শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী বিধবা স্ত্রী ও প্রতিবন্ধীর ভাতা প্রাপ্যতা সংক্রান্ত।

শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীগণের মৃত্যুর পর তাদের বিধবা স্ত্রী ও প্রতিবন্ধী সন্তান আজীবন এবং বিপত্নীক স্বামী সর্বাধিক ১৫ (পনের) বছর (শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী কর্মচারীর অবসর গ্রহণের তারিখ হতে মোট ১৫ (পনের) বৎসর মেয়াদ পূর্তির কোন সময় অবশিষ্ট থাকলে শুধুমাত্র উক্ত সময় পূর্তি পর্যন্ত) মাসিক চিকিৎসা ভাতা ও বছরে ২টি উৎসব ভাতা প্রাপ্য হবেন। তবে পুনরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে বিধবা স্ত্রী/ বিপত্নীক স্বামী এ সুবিধা প্রাপ্য হবেন না। শতভাগ পেনশন সমর্পণকারীগণ শতভাগ পেনশন সমর্পণ না করলে যে পরিমাণ মাসিক নীট পেনশন প্রাপ্য হতেন তার ভিত্তিতে উৎসব ভাতার পরিমাণ নির্ধারিত হবে।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

অর্থ মন্ত্রণালয়, অর্থ বিভাগ

প্রবিধি অনুবিভাগ

প্রবিধি-১ অধিশাখা।

www.mof.gov.bd

স্মারক নং-০৭.০০.০০০০.১৭১.১৩.০১৩.১৩-৭৪ তারিখ: ০৩/০৮/২০১৭ খ্রি:

বিষয়: শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীর মৃত্যুর পর তাঁর বিধবা স্ত্রী/বিপত্নীক স্বামী ও প্রতিবন্ধী সন্তানের চিকিৎসা ভাতা ও উৎসব ভাতা প্রাপ্যতা সংক্রান্ত।

 

অর্থ বিভাগের ০১-০২-২০১৬ খ্রি: তারিখের ০৭.০০.০০০০.১৭১.১৩.০১৩.১৩.০৮ নং প্রজ্ঞাপন এবং ১১-০৭-২০১৬ তারিখের ০৭.০০.০০০০.১৭১.১৩.০১৩.১৩.৭২ নং পত্রের ধারাবাহিকতায় উল্লেখ্য যে, শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসর প্রাপ্ত কর্মচারীগণের মৃত্যুর পর তাদের বিধবা স্ত্রী ও প্রতিবন্ধী সন্তান আজীবন এবং বিপত্নীক স্বামী সর্বাধিক ১৫ (পনের) বছর (শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী কর্মচারীর অবসর গ্রহণের তারিখ হতে মোট ১৫ (পনের) বৎসর মেয়াদ পূর্তির কোন সময় অবশিষ্ট থাকলে শুধুমাত্র উক্ত সময় পূর্তি পর্যন্ত) মাসিক চিকিৎসা ভাতা ও বছরে ২টি উৎসব ভাতা প্রাপ্য হবেন। তবে পুনরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে বিধবা স্ত্রী/ বিপত্নীক স্বামী এ সুবিধা প্রাপ্য হবেন না। শতভাগ পেনশন সমর্পণকারীগণ শতভাগ পেনশন সমর্পণ না করলে যে পরিমাণ মাসিক নীট পেনশন প্রাপ্য হতেন তার ভিত্তিতে উৎসব ভাতার পরিমাণ নির্ধারিত হবে।

২। উক্ত সুবিধা ০১-০২-২০১৬ খ্রি: তারিখ হতে কার্যকর হবে।

৩। অর্থ বিভাগের ০১-০২-২০১৬ খ্রি: তারিখের প্রজ্ঞাপন নং-০৭.০০.০০০০.১৭১.১৩.০১৩.১৩.০৮ এবং ১১-০৭-২০১৬ তারিখের পত্র নং-০৭.০০.০০০০.১৭১.১৩.০১৩.১৩.৭২ এর পরিপ্রেক্ষিতে শতভাগ পেনশন সমর্পনকারী বিধবা স্ত্রী/ বিপত্নীক স্বামী ০১-০২-২০১৬ তারিখের পূর্বের কোন চিকিৎসা ভাতা/ উৎসব ভাতা উত্তোলন করে থাকলে তা তাদের পরবর্তীকালে প্রাপ্য চিকিৎসা ভাতা/ উৎসব ভাতা হতে সমন্বয়যোগ্য হবে।

৪। এ বিষয়ে অর্থ বিভাগের ১৮-৭-২০০১ খ্রি: তারিখের অম/অবি/বিধি-১/৩পি-৯৮/৯০২ সংখ্যক পত্রটির কার্যকারিতা ০১-০২-২০১৬ তারিখ হতে বাতিল বলে গণ্য হবে।

(মো: শাহজাহান)

যুগ্ন সচিব

ফোন: ৯৫৭৩৭৭০

শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীর মৃত্যুর পর তাঁর বিধবা স্ত্রী/বিপত্নীক স্বামী ও প্রতিবন্ধী সন্তানের চিকিৎসা ভাতা ও উৎসব ভাতা প্রাপ্যতা সংক্রান্ত: ডাউনলোড

শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী প্রজাতন্ত্রের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীর পেনশন পুনঃস্থাপনের পর মৃত্যু হলে তার বিধবা স্ত্রী/বিপত্নীক স্বামী ও প্রতিবন্ধী সন্তানের (যদি থাকে) পুনঃস্থাপিত পেনশন সুবিধা প্রাপ্যতা আদেশ PDF সংগ্রহ করুন: ডাউনলোড

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3010 posts and counting. See all posts by admin

6 thoughts on “শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী বিধবা স্ত্রী ও প্রতিবন্ধীর ভাতা প্রাপ্যতা সংক্রান্ত।

  • শতভাগ পেনশন সমর্পণ কারী ব্যক্তির(২য় স্ত্রী জীবিত) বিধবা কন্যা চিকিৎসা ভাতা ও উৎসব ভাতা পাবেন কি? পেলে কি হারে পাবেন?

  • শুধুমাত্র একটি অংশই পাবে। একাধিক স্ত্রী থাকলে একটি অংশ ভাগাভাগি করে নিতে হয়। এক্ষেত্রে চিকিৎসা ভাতা ও উৎসব ভাতা অর্ধাংশ হারে দুজন স্ত্রীই পাবেন। তবে স্ত্রীগণ জীবিত থাকাকালীন অন্যান্যরা পায় না।

  • Pension Punosthapito Hobar Age Amar Husband Mara Jan. Ekon Amar Husband Beche Nai bole Ami tar Widow Wife Hisabe Pension Pabo na Keno. Etuku Onumodon Key Government deben na.

  • আপনার মত হাজারো বিধবার একই প্রশ্ন। তারা অনেকেই হিসাবরক্ষণ অফিসের মাধ্যমে অর্থ মন্ত্রণালয়ে আবেদন প্রেরণ করছেন। আপনিও আপনার দায়িত্ব পালন করুন। একদিন সরকার আপনাদের কথা শুনবেই আশা করছি।

  • Amar husband pension punosthapito hobar age mara jan. Tahole amar moto widow wifeer jonno pension punosthapito korar akul abedon janai.

  • অনুগ্রহ করে অর্থ মন্ত্রণালয় বরাবর আবেদন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *