অফিস সহায়কের দায়িত্ব সংক্রান্ত পরিপত্র ১৯৬৯ । সরকারি কার্যালয়ের অফিস সহায়ক পদের দায়িত্ব ও কর্তব্য বা কাজ কি?

চতুর্থ শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত পিয়ন পদটির সাথে আমাদের দেশের মানুষ সুপরিচিত। কোনো কোনো কার্যালয়ে পিয়নকে দফতরি, চাপরাশি বা আর্দালি নামে ডাকা হতো। পিয়ন শব্দটি ইংরেজি। পিয়ন, দফতরি, চাপরাশি, আর্দালি প্রভৃতিকে এমএলএসএস নামেও অভিহিত করা হতো।

এমএলএসএস অর্থ মেম্বার লোয়ার সাব-অর্ডিনেট সার্ভিস। সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের পরিপত্র দ্বারা এমএলএসএস, পিয়ন, দফতরি, চাপরাশি, আর্দালি প্রভৃতি পদবির পরিবর্তন করে অফিস সহায়ক নামের একটি একক পদবি করা হয়।

সরকারি অফিসে পিয়ন কিংবা এমএলএসএস নামে ব্রিটিশ আমলের পদ আর নেই। এই পদের নতুন নামই হচ্ছে অফিস সহায়ক। ২০১৪ সালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে পিয়নেই নতুন এই নামকরণসহ চতুর্থ শ্রেণীর ৩৪টি পদের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র অনুযায়ী পরিবর্তিত উল্লেখযোগ্য কিছু পদের মধ্যে এমএলএসএস/ দফতরি/পিয়ন/ডিম পরীক্ষক/শেয়ারিং এটেনডেন্ট/বুচার/টি বার অ্যাসিসটেন্ট/চাপরাশি পদগুলোর একক নাম হয়েছে অফিস সহায়ক।

অফিস সহায়কের কাজ হচ্ছে তার উর্ধতন কর্মকর্তাদের কাজে প্রয়োজনীয় সহযোগীতা করা। অফিস সহায়ক অর্থ- অফিসের কাজে সহায়তা করা। পদবির অর্থ থেকেই স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায় তাদের কর্মপরিধি বা কর্মের ব্যাপ্তি কতটুকু এবং অফিসের কাজের সাথে সম্পর্কিত নয় এমন কোনো কাজ করতে তারা বাধ্য কি না বা তাদের বাধ্য করা যাবে কি না।

সরকারি চাকুরী এবং সাধারণ প্রশাসন বিভাগ নিয়ন্ত্রণ শাখা, শাখা ১ নম্বর এস,জি, এ/আর আই/আই এস-135/69/252(350), তারিখ: ২৯ অক্টোবর ১৯৬৯ এর  মোতাবেক সরকারি পিয়নদের দায়িত্ব ও কর্তব্য নিম্নরূপ নির্ধারণ করা হয়েছে। 

তাদের কাজ: 

অফিস সহায়ক এর দায়িত্ব ও কর্তব্য  

১। অফিসের আসবাবপত্র এবং রেকর্ডসমূহের সুন্দরভাবে বিন্যাস সাধন করা এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা।

২। অফিসের ফাইল এবং কাগজপত্র নির্দেশক্রমে একস্থান হইতে অন্যস্থানে কিংবা অন্য অফিসে স্থানান্তর করা।

৩। হালকা আসবাবপত্র অফিসের মধ্যে একস্থান হইতে অন্যস্থানে সরানো।

৪। গোপন অথবা গুরুত্বপূর্ণ ফাইলসমূহ স্টিলের বাক্স বন্দী করিয়া নির্দেশক্রমে এক অফিস হইতে অন্য অফিসে নেয়া।

৫। কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণকে পানীয় জল পান করাবেন।

৬। তাহারা অফিসের সমস্ত মনিহারী ও অন্যান্য দ্রব্যাদি সংরক্ষণের জন্য দায়ী থাকিবেন।

৭। তাহারা তাদের জন্য নির্ধারিত ইউনিফর্ম পরিধান করিয়া অফিসে আসিবেন।

৮। তাহারা স্ব স্ব শাখা এবং কর্মকর্তার নির্দেশিত কাজ করিবেন।

৯। তাহার দর্শণপ্রার্থী এবং পাবলিকের সহিত ভদ্রতা বজায় রাখিয়া ব্যবহার করিবেন

১০। তাহারা কর্মকর্তার পক্ষে ব্যাংকে চেক জমা এবং টাকা তুলিবেন।

১১। তাহারা অফিস সময়ের ১৫ মিনিট পূর্বে অফিসে আসিবেন এবং সহকারী সচিব/প্রধান সহকারীর নিকট আগমনের রিপোর্ট করিবেন।

১২। তাহারা বিনা অনুমতিতে কোন সময় অফিস ত্যাগ করিবেন না।    

ইতিকথা: পরিশেষে বলা যায়, অফিস কর্তৃপক্ষ বা বস পিওনের দায়িত্ব নির্ধারণ করবেন। যে অফিসের প্রয়োজনে যে কোন কাজ করাতে পারবেন। তাই বলে ঝাড়ুদারের কাজ নয়, তাই বলে ম্যাথরের কাজ নয়। সাধারণত আমরা পিওন বা অফিস সহায়কের একই কাজ করতে দেখে থাকি।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3011 posts and counting. See all posts by admin

31 thoughts on “অফিস সহায়কের দায়িত্ব সংক্রান্ত পরিপত্র ১৯৬৯ । সরকারি কার্যালয়ের অফিস সহায়ক পদের দায়িত্ব ও কর্তব্য বা কাজ কি?

  • সরকারি কার্যালয়ের অফিস সহায়ক এর দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে এ পোস্টটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ, ধন্যবাদ।

  • ধন্যবাদ। আল্লাহ পাক তাদের সবাইকে বুজার তৌফিক দিক….আমিন। তবে সর্বশেষ পরিপত্র অনুযায়ী অফিস সহায়ক বাতিল করে দপ্তরী করা হয়েছে……

  • Pingback:

  • I conceive you have noted some very interesting points , thanks for the post.

  • এমএলএসএস বা অফিস সহকারী পদের নির্ধারিত সময় অর্থাৎ ডিউটি সময় কতটুকু? উঃ টা পেলে খুবই উপকারী হতাম।তথ্যটি আমার খুবই জরুরি।
    বিঃদ্রঃ বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এর একটি ভোকেশনাল এ্যান্ড বি.এম স্কুল ও কলেজে এই পদের জন্য চাকরি করতেছে।
    ধন্যবাদ

  • ডিউটি ৮ ঘন্টা নির্ধারিত। অতিরিক্ত করালে অধিকাল ভাতা প্রাপ্য। অধিকাল ভাতা না থাকলে টিফিন ভাতা প্রাপ্য।

  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অফিস সহায়ক এর কাজ কি???

  • মোটামুটি একই। তবে কর্তৃপক্ষ অনৈতিক বা অবিবেচক কোন কাজ করতে বললে আপনি লিখিত আদেশ চাইবেন।

  • এটার প্রজ্ঞাপনের কপি আছে আপনাদের কাছে?

  • আদেশ নম্বর পোস্টে দেওয়া আছে।

  • ইউনিফর্ম কি পড়তেই হবে?

  • এটি দপ্তর প্রধানের উপর নির্ভর করবে। তিনি চাইলে শিথিল করতে পারেন। যেহেতু পোষাক দেয় তাই পড়া আবশ্যক।

  • বেসরকারি স্কুলের অফিস সহায়কের বসার জন্য কোন চেয়ার টেবিল পাবে, কি না?

  • সরকারি বেসরকারি সকল অফিস সহায়কের জন্যই অফিস রুমের বাইরে দরজার কাছেই শুধুমাত্র চেয়ার বা টুল পাইবে।

  • Asking questions are in fact nice thing if you are not understanding anything totally,
    but this post gives fastidious understanding yet.

  • আমি বেসরকারি স্কুলের অফিস সহায়ক পদে চাকরি করি।আমাকে দিয়ে ঝারুদারের কাজ করাতে চাই। এখন আমার কি করা উচিত দয়া করে জানাবেন

  • যে কাজের জন্য নিয়োগ হয়েছেন সেই কাজ করবেন।

  • আমি বেসরকারি স্কুলের অফিস সহায়ক পদে চাকরি করি। স্কুলে পরিচ্ছন্নতা কর্মী থাকার পরেও
    আমাকে দিয়ে অফিস কক্ষ ঝাড়ু দিতে বাধ্য করা হয়েছে এবং
    করাচ্ছে । এখন আমার কি করা উচিত দয়া করে জানাবেন

  • আপনার দায়িত্বে অতিরিক্ত কোন কাজ করলে অতিরিক্ত সুবিধা দাবী করবেন। না করতে চাইলে শিক্ষা অফিসারের কাছে অভিযোগ করুন।

  • যেকোনো মন্ত্রণালয়ের অফিস সহায়ক এর কাজ কি যদি একটু বলতেন ভালো হতো

  • স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনটা দরকার

  • আপনি ছিদ্দিকুর রহমানের চাকরির বিধানাবলী বই সংগ্রহ করুন বা দেখুন। স্বাক্ষরিত কপি আমার কাছে নাই।

  • যদি সিখা অফিসারের কাছে অভিযোগ করলেই কি সমাধান পাবু

  • পেতে পারেন।

  • আমি এমপিও ভুক্ত স্কুলের অফিস সহায়ক। স্কুলে নিরাপত্তা প্রহরি ও পরিচ্ছন্নতা কর্মী রয়েছে।কিন্তু আমাকে অফিস বন্ধ থাকা অবস্থায় স্কুল পাহারা দেয়ায় এবং স্কুলের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা আমাকে দিয়ে করায়।এখন আমার করনীয় কি?

  • সারা দেশে একই অবস্থা। পারলে অধিকাল খাতে বরাদ্দ আনার চেষ্টা করুন।

  • আমি একজন অফিস সহায়ক কিন্তু অফিস এ কোন কাজ করার দূর সুধু রুম ঝারু দওয়া আর বাত রুম পরিস্কার করা এইসব কাজ করাছে তাহলেই আমার কিকরা উচিত এক্তু বলবেনপ্লিজ

  • লিখিত আদেশ দাবী করুন এবং তা দিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পত্র লিখুন।

  • রাজস্ব ভূক্ত একজন অফিস সহায়ক। আমার দপ্তরে দুই জন অফিস সহায়ক আছে। আমি অফিসের পাশে আমার পরিবারকে একটি বাসা ভাড়া করে দিয়েছি। কিন্তু অফিস চলাকালীন সময় অফিস সহায়কের কাজ করার পর অফিস ছুটি হওয়ার পরে রাত্রে আবার নাইট গার্ডের কাজ করানো হচ্ছে এতে আমি আমার সন্তানসহ পরিবারের দেখাশুনা ঠিকভাবে করতে পারছি না। অন্য রাজস্বভূক্ত দপ্তরে ২জন অফিস সহায়কদের মধ্যে ৩০ দিনের মধ্যে ১৫ দিন একজন অফিস সহায়ক যদি রাত্রে ডিউটি দেয় তবে সে দিনের বেলায় ক্ষতিপূরণ ছুটি কাটায় তখন অপর অফিস সহায়ক দিনের বেলায় ডিউটি দেয় রাত্রের বেলা সে বাসায় যায়। বিষয়টি আমার কর্তৃপক্ষকে জানালে তিনি ক্ষতিপূরণ ছুটি ছাড়াই ২৪ ঘন্টা ডিউটি দিতে বলে এটাই নাকি আইনে আছে। আমাদের অধিকাল ভাতা, টিফিন ভাতা কিছুই দেয়া হয়না এমতাবস্তায় ২০০৬ শ্রম আইন অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ ছুটি পাব কিনা জানালে সারা জীবন আপানার কাছে কৃতজ্ঞ থাকতাম

  • ২৪ ঘন্টা ডিউটির ব্যাপারে আইন নাই। আমার জানামতে ক্ষতিপূরণ ছুটি পাবেন। বাজেট থাকলে টিফিন ভাতা বা অধিকাল ভাতাও পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *