অর্জিত ছুটি- গড় বেতনে ও অর্ধ গড় বেতনে ছুটি বিধিমালা।

নির্ধারিত ছুটি বিধিমালা, ১৯৫৯ এর বিধি -৩ এ গড় বেতনে ও অর্ধ গড় বেতনে ছুটির বিধি বিধান বর্ণনা করা হয়েছে। স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মচারীর ক্ষেত্রে এ ছুটির হিসাব ভিন্ন হয়ে থাকে।

(১) স্থায়ী সরকারী কর্মচারী-

টীকা (এ) (i) (ii) (iii) এবং (বি) অনুচ্ছেদসমূহ স্মারক নং MF/RII/Misc/73 (212) তারিখ: ২৬/১২/১৯৭৩ দ্বারা বাতিল করা হইয়াছে ।

(i) কর্মকালীন সময়ে ১১ ভাগের ১ ভাগ হারে গড় বেতনে ছুটি অর্জিত হইবে এবং সর্বাধিক চার মাস পর্যন্ত এইভাবে জমা হইবে । চার মাসের অতিরিক্ত অর্জনকৃত ছুটি ‘ছুটি হিসাব’-এর পৃথক আইটেমে জমা হইবে । পৃথক আইটেমে জমাকৃত ছুটি হইতে মেডিকেল সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে অথবা তীর্থযাত্রার, শিক্ষার অথবা বাংলাদেশ, বার্মা, শ্রীলংকা ও ভারতের বাহিরে শ্রান্তি ও বিনোদনের উদ্দেশ্যে গড় বেতনে ছুটি মঞ্জুর করা যাইবে ।

(ii) গড় বেতনে ছুটি এককালীন চার মাসের অধিক ভোগ করা যাইবে না । তবে মেডিকেল সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে অথবা তীর্থযাত্রার, শিক্ষার বা বাংলাদেশ, বার্মা, শ্রীলংকা ও ভারতের বাহিরে শ্রান্তি ও বিনোদনের উদ্দেশ্যে চার মাসের অতিরিক্ত ছুটি ভোগের ক্ষেত্রে এই সীমা ছয় মাসে বর্ধিত করা যাইবে ।

(iii) কর্মকালীন সময়ের ১২ ভাগের ১ ভাগ হারে অর্ধ গড় বেতনে ছুটি অর্জিত হইবে এবং সীমাহীনভাবে ইহা জমা হইবে । মেডিকেল সার্টিফিকেট দাখিল করা হইলে, এই অর্ধ গড় বেতনের ছুটিকে সর্বাধিক বার মাস পর্যন্ত গড় বেতনের ছুটিতে রূপান্তর করা যাইবে । প্রতি দুই দিন অর্ধ গড় বেতনের ছুটির পরিবর্তে একদিন গড় বেতনের ছুটি, এই হারে ছুটির রূপান্তর করিতে হইবে ।

(২) অস্থায়ী সরকারী কর্মচারী-

(এ) যে অস্থায়ী সরকারী কমরচারী ৩০শে জুন, ১৯৫৯ তারিখে নিরবচ্ছিন্নভাবে তিন বত্সর বা উহার অধিককাল চাকুরীর মেয়াদ সম্পন্ন করিয়াছেন, ৫নং বিধির ক্ষেত্র ব্যতীত, এই বিধিমালার অন্যান্য ক্ষেত্রে তিনি স্থায়ী সরকারী কর্মচারী হিসাবে বিবেচিত হইবেন এবং তিনি এই বিধিমালার অপশন গ্রহণ করিয়া থাকিলে, তাহার ক্ষেত্রে এই বিধিমালার বিধান ১লা জুলাই, ১৯৫৯ হইতে কার্যকর হইবে ।

(বি) ৩০শে জুন, ১৯৫৯ তারিখে যে, অস্থায়ী কর্মচারীর মেয়াদ নিরবচ্ছিন্নভাবে তিন বত্সর পূর্ণ হয় নাই, অথবা যিনি ঐ তারিখের পরে চাকুরীতে যোগদান করিয়াছেন বা করিবেন, তিনি ঐ তারিখে উক্ত কর্মচারীর উপর প্রযোজ্য ছুটি বিধি সংক্রান্ত বিধান দ্বারা পরিচালিত হইবেন । কিন্তু যে তারিখে তাহার অস্থায়ী চাকুরীর মেয়াদ নিরবচ্ছিন্নভাবে তিন বত্সর পূর্ণ হইবে, অথবা যে তারিখে তিনি কোন স্থায়ীপদে স্থায়ীভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হইবেন, ইহারে মধ্যে যেটি আগে ঘটিবে, ৫নং বিধির ক্ষেত্র ব্যতীত, ঐ তারিখ হইতে তিনি ছুটির উদ্দেশ্যে স্থায়ী সরকারী কর্মচারী হিসাবে গণ্য হইবেন এবং তিনি যদি স্থায়ী সরকারী কর্মচারী হইতেন, তাহা হইলে যেইভাবে ১লা জুলাই, ১৯৫৯ অথবা তত্পরে চাকুরীতে যোগদান করিয়া থাকিলে চাকুরীতে যোগদানের তারিখ হইতে ছুটি প্রাপ্য হইতেন, সেইভাবে তাহার ‘ছুটি হিসাব’-এ ছুটি জমা হইবে । এই জমাকৃত ছুটি হইতে ইতিমধ্যে ভোগকৃত ছুটি বাদ যাইবে ।

নির্ধারিত ছুটি বিধিমালা, ১৯৫৯: ডাউনলোড সূত্র

The Prescribed Leave Rules, 1959: ডাউনলোড

 

পুরাতন পোস্ট

বেতন গ্রেড ১৩-২০ পর্যন্ত সরকারি কর্মচারী নিয়োগের কর্তৃপক্ষ ও পদ্ধতি নির্ধারণ সংক্রান্ত গঠিত কমিটি কর্তৃক প্রতিবেদন দাখিলের সময়সীমা ৩১ অক্টোবর ২০২০।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়

বিধি-১ শাখা

www.mopa.gov.bd

নং-০৫.০০.০০০০.১৭০.২২.০১৭.১৬.৯৪; তারিখ: ১৬ আগস্ট, ২০২০

প্রজ্ঞাপন

বেতন গ্রেড ১৩-২০ পর্যন্ত পদে সরকারি কর্মচারী নিয়োগের কর্তৃপক্ষ ও পদ্ধতি নির্ধারণ সংক্রান্ত প্রস্তাবটি পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ তারিখের ৩৪ প্রজ্ঞাপন-এর (খ) অনুচ্ছেদের ক্রমিক নং-৩ নিম্নরূপ ভাবে সংশোধন করা হলো:

(৩) কমিটি আগামী ৩১ অক্টোবরের মধ্যে সরকারের নিকট প্রতিবেদন পেশ করবে।

(দীপংকর বিশ্বাস)

উপসচিব

 

১৩-২০ গ্রেডের কর্মচারীদের নিয়োগ কর্তৃপক্ষ হতে পারে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন: ডাউনলোড

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply