সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র প্রদান প্রসঙ্গে।

বিভিন্ন ব্যক্তিকে চারিত্রিক ও অন্যান্য প্রত্যয়নপত্র প্রদান করিয়া থাকেন। কোন ক্ষেত্রে দেখা গিয়াছে যে, তাঁহারা প্রত্যায়িত ব্যক্তিগণের নাম, ঠিকনা, ইত্যাদি যথাযথভাবে যাচাই করেন না এবং প্রত্যয়ন পত্রে প্রদত্ত তথ্যাদির সত্যতা সম্বন্ধে নিশ্চিত হন না।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

সংস্থাপন মন্ত্রণালয়

প্রশাসন -২ শাখা।

নং-সম(প্র:-২) ৯২/৮৯-৫৩৬(২৫০), তারিখ: ২৭ শে জুলাই ১৯৮৯

বিষয়: সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র প্রদান প্রসঙ্গে।

সরকারি কর্মকর্তাগণ বিভিন্ন ব্যক্তিকে চারিত্রিক ও অন্যান্য প্রত্যয়নপত্র প্রদান করিয়া থাকেন। কোন ক্ষেত্রে দেখা গিয়াছে যে, তাঁহারা প্রত্যায়িত ব্যক্তিগণের নাম, ঠিকনা, ইত্যাদি যথাযথভাবে যাচাই করেন না এবং প্রত্যয়ন পত্রে প্রদত্ত তথ্যাদির সত্যতা সম্বন্ধে নিশ্চিত হন না। প্রত্যয়ণপত্রে উল্লিখিত ঠিকানা অনুযায়ী প্রত্যয়িত ব্যক্তিগণের অস্তিত্ব অনেক সময় খুঁজিয়া পাওয়া যায় না। ফলে প্রত্যয়নপত্রের মূল উদ্দেশ্য ব্যাহত হয় এবং ইহাতে সরকারি কর্মকর্তাগণের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়। তদুপরি সঠিক তথ্য সম্বন্ধে নিশ্চিত না হইয়া প্রত্যয়নপত্র প্রদান করার ক্ষমতার অপব্যবহারের সামিল যাহা সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধিমালা, ১৯৭৯ এর পরিপন্থী।

২। অতএব, ভবিষ্যতে সরকারি কর্মকর্তাগণ প্রত্যয়নপত্র প্রদানের সময় প্রত্যায়িত ব্যক্তিগণের নাম, ঠিকানা এবং প্রত্যয়নপত্রে উল্লেখিত বিষয়াদির যাবতীয় তথ্যাদি যথাযথভাবে যাচাইপূর্বক নিশ্চিত হইবেন বলিয়া সরকার আশা করে।

৩। উক্ত ১ ও ২ নং অনুচ্ছেদের বিষয়বস্তু তাঁহার মন্ত্রণালয়/বিভাগে এবং অধীনস্থ দপ্তরসমূহে নিয়োজিত সকল সরকারি কর্মকর্তাগণকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হইল।

(কে,এম, রব্বানী)

সচিব।

সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র প্রদান প্রসঙ্গে: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.