ছুটিকালীন বেতন সম্পর্কে নির্ধারিত ছুটি বিধিমালা ১৯৫৯ এর বিধান।

বাংলাদেশ সার্ভিস রুলস, পার্ট-১ এর ২০৮ নং বিধিতে বর্ণিত সর্বোচ্চ সীমাসাপেক্ষে যে মাসে ছুটিতে যাইবে উহার পূর্ববর্তী পূর্ণ ১২ (বার) মাসের গড় বেতন এবং ছুটিতে যাওয়ার পূর্বে উত্তোলনকৃত বেতন, এই দুইয়ের মধ্যে যাহা অধিক লাভজনক উহার ভিত্তিতেই গড় বেতনে ছুটিকালীন বেতন নির্ধারিত হইবে।

নির্ধারিত ছুটি বিধিমালা ১৯৫৯ এর বিধি-৬ এর বিধান নিম্নরূপ-

ছুটিকালীন বেতন

(১) বাংলাদেশ সার্ভিস রুলস, পার্ট-১ এর ২০৮ নং বিধিতে বর্ণিত সর্বোচ্চ সীমাসাপেক্ষে যে মাসে ছুটিতে যাইবে উহার পূর্ববর্তী পূর্ণ ১২ (বার) মাসের গড় বেতন এবং ছুটিতে যাওয়ার পূর্বে উত্তোলনকৃত বেতন, এই দুইয়ের মধ্যে যাহা অধিক লাভজনক উহার ভিত্তিতেই গড় বেতনে ছুটিকালীন বেতন নির্ধারিত হইবে।

(২) অর্ধ গড় বেতনে ছুটিকালীন সময়ে উপবিধি-(১) অনুসারে নির্ধারিত বেতনের অর্ধ হারে ছুটিকালীন বেতন পাইবেন।

(৩) সরকারী কর্মচারী যে দেশেই ছুটি ভোগ করুন না কেন, ছুটিকালীন বেতন বাংলাদেশী মুদ্রায় বাংলাদেশে প্রদেয় হইবে।

বিশ্লেষণ: উপরোক্ত বিধানটি বর্তমানে অকার্যকর।

ছুটিকালীন বেতন উত্তোলন

একজন ঘোষিত কর্মকর্তা যিনি ছুটিকালীন বেতন বাংলাদেশে উত্তোলন করেন, তাঁহার ছুটিকালীন বেতন দেশের যে কোন হিসাবরক্ষণ অফিস হইতে পরিশোধ করা যাইবে। একজন অঘোষিত কর্মচারীর ছুটিকালীন বেতন কেবল সেই হিসাবরক্ষণ অফিস হইতে পরিশোধ করা যাইবে, কর্মরত অবস্থায় তিনি যে হিসাবরক্ষণ অফিস হইতে বেতন উত্তোলন করিতে পারিতেন। ট্রেজারি রুলস এর বিধি-২০

ছুটিকালীন বেতন সম্পর্কে নির্ধারিত ছুটি বিধিমালা ১৯৫৯ এর বিধান: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.