সরকারি প্রতিষ্ঠানের তালিকা ২০২৪ । পেনশন ও গ্র্যাচুইটি পাওয়া যাবে কি?

সূচীপত্র

সরকারি চাকুরিতে প্রবেশ বা আবেদন করার সময় আমরা প্রায়ই দ্বিধাদ্বন্ধে ভূগি কোনটি সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও রাষ্ট্রয়াত্ত্ব প্রতিষ্ঠান। প্রচলিত পেনশন ও সর্বজনীন পেনশন স্কিমের মধ্যে বড় পার্থক্য হল- বেতন হতে প্রচলিত পেনশনে অর্থ কর্তন করে জমা রাখতে হয় না পেনশন পেতে – চাকরি শেষে বড় ধরনের একটি এমাউন্ট গ্র্যাচুইটি বা পেনশন হিসেবে পাওয়া যেত এবং মাসিক পেনশন যেত এখন তা বন্ধ করা হয়েছে- তবে সরকারি প্রতিষ্ঠানে পেনশন ও গ্র্যাচুইটি কার্যকর ২০২৪

সরকারি প্রতিষ্ঠান কোনগুলো? আমরা সাধারণত www.****.gov.bd ওয়েব সাইট দেখলেই মনে করি এগুলো সব সরকারি প্রতিষ্ঠান। আসলে ধারণাটা ভুল। বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন ধরণের প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে থাকে, সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-সরকারি, রাষ্ট্রয়াত্ত, জাতীয়করণকৃত এবং সরকারি বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান। এগুলো মধ্যে পিওর সরকারি বা রাজস্বখাতভূক্ত প্রতিষ্ঠান সবগুলো নয়।

সরকারি মনোগ্রাম ব্যবহার করে কি? সরকারি “গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার” লিখিত যে মনোগ্রাম তা কেবল পিওর সরকারী বা রাজস্বখাতভূক্ত প্রতিষ্ঠান ব্যবহার করতে পারে। অন্যান্য সরকারের বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠানগুলো এই মনেগ্রাম ব্যবহার করতে পারে না। যে সকল প্রতিষ্ঠান সরকারী নয়, সরকারের বিধিবদ্ধ বা ধারাবাহিকতায় চলে সেগুলো স্বায়ত্তশাসিত, আধা-সরকারি, রাষ্ট্রয়াত্ত, জাতীয়করণকৃত এবং সরকারি বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান। তবে এখন স্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, সংস্থার পেনশন ও গ্র্যাচুইটি সর্বজনীন পেনশনের আওতায় নেয়া হয়েছে।

সরকারি প্রতিষ্ঠানে কি পেনশন নাই? আছে। বর্তমানে শুধুমাত্র পিওর সরকারি প্রতিষ্ঠানে মাসিক পেনশন ও এককালীন বা গ্র্যাচুইটি বিদ্যমান রয়েছে। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ পুলিশ, সেনাবাহিনী, অধিদপ্তর ও দপ্তরগুলোতে পেনশন ও এককালীন সুবিধা আছে।

সরকারি প্রতিষ্ঠানের তালিকা ২০২৪ ।  রাজস্বখাতভূক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো নিম্নে তুলে ধরার চেষ্টা করা হলো।

  1. রাষ্ট্রপতির কার্যালয়
  2. প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়
  3. সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ
  4. পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়
  5. প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়
  6. উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো
  7. জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমী
  8. বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ইউনিট
  9. শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট
  10. কৃষি মন্ত্রণালয়
  11. কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর (ডিএই)
  12. বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়
  13. বাণিজ্য মন্ত্রণালয়
  14. বাংলাদেশ বেতার
  15. বাংলাদেশ টেলিভিশন
  16. বাংলাদেশ পুলিশ
  17. বাংলাদেশ সেনা বাহিনী
  18. বাংলাদেশ নৌ বাহিনী
  19. বাংলাদেশ বিমান বাহিনী
  20. বাংলাদেশ ব্যাংক
  21. বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক
  22. রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক
  23. সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  24. মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ
  25. সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়
  26. সংস্কৃৃতি মন্ত্রণালয়
  27. প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়
  28. খাদ্য মন্ত্রণালয়
  29. শিক্ষা মন্ত্রণালয়
  30. মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ
  31. কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ
  32. বিদ্যুৎ , জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়
  33. পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়
  34. জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়
  35. বাংলাদেশ সরকারী কর্মকমিশন সচিবালয়
  36. মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়
  37. অর্থ মন্ত্রণালয়
  38. পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
  39. স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়
  40. স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
  41. গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়
  42. শিল্প মন্ত্রণালয়
  43. তথ্য মন্ত্রণালয়
  44. বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়
  45. শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়
  46. আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়
  47. ভুমি মন্ত্রণালয়
  48. স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়
  49. পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়
  50. ডাক, েটলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়
  51. তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়
  52. ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়
  53. নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়
  54. সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়
  55. মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়
  56. পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়
  57. প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মস্থান মন্ত্রণালয়
  58. রেলপথ মন্ত্রণালয়
  59. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়
  60. দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়
  61. ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি
  62. জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো
  63. বিজ্ঞান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়
  64. কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটিজ
  65. ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ
  66. টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তর
  67. বাংলাদেশ ডাক বিভাগ
  68. বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ
  69. স্থানীয় সরকার বিভাগ
  70. জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর
  71. রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন
  72. জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট
  73. পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ
  74. ভূমি মন্ত্রণালয়
  75. বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ
updating……………………………

স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কি তাহলে গ্র্যাচুইটি পাওয়া যাবে না?

না। প্রত্যয় স্কিম (রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান, স্ব-শাসিত বা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার কর্মকর্তা বা কর্মচারীগণের জন্য): রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বা স্ব-শাসিত বা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার চাকরিতে যে সকল কর্মকর্তা বা কর্মচারী, তাহারা যে নামেই অভিহিত হউন না কেন, ১ জুলাই, ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ ও তৎপরবর্তী সময়ে নূতন যোগদান করিবেন তাহাদের জন্য এই স্কিম বাধ্যতামূলক হইবে এবং তাহাদের ক্ষেত্রে উক্ত প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার জন্য প্রযোজ্য অবসর সুবিধা সংক্রান্ত বিধি-বিধান প্রযোজ্য হইবে না।

আধা-সরকারি কর্মচারীদের প্রত্যয় পেনশন স্কিম ২০২৪ । নতুন পেনশন স্কিম মূল বেতনের ১০% কাটাবে?

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3001 posts and counting. See all posts by admin

2 thoughts on “সরকারি প্রতিষ্ঠানের তালিকা ২০২৪ । পেনশন ও গ্র্যাচুইটি পাওয়া যাবে কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *