চাকরি স্থায়ী করণের আবেদন পত্র লিখবেন যেভাবে।

সাধারণত সরকারি চাকরি অস্থায়ী ভাবে নিয়োগ প্রাপ্ত হয়ে থাকে। কোন কোন প্রতিষ্ঠানে ১ বা ২ বছরের জন্য শিক্ষানবীশ হিসাবে নিয়োগ প্রদান করা হয়। তাই নিয়োগের ১ বা ২ বছর পর যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ বরাবর চাকুরি স্থায়ী করণের জন্য আবেদন করতে হয়।

প্রশ্নোত্তর পর্ব:

  • প্রশ্ন: স্থায়ী পদে যোগদান করলেও কি চাকরি স্থায়ীকরণ করতে হয়?
  • উত্তর: হ্যাঁ। সবাইকে প্রথমে অস্থায়ী ভাবে নিয়োগদান করা হয়, শিক্ষানবীশকাল শেষ হলে চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য আবেদন করতে হয়।
  • প্রশ্ন: অনেকেইতো চাকরি স্থায়ীকরণ ছাড়াই পেনশনে গেছে তারা গেল কেমনে?
  • উত্তর: চাকরির শিক্ষানবীশকাল শেষ করে ৫ বছর অতিবাহিত হলে আপনার নিয়োগ বাতিল না করে বহাল আছেন মানেই আপনার চাকরি স্থায়ী হয়ে গেছে। তবে, নিয়োগ বিধিমালার শর্ত মোতাবেক চাকরি স্থায়ীকরণের বিধান রয়েছে।
  • প্রশ্ন: চাকরি স্থায়ীকরণ না করলে কি হবে?
  • উত্তর: পদোন্নতি হবে না, উচ্চতর স্কেল পাবেন না।
  • প্রশ্ন: চাকরিজীবীকেই কেন স্থায়ীকরণের জন্য আবেদন করতে হবে?
  • উত্তর: আপনাকেই করতে হবে। কর্তৃপক্ষ সন্তোষজনক হলে আপনার চাকরি স্থায়ীকরণের সুপারিশসহ বিভাগীয় কোর্ট কেইস নেই মর্মে প্রত্যয়ন দিলেই কেবল নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ চাকরী স্থায়ীকরণ করবেন।

চাকরি স্থায়ীকরণের আবেদন পত্র লিখবেন যেভাবে তাঁর নমুনা নিম্নরুপ।

বরাবর

মহাপরিচালক

বাংলাদেশ বেতার

১২১, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

শাহবাগ, ঢাকা-১০০০।

বিষয়: পরিচ্ছন্নতা কর্মী (ঝাড়ুদার) পদে চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য আবেদন।

মহোদয়,

সবিনয় নিবেদন এই যে, বাংলাদেশ বেতার, সদর দপ্তর, ঢাকার ১১/১২/২০০৪ ইং তারিখের ১(২২১)/সংস্থাপন-২/বেতার(অংশ-৬)/২০০৬-১৭৬৩ (৪) নং অফিস আদেশ অনুযায়ী আমিত গত ০৫/০৩/২০০৬ ইং তারিখে পরিচ্ছন্নতা কর্মী (ঝাঁড়ুদার) পদে বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা কেন্দ্রে কাজে যোগদান করি। আমার চাকরির বয়স ১২ বছর পূর্ণ হয়েছে। অদ্যবধি আমার চাকরি স্থায়ীকরণ হয় নাই বিধায়, আমি চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য আবেদন করছি।

অতএব, মহোদয়ের নিকট বিনীত প্রার্থনা আমার চাকরি স্থায়ীকরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে হুজুরের একান্ত মর্জি হয়।

আপনার বিশ্বস্ত,

তারিখ: ২৫-০১-২০১৭

(জরিনা বেগম)

পরিচ্ছন্নতা কর্মী

বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা।

সংযুক্তি:

১। নিয়োগপত্রের কপি।

২। কাজে যোগদান পত্রের কপি।

৩। শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রের কপি।

৪। বিভাগীয় মামলা/কোর্ট কেইস সংক্রান্ত প্রত্যয়নপত্র।

৫। চাকরি সন্তোষজনক প্রত্যয়ন পত্র।


অফিস প্রধান বরাবর আপনার আবেদন অগ্রায়নের জন্য নিম্নরুপ আবেদন করবেন:

বরাবর,
অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী
বাংলাদেশ বেতার
কবিরপুর, সাভার, ঢাকা।
বিষয়ঃ চাকুরী স্থায়ীকরণের জন্য আবেদন পত্র প্রেরণ প্রসঙ্গে।
মহোদয়,
     সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী বাংলাদেশ বেতার, সদর দপ্তর, ঢাকার ২৭-০১-২০১৬ খ্রি: তারিখের ১৫.৫৩.০০০০.০১৩.১১.০০৩.১৫-৬১(৩৯) নং অফিস আদেশ অনুযায়ী গত ৩১-০১-২০১৬ খ্রি: তারিখে অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে অত্র কেন্দ্রে যোগদান করি এবং গত ৩০-০১-২০১৮ খ্রি: তারিখে আমার চাকুরীর বয়স ০২ (দুই) বছর পূর্ণ হওয়ায় চাকুরী স্থায়ীকরণের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ মহাপরিচালক, বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা বরাবর আবেদন করছি।
অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন এই যে, আমার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে স্বাক্ষরসহ আবেদন পত্রটি যথাস্থানে প্রেরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে আপনার সদয় মর্জি হয়।
বিনীত নিবেদক,
তারিখ: ৩১-০১-২০১৮ খ্রি:
(you name)
অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
বাংলাদেশ বেতার,কবিরপুর, সাভার, ঢাকা।

চাকরি স্থায়ীকরণের নমুনা আবেদন ফরম JPG কপি সংগ্রহ করতে পারেন: ডাউনলোড

Avatar

admin

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। ভালবাসি চাকরি সংক্রান্ত বিধি বিধান জানতে ও অন্যকে জানাতে। আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন alaminmia.tangail@gmail.com ঠিকানায়। ধন্যবাদ আপনাকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.