জিপিএফ চাঁদা: চাকরির দুই বছর পূর্ণ হলে বাধ্যতামূলক চাঁদা কর্তন সংক্রান্ত।

জিপিএফ চাঁদা কর্তন দুই বছর পর্যন্ত ঐচ্ছিক বা ইচ্ছাধীন থাকিলেও দুই বছর পূর্ণ হলে তখন আর ইচ্ছাধীন বা ঐচ্ছিক নয়। আপনি চাইলেও বা না চাইলেও নিয়ন্ত্রণকারী অফিস অথবা হিসাবরক্ষণ অফিস এই চাঁদা কর্তন করে দিবেন এবং হিসাব খুলে দিবেন। যদি বকেয়া পড়ে যায় হিসাব রক্ষণ অফিস বকেয়াসহ একইসাথে কর্তন করতে পারেন এবং চালানের মাধ্যমে তা জমা দিতে বাধ্য করতে পারেন।

বাধ্যতামূলক চাঁদাদাতা ভবিষ্য তহবিল বিধিমালা, ১৯৭৯ এর বিধি-৫(২) এর বিধানমতে রাজস্বখাতের স্থায়ী, শিক্ষানবিস ও অস্থায়ী কর্মচারীর চাকরির মেয়াদ ধারাবাহিকতাক্রমে দুই বৎসর পূর্ণ হইলে উক্ত কর্মচারী বাধ্যতামূলক চাদদাতা হিসাবে বিবেচিত হইবেন এবং উক্ত সময় হইতে তহবিলে চাঁদা প্রদান বাধ্যতামূলক হইবে। বাধ্যতামূলক চাদাদাতা হিসাবে গণ্য হওয়ার সময় হইতে কোন চাদা বকেয়া পড়িলে বিধি-১১এর বিধান মতে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা উক্ত বকেয়া চাঁদা প্রদানের জন্য নির্দেশ দিতে পারিবেন।

স্বেচ্ছাধীন চাঁদাদাতা বিধি-৫ এর বিধানমতে চাকরির মেয়াদ ধারাবাহিকতাক্রমে দুই বৎসর পূর্ণ হওয়ার পূর্বে কোন কর্মচারী তহবিলে যােগদান করিলে তিনি স্বেচ্ছাধীন চাঁদাদাতা হিসাবে গণ্য হইবেন। কোন কর্মচারীর ৫২ বৎসর বয়স পূর্ণ হওয়ার পর তহবিলে চাঁদা প্রদান অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে উক্ত কর্মচারী স্বেচ্ছাধীন চাঁদাদাতা হিসাবে গণ্য হইবেন। অবসর গ্রহণের পর কোন কর্মচারী চুক্তিভিত্তিতে নিয়ােজিত হইলে উক্ত কর্মচারী স্বেচ্ছাধীন চাঁদাদাতা হিসাবে গণ্য হইবেন।

সাধারণ ভবিষ্য তহবিল বিধিমালা, ১৯৭৯ [বাংলা ও ইংলিশ ভার্সন)

Leave a Reply

Your email address will not be published.