প্রতিবন্ধী কর্মচারীর আয়কর নির্ণয়।

আয়কর যোগ্য আয় ও বিনিয়োগ যদি কোন প্রতিবন্ধী কর্মচারীর থাকে, তবে তার ক্ষেত্রে করমুক্ত আয় সীমা হবে ৪,৫০,০০০ টাকা। ফলে ২০২১-২০২২ কর বছরে তার মোট আয় এবং করদায়ের পরিমাণ হবে নিম্নরূপ:

বেতন খাতে আয়
  • মূল বেতন (৫৬,৫০০*১২ মাস) = ৬,৭৮,০০০ টাকা
  • উৎসব ভাতা (৫৬,৫০০*২) = ১,১৩,০০০ টাকা
  • চিকিৎসা ভাতা (১,৫০০*১২) = ১৮,০০০ টাকা (সমুদয় অংক ব্যয়ের কারণে করমুক্ত)
  • বাংলা নববর্ষ ভাতা ১১,৩০০ টাকা করমুক্ত
  • মোট আয় = ৭,৯১,০০০ টাকা
কর দায় গণনা
  • প্রথম ৪,৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত “শুন্য” হার                                 ০/-
  • পরবর্তি ১,০০,০০০ টাকার উপর ৫% হারে                                ৫,০০০ টাকা।
  • পরবর্তী ২,৪১,০০০ টাকার উপর ১০% হারে                              ২৪,১০০ টাকা মোট
  • আয়ের উপর আয়কর                                                                 ২৯,১০০ টাকা।
  • বিনিয়োগ জনিত আয়কর রেয়াত: পূর্ববর্তী উদাহরণ অনুসারে ২৯,৬৬৩ টাকা মাত্র।

                                                                                                     পার্থক্য: (৫৬৩/-)

করদাতার নীট প্রদেয় কর (পরিশোধযোগ্য অংক)   = ৫,০০০/-

করদাতার কর্মস্থল বাংলাদেশ সচিবালয়র এর অবস্থান ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় হওয়ায় তার জন্য সর্বনিম্ন প্রদেয় করের পরিমাণ ৫,০০০ টাকা। করদাতা যদি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন বা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় অবস্থান করেন তবে তার জন্যও সর্বনিম্ন প্রদেয় করের পরিমাণ ৫,০০০ টাকা। সিটি কর্পোরেশন এলাকার ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন প্রদেয় করের পরিমাণ ৪,০০০ টাকা এবং সিটি কর্পোরেশন ব্যতীত অন্য এলাকার ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন প্রদেয় করের পরিমাণ ৩,০০০ টাকা।

সরকারি কর্মচারী প্রদেয় করের পরিমাণ নির্ণয়: ডাউনলোড

আয়কর নির্দেশিকা ২০২১-২২

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.