সঞ্চয়পত্রে মুনাফার হার কমানো হয়েছে কথাটি ঠিকই শুনেছেন তবে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী অর্থাৎ যাদের বিনিয়োগ ১৫ লক্ষের মধ্যে তাদের সঞ্চয়পত্র মুনাফার হার কমানো হয়নি। ১-৫ লক্ষ টাকায় পরিবার সঞ্চয়পত্র বিনিয়োগ করলে প্রতি লাগে ৯১২ টাকাই পাওয়া যাবে। সঞ্চয়পত্রে প্রতি লাখে মাসিক ৯১২.০০ টাকা মুনাফা!

পুরুষ মানুষ ১ লক্ষ টাকার সঞ্চয়পত্র কিনলে কত পাওয়া যাবে প্রতিমাসে?

একজন পুরুষ মানুষ পরিবার সঞ্চয়পত্র কিনতে পারবে না। তাই বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ৩ মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র কিনতে হবে। এ সঞ্চয়পত্র ক্রয়ে ১ লক্ষ টাকা প্রতি তিন মাস পর পর ২৬২২ টাকা মুনাফা দেওয়া হয়। এটি ৩ বছরের জন্য রাখতে হবে। চাইলে আপনি ৩ বছরের আগেও ভাঙ্গাতে পারবেন সেক্ষেত্রে মুনাফা কর্তন হবে। সাধারণ ছেলেদের জন্য প্রতিমাসে মুনাফা প্রাপ্তির কোন সঞ্চয় স্কিম নাই।

পরিবার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ে ১ লক্ষ টাকায় প্রতিমাসে ৯১২ টাকাই পাওয়া যাবে কি?

জি, পাওয়া যাবে। ১৮ ও তদুর্ধ্ব বয়সের যে কোন বাংলাদেশী মহিলা, যে কোন বাংলাদেশী শারীরিক প্রতিবন্ধী (পুরুষ ও মহিলা) এবং ৬৫ ও তদুর্ধ্ব বয়সের বাংলাদেশী (পুরুষ ও মহিলা) নাগরিক কিনতে পারবেন। একক নামে সর্বোচ্চ ৪৫ লক্ষ টাকা।৫ বছর মেয়াদ এবং মেয়াদান্তে মুনাফা ১১.৫২%। তবে মেয়াদপূর্তির পূর্বে নগদায়ন করলে ১ম বছরান্তে ৯.৫০%, ২য় বছরান্তে ১০.০০%, ৩য় বছরান্তে ১০.৫০% এবং ৪র্থ বছরান্তে ১১.০০% হারে মুনাফা প্রাপ্য হবে। প্রতি মাসে মুনাফা পাওয়া যায়। মোট ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয়পত্র থাকলে প্রতি মাসে ১ লক্ষ টাকায় ৯১২ টাকা আর ৫ লক্ষের উপরে থাকলে ৮৬৪ টাকা পাওয়া যায়, ট্যাক্স কাটার পরে।

পেনশনার সঞ্চয়পত্র ক্রয়ে ১ লক্ষ টাকায় ৩ মাস অন্তর ২৭৯৩ টাকা পাওয়া যাবে কি?

জি, পাওয়া যাবে। অবসরপ্রাপ্ত ব্যাক্তি এবং মৃত চাকুরীজিবীর পারিবারিক পেনশন সুবিধাভোগী স্বামী/স্ত্রী/সন্তান। একক নামে সর্বোচ্চ ৫০ লক্ষ টাকা। ৫ বছর মেয়াদ এবং মেয়াদান্তে মুনাফা ১১.৭৬%। তবে মেয়াদপূর্তির পূর্বে নগদায়ন করলে ১ম বছরান্তে ৯.৭০%, ২য় বছরান্তে ১০.১৫%, ৩য় বছরান্তে ১০.৬৫% এবং ৪র্থ বছরান্তে ১১.২০% হারে মুনাফা প্রাপ্য হবে। ৩ মাস পরপর মুনাফা পাওয়া যায়। মোট ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয়পত্র থাকলে প্রতি ৩ মাসে ১ লক্ষ টাকায় ২৭৯৩ টাকা আর ৫ লক্ষের উপরে থাকলে ২৬৪৬ টাকা পাওয়া যায়, ট্যাক্স কাটার পরে।

 

তবে হ্যাঁ ১৫ লক্ষ টাকার অধিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ১% এবং ৩০ লক্ষ টাকার অধিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার ২% পর্যন্ত কমানো হয়েছে। এতে করে ক্ষুদ্র নয়, মাঝারি এবং বড় বিনিয়োগকারীগণ ক্ষতিগ্রস্থ হবেন। মূলত সরকার বড় বিনিয়োগে উৎসাহিত করতেই মুনাফার হার কমাতে পারেন।

জাতীয় সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার পুন:নির্ধারণ ২০২১

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3010 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *