মোটরযানের মালিকানা পরিবর্তন যথাযথ না হলে ১ মাস কারাদন্ড!

হস্তান্তরের ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে হস্তান্তরকারী (বিক্রেতা) কর্তৃপক্ষকে নির্ধারিত ফরমে ও পদ্ধতিতে অবহিত করে উহার অনুলিপি হস্তান্তর গ্রহীতার (ক্রেতা) নিকট প্রেরণ করার বিধান রয়েছে।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)

মোটরযানের মালিকানা পরিবর্তন সংক্রান্ত বিআরটিএ’র জরুরী বিজ্ঞপ্তি

এতদ্বারা সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ এর ২১ ধারা মোতাবেক মোটরযান বিক্রয় করার পর মালিকানা পরিবর্তনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। উক্ত ধারা অনুযায়ী কোনো মোটরযানের মোটরযানের মালিকানা হস্তান্তর করা হরে, হস্তান্তরের ৩০ (ত্রিশ) দিনের মধ্যে হস্তান্তরকারী (বিক্রেতা) কর্তৃপক্ষকে নির্ধারিত ফরমে ও পদ্ধতিতে অবহিত করে উহার অনুলিপি হস্তান্তর গ্রহীতার (ক্রেতা) নিকট প্রেরণ করার বিধান রয়েছে।

হস্তান্তরগ্রহীতাকে (ক্রেতা) হস্তান্তরের ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে স্বীয় নামে মোটরযানটি রেজিস্ট্রেশনের জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট নির্ধারিত ফরমে ও পদ্ধতিতে আবেদন করতে হবে। যদি কোনো হস্তান্তরগ্রহীতা ধারা ২১-এর বিধান লঙ্ঘন করে, তা হলে উক্ত লঙ্ঘন হবে সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮ এর ৭৪ ধারা অনুযায়ী একটি অপরাধ, এবং তজ্জন্য হস্তান্তরগ্রহীতা (ক্রেতা) অনধিক ১ (এক) মাস কারাদন্ড বা অনধিক ৫ (পাঁচ) হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন।

২। এমতাবস্থায়, সংশ্লিষ্ট সকলকে মোটরযান ক্রয়-বিক্রয়ে উপরিউক্ত নির্দেশনা অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। অন্যথায়, আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জি-১৯৫০/১১/২০(২*৪) পরিচালক (ইঞ্জি:)

মোটরযানের মালিকানা পরিবর্তন যথাযথ না হলে ১ মাস কারাদন্ড বা ৫ হাজার টাকা জরিমানা: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.