ব্যাংক হতে পেনশন প্রদান ডিসেম্বর/২০২০ হতে বন্ধ!

ঢাকা মহানগরীর বাইরে অবস্থিত ব্যাংকসমূহ ডিসেম্বর ১০, ২০২০ খ্রি: মাস পর্যন্ত (নভেম্বর, ২০২০ খ্রি: মাসের পেনশন যা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রি: মাসে প্রদেয় হবে) পেনশন প্রদান অব্যাহত রাখতে পারবেন। এক্ষেত্রে পেনশনারগণ মাসিক পেনশন গ্রহণের সময় বর্ণিত ডকুমেন্টেসসমূহ ব্যাংকে প্রদান করলে ব্যাংক উক্ত ডকুমেন্টসহ ডি-হাফ সংশ্লিষ্ট হিসাবরক্ষণ অফিসে প্রেরণ করবে।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

হিসাব মহানিয়ন্ত্রক এর কার্যালয়

হিসাব ভবন

সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০।

www.cga.gov.bd

স্মারক নম্বর: ০৭.০৩.০০০০.৮১.৪৫৭.১৯.৭৬২; তারিখ: ০৩/০৮/২০২০

বিষয়: ঢাকা মহানগরীস্থ এবং ঢাকা মহানগরীর বাইরে অবস্থিত ব্যাংকের শাখাসমূহ হতে পেনশন প্রদান /পুনর্ভরণ বন্ধকরণ প্রসঙ্গে।

সূত্র: স্মারক নম্বর: ০৭.০৩.০০০০.০০৩.৮১.৪৫৭.১৯.৭৬২; তারিখ: ১০/০৩/২০২০

উপর্যুক্ত বিষয় ও সূত্রের প্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, মুজিব শতবর্ষে সকল বেসমারিক পেনশনারদের পেনশন ইএফটির মাধ্যমে সরাসরি পেনশনারদের ব্যাংক হিসাবে প্রেরণের জন্য হিসাব মহানিয়ন্ত্রক এর কার্যালয় অঙ্গীকারবদ্ধ।

২। সূস্থ পত্রদ্বয়ের মাধ্যমে ইতোপূর্বে ঢাকা মহানগরীতে অবস্থিত সোনালী ব্যাংক সমূহের সকল শাখা হতে ডি-হাফ সংগ্রহের জন্য সকল প্রধান হিসাবরক্ষণ ও অর্থ কর্মকর্তার কার্যালয় সমূহকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছিল এবং সে অনুযায়ী উক্ত কার্যালয়সমূহ হতে ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখা সমূহের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে।

৩। সরকারের ডিজিটালাইজেশন কর্মকান্ডের ব্যাপ্তি বৃদ্ধি, পেনশন কেন্দ্রীকরণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন এবং পেনশন ব্যবস্থাকে অটোমেশনের আওতায় আনয়নের অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগরীতে অবস্থিত সকল রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক হতে সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০ খ্রি: তারিখের পর (আগস্ট , ২০২০ মাসের পেনশন যা সেপ্টেম্বর, ২০২০) মাসে প্রদেয় হবে) কোন পেনশন প্রদান করা হবে না মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। ঢাকা মহানগরীতে অবস্থিত ব্যাংক সমূহকে পেনশনারদের ডি-হাফ সংশ্লিষ্ট প্রধান হিসাবরক্ষণ ও অর্থ কর্মকর্তার কার্যালয়ে বর্ণিত সময়সীমার মধ্যে প্রেরণের জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।

ইতোমধ্যে যদি কোন পেনশনার (১) পূরণকৃত ইএফটি ফরম (ফরমটি www.cga.gov.bd) হতে ডাউনলোড করা যাবে এবং ব্যাংকের শাখায় পাওয়া যাবে) (২) জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি এবং (৩) নিজ ব্যাংক হিসাবের MICR চেক হই এর কভার পৃষ্ঠার ফটোকপি সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে জমা দিয়ে থাকে, তবে তা ডি-হাফের সাথে যুক্ত করে হিসাবরক্ষণ অফিসে প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ জানানো হলো।

৪। আগস্ট, ২০২০ খ্রি: মাসের পরবর্তী কোন মাসের পেনশন (যা সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রি: মাসে প্রদেয় হবে) ঢাকা মহানগরীস্থ কোন ব্যাংক প্রদান করলে তা কোন প্রধান হিসাবরক্ষণ ও অর্থ কর্মকর্তার কার্যালয় পুর্নভরণ করবে না।

৫। ঢাকা মহানগরীর বাইরে অবস্থিত ব্যাংকসমূহ ডিসেম্বর ১০, ২০২০ খ্রি: মাস পর্যন্ত (নভেম্বর, ২০২০ খ্রি: মাসের পেনশন যা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রি: মাসে প্রদেয় হবে) পেনশন প্রদান অব্যাহত রাখতে পারবেন। এক্ষেত্রে পেনশনারগণ মাসিক পেনশন গ্রহণের সময় বর্ণিত ডকুমেন্টেসসমূহ ব্যাংকে প্রদান করলে ব্যাংক উক্ত ডকুমেন্টসহ ডি-হাফ সংশ্লিষ্ট হিসাবরক্ষণ অফিসে প্রেরণ করবে।

৬। এমতাবস্থায়, ঢাকা মহানগরীস্থ এবং ঢাকা মহানগরীর বাইরে অবস্থিত ব্যাংকের সকল শাখাসমূহকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হলো।

(মোহাম্মদ মমিনুল হক ভুঁইয়া)

অতিরিক্ত হিসাব মহানিয়ন্ত্রক (হিসাব ও পদ্ধতি)

ফোন: ৯৩৬০৮৫৯

বিতরণ: ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সোনালী, অগ্রনী, রুপালী, জনতা ব্যাংক, ঢাকা।

 

রাষ্ট্রয়াত্ত ব্যাংক ব্যাংকের শাখাসমূহ হতে পেনশন প্রদান ডিসেম্বর/২০২০ হতে বন্ধ: ডাউনলোড

প্রশ্নোত্তর পর্ব:

  • প্রশ্ন : তাহলে পেনশন কিভাবে দেয়া হবে?
  • উত্তর: ইএফটির মাধ্যমে পেনশন প্রদান করা হবে। সংযুক্তি ইএফটি ফরম পূরণ করে হিসাবরক্ষণ অফিসে পাঠিয়ে দিন।

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.