বাংলাদেশ সরকারের সার্ভিস রুলস মোতাবেক সরকারি কর্মচারীকে ৩ বছর পর পর ১৫ দিন শ্রান্তি বিনোদন ছুটি প্রদান করা হয় এবং তা বিদেশে ভোগ করা যায়-এক্ষেত্রে আবেদনে তা উল্লেখ করতে হয় – শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি টু বহিঃবাংলাদেশ ছুটি ২০২৪

শ্রান্তি বিনোদন ছুটি কি? শ্রান্তি মানে বিশ্রাম ও বিনোদন মানে আমোদ প্রমোদ বোঝায়। শ্রান্তি বিনোদন ছুটিকে ইংরেজীতে বলে Rest and Recreation Leave । সরকারি কর্মচারী প্রতি ০৩ (তিন) বছর অন্তর অন্তর শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি হিসাবে ১৫ দিন ছুটি ভোগ করতে পারে। এ ছুটি কাটাতে তাকে ঐ সময়ের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ প্রদান সহ ১৫ দিনের ছুটি মঞ্জুর করা হয়। সাধারণত যোগদান কালকে ছুটি শুরুর তারিখ ধরা হয়।

শ্রান্তি বিনোদন ছুটিকে কি বহি: বাংলাদেশ ছুটিতে রূপান্তরের জন্য আবেদন করতে হয়? না। যদি শ্রান্তি বিনোদন ছুটি দেশের বাইরে কাটাতে চায় কেউ তাহলে শ্রান্তি বিনোদন ছুটির আবেদনে এ কথা উল্লেখ করবে যে সে শ্রান্তি বিনোদন ছুটি দেশের বাইরে কাটাতে চায়। তার ছুটি মঞ্জুরকারী কর্তৃপক্ষ অনুমোদন করলে তখন সে এই ছুটি দেশের বাইরে ভোগ করতে পারবে, অন্যথায় দেশেই এই ছুটি ভোগ করতে হবে। এখানে কনভার্টে কোন প্রয়োজন নাই, সুযোগও নাই। শুধু ছুটি কোথায় কাটাবে এটাই বিবেচ্য বিষয় এবং এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ইংরেজীতে জিও জারি করা যেতে পারে।

শ্রান্তি বিনোদন ছুটি কি অর্জিত ছুটি? হ্যাঁ। এটি অর্জিত ছুটি হতে কর্তন করা হয়। বহি: বাংলাদেশ বা শ্রান্তি বিনোদন ছুটি দুটিই পূর্ণ গড় বেতনে অর্জিত ছুটি হতে বিয়োগ করা হয়। শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি বিদেশে কাটাতে হলে শ্রান্তিবিনোদন ছুটি মঞ্জুর করত: বহি: বাংলাদেশ ছুটির আবেদন করতে হয় অথবা একই আবেদন পত্রে শ্রান্তিবিনোদন ছুটি ও বহি:বাংলাদেশ ছুটির আবেদন করতে হয়। মোট কথা শ্রান্তিবিনোদন ছুটিকে বহি: বাংলাদেশ ছুটিতে রূপান্তর করা যায়।

শ্রান্তি বিনোদন ছুটি বহিঃবাংলাদেশ ছুটি হিসেবে ভোগ করার অনুমতি প্রদান প্রসংগে আবেদন করতে হবে/ আলাদা আবেদনের প্রয়োজন নেই একই আবেদনেই শ্রান্তি ও বিনোদন ছুটি মঞ্জুর ও বিদেশে ভোগের জন্য অনুমতি নিতে হয়।

অতিরিক্ত প্রয়োজনে ইংরেজীতে জিও জারি করতে হয়। ভিসা এবং জিও/অনুমতির আদেশ নিয়ে পাশ্ববর্তী দেশগুলোতে ছুটি কাটানো যায়।

শ্রান্তি বিনোদন ছুটি বিধি ১৯৭৯ pdf

শ্রান্তি বিনোদন ছুটি বিধি ১৯৭৯ pdf । বিদেশে  শ্রান্তি বিনোদন ভোগের ক্ষেত্রে কি কি শর্ত থাকে?

  1. ভ্রমনের যাবতীয় ব্যয় বাংলাদেশ সরকার/ কমিশনের কোন আর্থিক সংশ্লেষ থাকবে না।
  2.  ছুটি ভোগের জন্য তিনি আলাদাভাবে কোন অর্থ দাবি করতে পারবেন না।
  3. ছুটিতে যাওয়ার প্রাক্কালে তিনি নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবেন।
  4. অনুমোদিত সময়ের অতিরিক্ত তিনি বিদেশে অবস্থান করতে পারবেন না।
  5. ছুটি শেষে কাজে যোগদানের বিষয়টি অফিস প্রধানকে অবহিত করবেন।

বহিঃ বাংলাদেশ ছুটির মেয়াদ কত দিন?

আপনি ৩ বছর পূর্তির পূর্বেই শ্রান্তি বিনোদন ছুটি এবং ভাতার জন‍্য আবেদন করবেন। আবেদনে কোন তারিখ আপনার ৩ বছর পূর্তি হবে এবং কোন তারিখ থেকে ভাতা সহ ছুটি নিতে চাচ্ছেন, তা উল্লেখ করুন। প্রাপ‍্যতা সাপেক্ষে আপনার আবেদনে উল্লেখিত তারিখ থেকে কর্তৃপক্ষ শ্রান্তি বিনোদন ছুটি ও ভাতা মঞ্জুরী আদেশ জারি করবেন। তবে কর্তৃপক্ষে যে কোনো কারণে আপনার আবেদিত বা প্রাপ‍্যতার তারিখের পরেও ভাতা ও ছুটি মঞ্জুর করতে পারে। শ্রান্তি বিনোদন ছুটি ও ভাতার অন‍্যতম শর্ত হলো ছুটি এবং ভাতা একই সাথে মঞ্জুর/ভোগ করতে হবে এবং আপনার আবেদনের (উল্লেখিত) তারিখ। তাই কর্তৃপক্ষ বিশেষ কারণে দেরীতে ছুটি ও ভাতা মঞ্জুর করলেও আপনার পরবর্তী প্রাপ‍্যতার তারিখ গননা হবে আপনার আবেদনে উল্লেখিত তারিখ থেকে, ভোগের তারিখ থেকে নয়। তাই আপনার দায়িত্ব হলো নির্ধারিত তারিখ উল্লেখ পূর্বক যথাসময়ে কর্তৃপক্ষ বরাবর আবেদন করা। অর্জিত ছুটি বা বহি: বাংলাদেশ ছুটির মেয়াদ ৩৫ দিন হলেও যদি ছুটি ভোগের প্রকৃত তারিখ হতে কার্যকর লেখা থাকে তাহলে সমস্যা নেই।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3001 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *