বাংলা নববর্ষ ভাতা ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, স্মারক  নং ৭৮, তারিখ: ১৪/১০/২০১৬ খ্রি: প্রজ্ঞাপন অনুসারে এ উৎসব ভাতাদি প্রদান করা হয় সরকারি কর্মচারী/ কর্মকর্তা ও পেনশনারদের। এ ক্ষেত্রে এই উৎসব ভাতা প্রদানে বা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে আমরা বিভিন্ন জটিলতার সম্মুখীন হয়ে থাকি। এ সব সমস্যা সমাধানের জন্য নিচে এ সংক্রান্ত কিছু বিধান ও যুক্তি প্রদর্শন করা হলো। 

নববর্ষ ভাতা যারা পূর্ণ হারে প্রাপ্য হবেন? সরকারী কর্মচারী/ কর্মকর্তা বৃন্দ তাদের নিজ নিজ মার্চ মাসের মূল বেতনের ২০% হারে পাবেন। মার্চ মাসে অন্যান্য মাসের হারের থেকে কম হারে বেতন আহরণ করে থাকলে সেই বেতনের ২০% হারে প্রাপ্য হইবেন। PRL এ থাকা কর্মকর্তা/ কর্মচারীগণ মার্চ মাসে উত্তোলিত বেতনের ২০% হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন। মাসিক পেনশনার ও পেনশন পুন:স্থাপনকারীগণ তাদের উত্তোলিত মূল বেতনের ২০% হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন।

আংশিক হারে নববর্ষ ভাতা প্রাপ্য হবেন কারা? মার্চ মাসে নর্বনিযুক্ত কোন কর্মচারী মার্চ মাসে যা বেতন পাবেন সেই হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন। (যদি ১৫ দিনের মূল বেতন মার্চ মাসে তোলেন তবে তারই ২০% হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন)। এপ্রিল মাসে যোগদান করলে, যোগদানের তারিখ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত হিসাব করে যা মূল বেতন পাবেন সেই আহরিতব্য মূল বেতনের ২০% হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন। সাময়িক বরখাস্তকৃত কর্মচারী-খোরাকী ভাতা যা পান তার ২০% হারে প্রাপ্য হবে। (অর্থাৎ সাময়িক বরখাস্ত কোন কর্মচারী তার মূল বেতনের ৫০% খোরাকী ভাতা পান। মূল বেতন ১০ হাজার টাকা হলে, খোরাকী ৫০০০ টাকা। সেই পাঁচ হাজার টাকার ২০% হারে ১০০০ টাকা নববর্ষ ভাতা হিসাবে পাবেন)। অসাধারণ ছুটিতে থাকা কর্মচারী যদি আংশিক বেতন মার্চ মাসে উত্তোলন করে থাকেন তবে সে হারে পাবেন।

যাদের জন্য নববর্ষ ভাতা প্রযোজ্য নয়- ১০০% পেনশন সমর্পণকারী পেনশনারগণ যেহেতু মার্চ মাসে কোন বেতনই পান না তাই তারা নববর্ষ ভাতা প্রাপ্য নয় (তারা শুধু চিকিৎসা ভাতা পান)। কন্টিনজেন্ট, আউটসোর্সিং এ নিয়োজিত কর্মচারীগণ নববর্ষ ভাতা প্রাপ্য নয়। উৎসবের পরে নবনিযুক্ত কর্মচারীগণ নববর্ষ ভাতা পাবেন না। অসাধারণ ছুটিতে থাকা কর্মচারীগণ যেহেতু মার্চ মাসে কোন বেতন পাচ্ছেন না তাই তারা নববর্ষ ভাতা প্রাপ্য হবেন না।

যারা বকেয়া উত্তোলন করতে পারবেন- কোন সাময়িক বরখাস্ত কর্মচারী পুর্নবহাল হলে তখন উত্তোলিত ভাতা সমন্বয় করে পূর্ণ হারে নববর্ষ ভাতা পাবেন। ভূলক্রমে যদি কোন কর্মচারী কম উত্তোলন করে থাকেন তবে বকেয়া তুলতে পারবেন। অর্থাৎ কোন কর্মচারীর বেতন ৩০ হাজার টাকা হলে ৬০০০ টাকা নববর্ষ ভাতা প্রাপ্য কিন্তু যদি তিনি ভুলক্রমে ৫০০০ টাকা দাবি করে তুলে থাকেন। পরবর্তীতে আরও ১০০০ টাকা দাবী করতে পারবে। (যদিও আমরা অনেকেই জানি যে উৎসব ভাতা বকেয়া প্রাপ্য নয়, এটি এক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়)

সূত্র: হিসাবরক্ষণ অফিস ও এ সংক্রান্ত বিধি বিধান।

Suspenstion Rules and Regulations Full PDF Download

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3003 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *