ছুটির মেয়াদান্তে কর্মে যোগদান না করার বিধি-বিধান।

১। কোন সরকারী কর্মচারী ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও কর্মে অনুপস্থিত থাকিলে এবং ছুটি মঞ্জুরকারী কর্তৃপক্ষ উক্ত অনুপস্থিতির কাল পর্যন্ত ছুটি বর্ধিত না করিলে, উক্ত অনুপস্থিতির কালের জন্য ছুটি কালীন বেতন প্রাপ্য হইবে না এবং উক্ত ছুটি অর্ধ গড় বেতনের ছুটি হইলেও অনুপস্থিতির কাল তাহার ছুটির হিসাবে খরচ দেখাইতে হইবে। ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার সত্ত্বেও কর্মে ইচ্ছাকৃত অনুপস্থিতি অসদাচরণ হিসাবে গণ্য হইবে। [বি.এসআর টার্ট-১ এর বিধি -১৫৮(২)]

২। অনুমোদিত ছুটির চাইতে অতিরিক্ত অনুপস্থিতির কাল (Overstay) বেতন বৃদ্ধির জন্য গণণা করা যাইবে না। [বি.এস.আর পার্ট-১ এর বিধি-৪৮ (জি)]

ব্যাখ্যা: ছুটির মেয়াদ শেষে কর্মে যোগদান না করিয়া অনুপস্থিত থাকিলে, উক্ত অনুপস্থিত কালের জন্য ছুটি কালীন বেতন প্রাপ্য হইবেন না। অর্থাৎ উক্ত সময়টা Without Pay হইবে। অবশ্য ছুটি মঞ্জুরকারী কর্তৃপক্ষ অতিরিক্ত অনুপস্থিত কালের চৌদ্দ দিন পর্যন্ত ছুটি বর্ধিত করিতে পারিবেন এবং ছুটি বর্ধিত করা হইলে ছুটি কালীন বেতনও প্রাপ্য হইবেন। আর যদি ছুটি বর্ধিত করা না হয়, তবে ঐ অনুপস্থিত কালের যে সময়টা, তাহা পাওনা ছুটি হইতে বাদ যাইবে। ছুটির মেয়াদ শেষে ইচ্ছাকৃতভাবে কর্মে যোগদান না করিলে তাহা অসদাচরণ হিসাবে গণ্য হইবে এবং এই জন্য তাহার বিরুদ্ধ “সরকারী কর্মচারী (শৃংখলা ও আপীল) বিধিমালা, ১৯৮৫ ও ২০১৮ এর আওতায় অসদাচরণের অভিযোগে বিভাগীয় মামলা আরম্ভ করা যাইবে। ইহা ছাড়া অননুমোদিত অনুপস্থিত কাল বেতন বৃদ্ধির জন্যও গণনা করা যাইবে না।

Avatar

admin

আমি একজন সরকারি চাকরিজীবী। ভালবাসি চাকরি সংক্রান্ত বিধি বিধান জানতে ও অন্যকে জানাতে। আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন alaminmia.tangail@gmail.com ঠিকানায়। ধন্যবাদ আপনাকে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করার জন্য।