যদি কোন ব্যক্তি একই পদে এডহক ভিত্তিতে ইতোমধ্যে অধিষ্ঠিত হয়ে থাকেন, তাহলে তার জ্যেষ্ঠতা সরকারি কর্ম কমিশনের সুপারিশের তারিখ হতে গণনা করা হবে। যদি কোন ব্যক্তি একই পদে এডহক ভিত্তিতে ইতোমধ্যে অধিষ্ঠিত না হয়ে থাকেন, তাহলে তার জ্যেষ্ঠতা সরকারি কর্ম কমিশনের সুপারিশকৃত হয়ে তার পদে যোগদানের তারিখ হতে গণনা করা হবে। জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের জন্য সরকার মেমো নম্বর (১/১৬/৬৯ ডি-২ তাং ৩১ শে ডিসেম্বর ১৯৭০ এর মাধ্যমে সাধারণ নীতিমালা জারি করেন।

সরকার যে সমস্ত ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা সম্পর্কে বিশেষ বিধিমালা প্রণয়ন করিয়াছেন; সেই সমস্ত ক্ষেত্র ব্যতীত সকল শ্রেণীর (যথা-১ম, ২য় ও ৩য় শ্রেণীর সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারী) সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীর জন্য এই জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালা প্রণয়ন করেন।

যে সমস্ত ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণ সম্ভবপর না হয় সেই ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে পরামর্শক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করিবেন। উপযুক্ত ক্ষেত্রে সংস্থাপন মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের সহিত পরামর্শ করিয়া সিদ্ধান্ত গ্রহণ করিবেন।

জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণে সাধারণ নীতিমালা অনুসৃত হয় তা নিম্নরূপ: সরকারী কর্মকমিশনের মাধ্যমে সরাসরি নিযুক্ত কর্মকর্তা/কর্মচারীর ক্ষেত্রে:

(১) যে সমস্ত কর্মকর্তা বাংলাদেশ কর্মকমিশনের পূর্বেকার উন্মুক্ত (Open) বিজ্ঞপ্তির ভিত্তিতে নিযুক্ত (Recruited) কর্মকর্তা কর্মচারীদের তুলনায় জ্যেষ্ঠতা প্রাপ্ত হইবেন।

(২) যদি দুই বা ততোধিক ব্যক্তি বাংলাদেশ কর্মকমিশনের উন্মুক্ত বিজ্ঞপ্তির ভিত্তিতে চাকুরীর জন্য সুপারিশকৃত হন, সেই ক্ষেত্রে তাঁহাদের পারস্পারিক জ্যেষ্ঠতা বাংলাদেশ কর্মকমিশনের গৃহীত পরীক্ষার মেরিট তালিকার ভিত্তিতে স্থিরকৃত হইবে।

(৩) উন্মুক্ত বিজ্ঞপ্তির ভিত্তিতে বাংলাদেশ কর্মকমিশন যদি কেবলমাত্র একজন প্রার্থীকে সুপারিশ করেন তাহা হইলে তিনি বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের সুপারিশের তারিখ অথবা পদে যোগদানের তারিখ যাহাই পরে ঘটে সেই তারিখ হইতে জ্যেষ্ঠতা গণনা করিবেন।

যদি কোন কর্মকর্তা পূর্ব হইতে এডহক ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট পদে কর্মরত থাকেন; তাহা হইলে তিনি বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের সুপারিশের তারিখ হইতে জ্যেষ্ঠতা গণনা করিবেন।

অপরপক্ষে তিনি যদি এই পদে পূর্ব হইতে চাকুরীতে না থাকিয়া থাকেন; তাহা হইলে তিনি বাংলাদেশ কর্ম কমিশন কর্তৃক সুপারিশের পরে সংশ্লিষ্ট পদে তাঁহার যোগদানের তারিখ হইতে জ্যেষ্ঠতা গণনা করিবেন।

(৪) সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং ১/১৬/৬৯/ডি-২ তারিখ: ৩১/১২/১৯৭০ খৃ: এর মাধ্যমে জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালা জারী করা হয়। সকল শ্রেণীর কর্মকর্তা/কর্মচারীদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নীতিমালা কর্ম কমিশনের সহিত পরামর্শক্রমে প্রণয়ন করা হয়। উল্লেখিত এই স্মারকটিতে জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালা প্রয়োগ সম্পর্কে নিম্নরূপ বক্তব্য রহিয়াছে-

১ম, ২য় ও ৩য় শ্রেণীর সকল পদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালার প্রযোজ্যতা থাকিবে। তবে কোন নির্দিষ্ট ক্যাডার বা চাকুরীর জন্য যদি সংস্থাপন মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত অন্য কোন জ্যেষ্ঠতার বিধিমালা, নীতি বা নির্দেশনা দ্বারা নির্ধারিত হইবে।

জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালা জারীর সময় ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের তৃতীয় শ্রেণীর পদে পদোন্নতি প্রদানের কোন বিধান ছিল না। যাহার কারণে এইখানে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের বিষয়টি উল্লেখিত হয় নাই। কিন্তু সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের স্মারক নং ইডি/রেড-১/এস-২৫/৮০-৯৭ (২৫০) তারিখ: ২৪/১২/১৯৮০ খৃ: এর মর্মানুসারে বিভিন্ন নিয়োগ বিধিতে ৪র্থ শ্রেণীর পদে পদোন্নতির বিধান সন্নিবেশিত করার কারণে ৪র্থ শ্রেণীর পদ হইতে ৩য় শ্রেণীর পদে পদোন্নতির বিধান সন্নিবেশিত করার কারণে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণেরও প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়াছে। এই অবস্থার প্রেক্ষিতে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের ক্ষেত্রেও এই নীতিমালার প্রয়োগে কোন বাধা নাই। আত্মীকৃত কর্মচারীর প্রথম পদে যোগদান কাল হতে জ্যেষ্ঠতা।

এক বিধিবন্ধ সংস্থার চাকুরী হইতে উদ্বৃত হইয়া অন্য একটি বিধিবদ্ধ সংস্থার চাকুরীতে আত্মীকৃত হইতে পূর্ব পদের চাকুরীর সম্পূর্ণ সময় আত্মীকৃত পদর জ্যেষ্ঠতার জন্য গণনা করা হইবে।

উদ্ভূত ঘোষিত কোন কর্মচারী যে সংস্থা হইতে উদ্বৃত ঘোষিত হইয়াছে, ঐ সংস্থা হইতে অবসর গ্রহণ সুবিধাদি গ্রহণ করিয়া থাকিলে আত্মীকৃত পদে তাহার পূর্ব চাকুরী জ্যেষ্ঠতার জন্য গণনা যোগ্য হইবে না। এইক্ষেত্রে আত্মীকৃত পদে আত্মীকরণের দিন হইতে তাহার জ্যেষ্ঠতা গণা করা হইবে। কর্মচারীদেরকে বদলীযোগে নিয়োগ বা বদলী সংক্রান্ত নীতিমালা।

নির্দিষ্ট কোন চাকুরী বা পদের জন্য জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণ সংক্রান্ত পৃথক কোন বিধিমালা, নীতি বা নির্দেশনা থাকিলে তাহাই প্রযোজ্য হইবে। অবশ্য এই বিধিমালা, নীতি বা নির্দেশনা সংস্থাপন মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত হইতে হইবে। আরো উল্লেখ্য যে, উক্ত বিধিমালা, নীতি বা নির্দেশনায় উল্লিখিত নাই, এমন বিষয়ে জ্যেষ্ঠতার সাধারণ নীতিমালার বিধান অনুসরণ করিতে হইবে।

২। কোন বিশেষ ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণের দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের/ বিভাগের। তবে সাধারণ বা সুনির্দিষ্ট নীতিমালার আওতায় জ্যেষ্ঠতা নির্ধারণ করা সম্ভব হয় নাই, এমন সন্দেহজনক কেইস সিদ্ধান্তের জন্য সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করিতে হইবে।

 

আরও বিস্তারিত জানতে জ্যেষ্ঠতা ও পদোন্নতি বিধিমালা PDF সংগ্রহ করুন: ডাউনলোড

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস জ্যেষ্ঠতা বিধিমালা ১৯৮৩

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3011 posts and counting. See all posts by admin