বুঝতে সমস্যা হয় তা নিয়ে সরাসরি প্রশ্ন করতে পারেন সে ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কেউ যদি কোন বিধি বা নীতিমালা বুঝতে অসমর্থ হয় তবে আমাদের ফেসবুক পেইজ, গ্রুপ এবং ইমেইল ঠিকানায় যোগাযোগ করতে পারেন। ,

কিছু কর্মকর্তা/ কর্মচারীদের কাছে সরকারি চাকরির বিধি বিধানের কিছু বইও হয়তো সংগ্রহে আছে কিন্তু তা মূলত সংগ্রহেই মাত্র বের করে পড়ার সময় বা সুযোগ নেই। কারও সময় বা সুযোগ থাকলেও বের করে পড়া পর্যন্ত হয় না। আবার দেখা যায় যে, অসংখ্য বইয়ের মধ্যে একটি সামারি বই চাকরির বিধানাবলীই শুধুমাত্র সংগ্রহ রয়েছে। সরকারি চাকরি সংক্রান্ত অসংখ্য বই রয়েছে যেগুলো আবার প্রতি বছরই আপডেট হয়ে থাকে আপনি যদি শুধুমাত্র এই ওয়েবসাইটের সাথে যুক্ত থাকেন তবে আপনি সকল আপডেট তথ্যই পেয়ে যাবেন। ব্লগটি ভিজিট করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3000 posts and counting. See all posts by admin