বাংলাদেশ বেতারে অস্থায়ীভাবে পদ সৃজন করে পদোন্নতি জট নিরসনের সুপারিশ।

বাংলাদেশ বেতারে কর্মরত বিসিএস (তথ্য) ক্যাডারের কর্মকর্তাদের পদোন্নতি জট নিরসনে ‘সুপারনিউমারারি পদ’ অর্থাৎ অস্থায়ীভাবে পদ সৃজন করার মাধ্যমে সমাধান করার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি এইচ এন আশিকুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

জানা যায়, বাংলাদেশ বেতার দেশের সবচেয়ে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের উত্তরসুরী রাষ্ট্রীয় এ গণমাধ্যম সরকারের উন্নয়ন ও জনসচেতনতামূলক সম্প্রচার কাজে সরাসরি সম্পৃক্ত। কিন্তু সেখানে কর্মরত কর্মকর্তারা দীর্ঘদিন ধরে পদোন্নতি বঞ্চিত। এতে তারা সামাজিক ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

এ জন্য বৈঠকে একটি প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয়। প্রস্তাবনায় বলা হয়, বাংলাদেশ বেতারের অনুষ্ঠান বিভাগ এবং বাংলাদেশ বেতারের বার্তা বিভাগে কর্মরত অধিকাংশ কর্মকর্তাই পদোন্নতির সকল শর্ত পূরণ করেছেন। কিন্তু পরবর্তী ধাপে পদ শূন্য না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে পদোন্নতি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

প্রস্তাবনায় বলা হয়, ৯ম গ্রেডের (বিসিএস ২৮তম হতে ৩৩তম ব্যাচ) অনুষ্ঠান বিভাগের ৬৯ জন কর্মকর্তা ৫ থেকে ৯ বছর একই পদে কর্মরত আছেন এবং বার্তা শাখায় ৬ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

৬ষ্ঠ গ্রেডের (বিসিএস ১৮তম ব্যাচ থেকে ২৫তম ব্যাচ) অনুষ্ঠান বিভাগের ৮২ জন কর্মকর্তা ৫ থেকে ১৬ বছর একই পদে কর্মরত আছেন এবং বার্তা শাখায় ১৪ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

৫ম গ্রেডের (১৫তম ব্যাচ) অনুষ্ঠান বিভাগের ৯ জন কর্মকর্তা ৫ থেকে ৮ বছর একই পদে কর্মরত আছেন এবং বার্তা শাখায় ১ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

৪র্থ গ্রেডের (৯ম থেকে ১৩তম ব্যাচ) অনুষ্ঠান বিভাগের ৬ জন কর্মকর্তা ৫ বছর একই পদে কর্মরত আছেন এবং বার্তা শাখায় ১ জন কর্মকর্তা রয়েছেন।

বৈঠকে কমিটির সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, আবুল হাসান মাহমুদ আলী, আ. স. ম. ফিরোজ, হাফিজ আহমদ মজুমদার, র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, পনির উদ্দিন আহমেদ এবং বেগম ফেরদৌসী ইসলাম অংশগ্রহণ করেন।

সূত্র: জাগো নিউজ২৪

Avatar

admin

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। ভালবাসি চাকরি সংক্রান্ত বিধি বিধান জানতে ও অন্যকে জানাতে। আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন alaminmia.tangail@gmail.com ঠিকানায়। ধন্যবাদ আপনাকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার জন্য।