প্রদেয় ভবিষ্য তহবিল হইতে বদলী সংক্রান্ত বিধি বিধান।

প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলের চাঁদাদাতা সরকারের অধীনে পেনশনযােগ্য। চাকরিতে স্থায়ীভাবে বদলী হইলে, তিনি উক্ত চাকরির জন্য নিজ ইচ্ছানুযায়ী নিম্নের যে কোন সুবিধা গ্রহণ করিতে পারিবেন

(এ) প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে চাদা প্রদান অব্যাহত রাখিতে পারিবেন এবং এইক্ষেত্রে তিনি কোন প্রকার পেনশন প্রাপ্য হইবেন না এবং সাধারণ ভবিষ্য তহবিলেও চাদা প্রদান করিতে পারিবেন না, অথবা

(বি) চাকরি পেনশনযােগ্য চাকরি হিসাবে গণনা করিতে পারিবেন এবং এইক্ষেত্রে তিনি প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে চাদা প্রদান করিতে পারিবেন না। তাহার । প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে সঞ্চিত চাঁদা এবং সরকারের প্রদত্ত অর্থ সুদ বা ইনক্রিমেন্টসহ সাধারণ ভবিষ্য তহবিলে চাদা প্রদান করিতে পারিবেন না। তাহার প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে সঞ্চিত চাঁদা এবং সরকারের প্রদত্ত অর্থ সুদ বা ইনক্রিমেন্টসহ সাধারণ ভবিষ্য তহবিল হিসাবে স্থানান্তরিত হইবে এবং স্থানান্তর পরবর্তী চাকরি পেনশনের জন্য গণনা করা হইবে। যদি কোন ক্ষেত্রে বিশেষ বিবেচনায় সরকার প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে চাকরিকালীন সময়কে পেনশনযােগ্য চাকার হিসাবে গণনা করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন, তাহা হইলে উক্ত ক্ষেত্রে প্রদেয়। আবষ্য তহবিলের শুধু চাদাদাতার প্রদেয় চাদা সুদ বা ইনক্রিমেন্টসহ সরকাকে ফেরত দিতে হইবে এবং এই জন্য তাহা জেনারেল রেভিনিউ-তে জমা দিতে হইবে ।

(২) পেনশনযােগ্য চাকরিতে স্থায়ীভাবে বদলীর আদেশ জারীর তারিখের ছয় মাসের চাঁদাদাতা উপবিধি-(১) তে উল্লেখিত নিজস্ব ইচ্ছা লিখিতভাবে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে জানাইবেন। যদি উক্ত সময়ের মধ্যে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে জানাইবেন। যদি উক্ত সময়ের মধ্যে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার অফিসে তাহা প্রাপ্ত না হয়, তাহা হইলে চাঁদাদাতা প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে চাঁদা প্রদান অব্যাহত রাখা ইচ্ছা ব্যক্ত করিয়াছেন মর্মে গণ্য করিতে হইবে।

সরকারী প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে যােগদান

১৪। ভবিষ্য তহবিলের কোন চাঁদাদাতা যদি পরবর্তী সময়ে প্রদেয় ভবিষা তহবিলে যােগদান করে, তাহলে সুদ বা ইনক্রিমেন্টসহ তাহার প্রদত্ত চাঁদা প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলের তাহার হিসাবে স্থানান্তরিত হইবে। প্রদেয় ভবিষ্য তহবিলে সুবিধা ভােগকালীন সময় পেনশনের জন্য গণনাযােগ্য হইবে না।

পদ্ধতি সংক্রান্ত বিধান

২৫। এই বিধিমালার অধীনে তহবিলে প্রদত্ত সমুদয় অর্থ “সাধারণ ভবিষ্য তহবিল” নামের সরকারী হিসাবের বহিতে জমা হইবে। উক্ত হিসাবে জমাকৃত অর্থ এই বিধিমালা অনুসারে প্রদেয় হওয়ার এবং হিসাবরক্ষণ অফিস কর্তৃক অবহিত করণের ছয় মাসের মধ্যে উত্তোলন করা না হইলে বৎসরের শেষে “জমা” খাতে স্থানান্তরিত হইবে এবং “জমা সংক্রান্ত প্রচলিত সাধারণ বিধি মােতাবেক তাহা পরিচালিত হইবে ।

চাঁদাদাতার হিসাব নম্বর

২৬। বেতন হইতে কর্তন পূর্বক বা নগদ অর্থে যেভাবেই চাদা প্রদান করা হউক, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা কর্তৃক অবহিতকৃত হিসাব নম্বর উল্লেখ পূর্বক চাঁদা প্রদান করিতে হইবে। হিসাব নম্বরের যে কোন পরির্তনও একইভাবে হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা চাঁদাদাতাকে অবহিত করিবেন।

চাঁদাদাতার হিসাবের বিবরণী

২৭। (১) বৎসর শেষে যতশীঘ্র সম্ভব হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা প্রত্যেক চাদাদার নকট চাদাদাতার তহবিলের হিসাবের একটি বিবরণী প্রেরণ করিবেন। উক্ত বিবরণীতে উক্ত বৎসরের প্রথম দিনের প্রারম্ভিক জের, বৎসরের মধ্যে জমাকৃত ৩ উত্তোলনকৃত অর্থ, ৩০ জুনে সুদ বা ইনক্রিমেন্ট বাবদ জমার পরিমাণ এবং উক্ত তারিখে সমাপনী জের দেখাইতে হইবে। হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হিসাব বিবরণীর নিমােক্ত তথ্যাদি সম্পকে জানিতে চাহিয়া অনুসন্ধানপত্র সংযুক্ত করিবেন:|

(এ) তিনি মনােনয়নপত্র প্রেরণ করিয়াছেন কি না অথবা বিধি-৬ অনুসারে বা ২তপর্বে বলবৎ বিধি অনুসারে প্রেরিত মনােনয়ন পত্রে কোন পরিবর্তন করিতে আগ্রহী কি না;

(বি) পরিবারের অবর্তমানে বিধি-৬ এর উপবিধি-(১) এর বিধান অনুসারে পরিবারের সদস্য ভিন্ন অন্য কোন ব্যক্তিকে মনােনয়নের ক্ষেত্রে তাহার কোন পরিবার হইয়াছে কি না।

(২) চাঁদাদাতা বাৎসরিক হিসাব বিবরণী শুদ্ধতা সম্পকে নিজে নিশ্চিত হইবেন এবং কোন ভুল পরিলক্ষিত হইলে বিবরণী প্রাপ্তির ছয় মাসের মধ্যে তাহা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তাকে জানাইবেন।

(৩) হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা চাঁদাদাতার চাহিদা মােতাবেক যে বৎসরের হিসাব লিখিত হইয়াছে ঐ বৎসরের শেষ মাসের সমাপ্তিতে তহবিলে মােট সঞ্চিত অর্থের পরিমাণ বৎসরে একবার চাঁদাদাতাকে জানাইবেন।

 

প্রদেয় ভবিষ্য তহবিল হইতে বদলী সংক্রান্ত বিধি বিধান: ডাউনলোড

Leave a Reply

Your email address will not be published.

close