জুলাই মাসের মূল বেতন অনুসারে জিপিএফ কর্তনের অনুমতি।

সমস্যা নিরসনে জুন মাসের বেতন (যা জুলাই মাসে প্রদেয়) এর ভিত্তিতে ৫% ও ২৫%সিলিং ঠিক রেখে জিপিএফ কর্তন এবং জুলাই মাসের ইনক্রিমেন্ট পাওয়ার পর বর্ণিত ইনক্রিমেন্টের ভিত্তিতে উক্ত বছরের অবশিষ্ট ১২ মাসের জন্য ৫% ও ২৫% এর সিলিং ঠিক রাখা যেতে পারে এ মর্মে সিজিএ কার্যালয় যে মতামত ব্যক্ত করেছে তার সাথে অর্থ বিভাগ একমত।

 

গনপ্রজাতন্তী বাংলাদেশ সরকার

অর্থ মন্ত্রণালয়, অর্থ বিভাগ

প্রবিধি অনুবিভাগ

প্রবিধি-১অধিশাখা।

www.mof.gov.bd

স্মারক নং: ০৭.০০.০০০০.১৭১.২২.০০১.১৪-৫০ তারিখঃ ২২জুলাই ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বিষয়ঃ সাধারন ভবিষ্য তহবিল বিধিমালা,১৯৭১ অনুসারে চাঁদার হার নির্ধারণ প্রসঙ্গে ।

সূত্র হিসাব মহানিয়ন্ত্রকের কারযালায়ের স্মারক নং ,০৭,০৩,০০০০,০১০, ১১,৮৬৭,২০১৯,১৬২,তারিখ ২১-০৭-২০১৯ খ্রি। উপযুক্ত বিষয় ও সুত্রের পরিপ্রেক্ষিতে অর্থ বিভাগের নিম্নরুপ মতামত নির্দেশক্রমে জানানো হল:

উপরোক্ত সমস্যা নিরসনে জুন মাসের বেতন (যা জুলাই মাসে প্রদেয়) এর ভিত্তিতে ৫% ও ২৫%সিলিং ঠিক রেখে জিপিএফ কর্তন এবং জুলাই মাসের ইনক্রিমেন্ট পাওয়ার পর বর্ণিত ইনক্রিমেন্টের ভিত্তিতে উক্ত বছরের অবশিষ্ট ১২ মাসের জন্য ৫% ও ২৫% এর সিলিং ঠিক রাখা যেতে পারে এ মর্মে সিজিএ কার্যালয় যে মতামত ব্যক্ত করেছে তার সাথে অর্থ বিভাগ একমত।

 

ডঃ মো: নজরুল ইসলাম

যুগ্ন সচিব

ফোন: ৯৫৪০১৮১

 

ইনক্রিমেন্টসহ জুলাই মাসের মূল বেতন অনুসারে জিপিএফ কর্তনের অনুমতি: ডাউনলোড Try Another Link: ডাউনলোড

 

ইতোমধ্যে জিপিএফ কারেশনে গিয়ে জুলাই মাসের বেসিক অনুসারে জিপিএফ সংশোধন করে কেউ কেউ বেতন বিল সাবমিট করেছেন। iBAS++ এ জিপিএফ হ্রাস-বৃদ্ধির জন্য GPF Correction অপশন চালু!

এ বিষয়টি অনেকেই হতাশ ছিলেন ৷ নিরাশ হওয়ার কিছুই নাই ৷ যারা ইতোমধ্যে জিপিএফ কর্তন বৃদ্ধি ছাড়া বিল সাবমিট দিয়েছেন তারা চাইলে DDO কর্তৃক বিল SEND BACK করে জিপিএফ কর্তন বৃদ্ধি সহ পুনরায় বিল সাবমিট করতে পারবেন ৷ যদি DDO বিলটি FORWARD করে দেয় তাহলে সংশ্লিষ্ট হিসাব রক্ষন অফিসের মাধ্যমে বিলটি বাতিল করে পুনরায় দাখিল করতে পারবেন ৷

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

One thought on “জুলাই মাসের মূল বেতন অনুসারে জিপিএফ কর্তনের অনুমতি।

  • 28/08/2020 at 2:46 pm
    Permalink

    অনুগ্রহ করে কর্মকর্তা কর্মচারি (মাধ্যমিমক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর) নিয়োগবিধিমালা ১৯৯১ এর গেজেটটি সংগ্রহ করে দিয়ে বাধিত করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.