অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের ২৩/১২/২০১৩ তারিখে নং-০৭.০০.০০০০.১৭১.১০.০০৬.১৫-১৮১, স্মারকমূলে জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে সরকারি চাকরিজীবীদের অবসরকালীন সুবিধাদি/প্রাপ্যতা তথা পেনশনযোগ্য চাকরিকাল ও পেনশনের পরিমান পূণঃনির্ধারণ করা হয়েছে। পূর্বেকার পেনশন যোগ্য চাকরিকাল ১০-২৫ বছরের পরিবর্তে ৫-২৫ বছর এবং পেনশনের হার সর্বশেষ আহরিত মূলবেতনের ৮০% এর স্থলে ৯০% এ উন্নীত করা হয়েছে। ফলে বর্তমানে চাকরিকাল ৫ বছর হলেই আপনি পেনশনের আওতায় আসবেন। পূর্বে চাকরিকাল ১০ বছর না হলে পেনশনের আওতায় আসতো না।

ধরি জনাব কছিম উদ্দিনের ১৯৯৮ সালে পারিবারিক পেনশন ছিলো ২০০০ টাকা।। এখন তার পারিবারিক পেনশন নির্ধারিত হইবে নিম্নরুপ ভাবে।

  • ২০০৫ সালে ২৫%  (পে স্কেল -২০০৫ অনুসারে।
  • ২০০৯ সালে ৫০% (বয়স ৬৫ বছরের উর্দ্ধে) (পে-স্কেল ২০০৯ অনুসারে।
  • ২০১৫ সালে ৫০%(বয়স ৬৫ বছরের উর্দ্ধে) বৃদ্ধি পায়। (পে স্কেল ২০১৫ অনুসারে)
  • বয়স একটা বড় ফ্যাক্টর।

সুতরাং তাঁর পেনশন নির্ধারণ হবে: ২০০০+৫০০+১২৫০+১৮৭৫= ৫৬২৫ টাকা (আনুমানিক)।

জেনে নিন চাকরিকাল অনুযায়ী পেনশনের হারঃচাকরিকাল ৫ বছর হলে ২১%, প্রাপ্ত হবেন। চাকরিকাল ৬ বছর হলে ২৪%, প্রাপ্ত হবেন। চাকরিকাল ৭ বছর হলে ২৭%, প্রাপ্ত হবেন। চাকরিকাল ৮ বছর হলে ৩০%, প্রাপ্ত হবেন। চাকরিকাল ৯ বছর হলে ৩৩% শতাংশ প্রাপ্ত হবেন। চাকরিকাল ১০ বছর হলে ৩৬%, আগের হার ছিল ৩২%। চাকরিকাল ১১ বছর হলে ৩৯%, আগের হার ছিল ৩৫%। চাকুরিকাল ১২ বছর হলে ৪৩%, আগের হার ছিল ৩৮%। চাকরিকাল ১৩ বছর হলে ৪৭%, আগের হার ছিল ৪২%। চাকরিকাল ১৪ বছর হলে ৫১%, আগের হার ছিল ৪৫%। চাকরিকাল ১৫ বছর হলে ৫৪%, আগের হার ছিল ৫৮%। চাকরিকাল ১৬ বছর হলে ৫৭%, আগের হার ছিল ৫১%। চাকরিকাল ১৭ বছর হলে ৬৩%, আগের হার ছিল ৫৪%। চাকরিকাল ১৮ বছর হলে ৬৫%, আগের হার ছিল ৫৮%। চাকরিকাল ১৯ বছর হলে ৬৯%, আগের হার ছিল ৬১%। চাকরিকাল ২০ বছর হলে ৭২%, আগের হার ছিল ৬৪%। চাকরিকাল ২১ বছর হলে ৭৫%, আগের হার ছিল ৬৭%। চাকরিকাল ২২ বছর হলে ৭৯%, আগের হার ছিল ৭০%। চাকরিকাল ২৩ বছর হলে ৮৩%, আগের হার ছিল ৭৪%। চাকরিকাল ২৪ বছর হলে ৮৭%, আগের হার ছিল ৭৭%। চাকরিকাল ২৫ বছর হলে ৯০%, আগের হার ছিল ৮০%।

এবার পেনশন ও গ্রাচুইটি হিসাবের পালাঃউদাহরণ-১ জাহিদ সাহেবের জন্ম তারিখ ০১/০৬/১৯৫৮, তিনি ১৪/১২/১৯৯০ খ্রিঃ তারিখে চাকরিতে যোগদান করেছেন। তিনি ০১/০৬/২০১৮ তারিখে অবসর গমন করবেন। তার মূলবেতন ৩৪০১০/- তিনি মোট চাকরি করেছেন ২৭ বছর ৫ মাস ১৭ দিন। তিনি বিনাবেতনে কোন ছুটি ভোগ করেননি। তাহলে তার প্রাপ্য আনুতোষিক ও মাসিক পেনশন কত হবে?১. জাহিদ সাহেব মোট পেনশনের কত শতাংশ পাবেন?সুত্রটিঃ সর্বশেষ মূলবেতন x সর্বমোট চাকুরির জন্য পেনশনের নির্ধারিত হার (%) ÷ ২ = মোট টাকা। সুতরাং তার প্রাপ্য পেনশন =(৩৪০১০ x ৯০%) ÷ ২ টাকা= ৩০৬০৯ ÷ ২ টাকা= ১৫৩০৪.৫ টাকা২. জাহিদ সাহেবে কত টাকা এককালিন ল্যাম্পগ্রান্ট পাবেন?সূত্রঃ চাকরিতে সর্বশেষ মূলবেতন x অর্জিত ছুটি (১৮ মাস) টাকা সুতরাং ল্যাম্পগ্রান্ট পাবেন = ৩৪০১০ x ১৮ টাকা= ৬,১২,১৮০ টাকা।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3000 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *