উর্ধ্ব গ্রেডের চাকুরী প্রাপ্ত হইলে Pay Protection সুবিধা।

কোন সরকারি কর্মচারী বা কর্মকর্তা যদি যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে অন্য কোন সরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য আবেদন করেন এবং তিনি চাকরি পেয়ে যান, তবে তার বর্তমান কর্মস্থলের মূল বেতন নিয়ে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে পারবেন। সাধারণ বর্তমান গ্রেড থেকে উর্ধ্ব গ্রেডের মূল বেতন যদি কম হয় তবেই এভাবে বেতন সংরক্ষণ বা Pay Protection করা হয়ে থাকে।

যেমন ধরুন, কোন একজন সরকারি কর্মচারী ১১ তম গ্রেডে চাকরি করেন, তার নতুন চাকরি ১০ গ্রেডে হলো, এক্ষেত্রে নতুন কর্মস্থলের প্রারম্ভিক বেতন যদি পুরতন কর্মস্থলের থেকে কম হয় তবে পে প্রোটেকশনের মাধ্যমে পুর্বতন কর্মস্থলের বেতন সংরক্ষণের মাধ্যমে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে পারবেন। অর্থাৎ বর্তমান বেতন ১০ম গ্রেডের বেতন ক্রস করলে বেতন সংরক্ষণ করতে পারবেন এবং পিএফ কন্ট্রিনিউ রাখতে পারবেন।

শুধুমাত্র বেতন সংরক্ষণই নয়, তার জিপিএফ এ জমাকৃত সমূদয় অর্থও হিসাব সহ নতুন কর্মস্থলে ট্রান্সফার করতে পারবেন। অর্থাৎ তার পূর্বতন কর্মস্থলের জিপিএফ নম্বর ঠিক থাকবে এবং ব্যালেন্স নতুন কর্মস্থলে আসবে।

 

এ জন্য প্রথমে পূর্বের হিসাবরক্ষণ অফিস হতে তাঁর প্রতিপাদিত বেতন নির্ধারণ অনলাইনের মাধ্যমে নতুন হিসাবরক্ষণ অফিস স্থানান্তর করতে হবে। এ ক্ষেত্রে পূর্বের ভেরিফিকেশন নম্বরই নতুন বেতন নির্ধারণীতে চলমান থাকবে।

পূর্বের চাকরির ধারাবাহিকতা রক্ষা বেতন সংরক্ষণসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা প্রাপ্তির জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কিছু কাগজপত্র দাখিল করতে হয়। নিম্নবর্ণিত কাগজপত্রাটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে প্রেরন করতে হয়।

  • বিসিএস ক্যাডার বা উক্ত পদে মোট চাকরি কাল;
  • উক্ত ক্যাডার বা পদে চাকরিকালীন কোন কর্মবিরতি ছিল কিনা;
  • চাকরিকালীন কখনো বরখাস্ত/সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন কিনা;
  • কর্মকালে তিনি বিনা বেতনে ছুটি ভোগ করেছেন কিনা;
  • সংশ্লিষ্ট কর্মচারী বা কর্মতার বিরুদ্ধে শৃঙ্খলামূলক কোন অভিযোগ ছিল কিনা।

দৃষ্টান্ত হিসাবে দুটি দপ্তরের তথ্যাদি চাওয়ার আদেশ দেখে নিতে পারেন: ১। ডাউনলোড ২। ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.