অডিট আপত্তি থাকলেও ৮০% পেনশন গ্রহণ করা যাবে।

অডিট আপত্তি বা Audit objection নিষ্পত্তি না হলে কি পেনশনসহ অন্যান্য প্রাপ্য সমূহ পাওয়া যাবে না? এমন প্রশ্ন মনে জাগতেই পারে। এমন প্রশ্নে অনেকেই হয়তো বলবেন আপত্তি নিষ্পত্তি করেই পেনশন নিতে হবে। বিষয়টি মূলত এমন নয়, অডিট আপত্তিতে অবসরগমনকারী কর্মচারীর ব্যক্তিগত দায় না থাকলে যথারীতি পেনশন মন্জুর করতে হবে। অডিট আপত্তিতে পেনশনারের ব্যক্তিগত দায় থাকলে তার নিকট হতে তা আদায় পূর্বক অথবা তার প্রাপ্য আনুতোষিক হতে কর্তনপূর্বক( পরবর্তীতে সমন্বয় সাপেক্ষে) পেনশন কেইস নিষ্পত্তি করতে হবে। এ বিষয়ে সরকারি কর্মচারীগণের পেনশন সহজীকরণ আদেশ,২০২০ এর ৪.১০ অনুচ্ছেদে বিস্তারিত উল্লেখ আছে।

পেনশন সহজীকরণ আইন ২০০৯ এর ধারা ২.১২ অনুসারে কোন কর্মচারী বা কর্মকর্তার নামে অডিট আপত্তি থাকলেও মোট আনুতোষিকের ৮০% অর্থ পেনশন হিসাব মঞ্জুর করা যাবে।

এভাবে পেনশন প্রদানকে বলা হয় সাময়িক (Provisional) পেনশন প্রদান। যে সকল পেনশন কেইস না দাবী প্রত্যয়নপত্র অথবা অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদির অভাবে নিষ্পত্তি করা সম্ভব হয় না সেই সকল ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট চাকুরের/উত্তরাধীকারীর আবেদনক্রমে প্রাপ্য আনুতোষিকের শতকরা ৮০% ভাগ এবং প্রাপ্য পূর্ণ নীট পেনশন সাময়িকভাবে প্রদান করিতে হইবে। পরবর্তীকালে অনধিক ৬ (ছয়) মাসের মধ্যে সংশ্লিষ্ট অফিস প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি সংগ্রহ করিয়া পেনশন কেইসটি চূড়ান্ত করিবেন। অন্যথায় উক্ত ৬ (ছয়) মাস অতিক্রান্ত হওয়ার অব্যবহিত পর সাময়িকভাবে প্রদত্ত পেনশন, পেনশনারের নিজস্ব বিবরণীর ভিত্তিতে চূড়ান্ত করিতে হইবে এবং আনুতোষিকের বাকী অংশ পরিশোধ করিতে হইবে।

পেনশন বিধিমালা ২০২০

বিস্তারিত জানতে পেনশন সহজীকরণ বিধিমালা ২০০৯ দেখুন: ডাউনলোড

প্রশ্নোত্তর পর্ব:

  • প্রশ্ন: পেনশন কি আংশিক মঞ্জুর করা যায়?
  • উত্তর: জি হ্যাঁ। যায়।
  • প্রশ্ন: তাহলে কি না দাবীর জন্য পেনশন আটকে থাকবে না?
  • উত্তর: জি হ্যাঁ। সাময়িক পেনশন মঞ্জুর করলেও করতে হবে।
close