পেনশনারের পেশা বেছে নেয়ার নিয়ম । PRL এরপর যে কোন পেশা গ্রহণে সরকারের অনুমতি নিতে হবে না

অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণমুক্ত। চাকরি হইতে অবসরে গমনের পর, ধারা ৪৯ এর অধীন চুক্তিভিত্তিক কর্মরত থাকা ব্যতীত কোনো ব্যক্তির বৈদেশিক বা বেসরকারি চাকরি বা কোনে প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কেনো পেশা গ্রহণ, ব্যবসা পরিালনা এবং বিদেশ যাত্রার জন্য সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি গ্রহণের প্রয়োজন হইবে না।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়

বিধি অনুবিভাগ

বিধি-৪ শাখা

নম্বর: ০৫-০০.০০০০.১৭৩.১১.০০২.১০.২৯১; তারিখ: ২৫ নভেম্বর, ২০২০

পরিপত্র

বিষয়: অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীগণের অবসর গ্রহণের পর বৈদেশিক বা বেসরকারি বা প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোননো পেশা গ্রহণ বা ব্যবসা পরিচালনা এবং বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতির প্রযোজ্যতা না থাকা সংক্রান্ত।

সম্প্রতি লক্ষ করা যাচ্ছে যে, চাকরি হতে অবসর গ্রহণ বা অবসর-উত্তর ছুটি (পি.আর.এল.) আরম্ভের পরও কোনো কোনো কর্মচারী বৈদেশিক বা প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোনো পেশা গ্রহণ বা ব্যবসা পরিচালনা এবং বিদেশ যাত্রার জন্য অনুমতি বা পাসপোর্ট নবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন করে থাকেন। সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৫২ ধারার বিধান মতে অবসর গ্রহণের পর সংশ্লিষ্ট কর্মচারী সরকার বা কোনো নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণমুক্ত থাকেন বিধায় এরূপ আবেদনসমূহ নিষ্পত্তিতে শ্রম ও সময়ের অপচয় ঘটছে।

০২। সরকারি চাকরি আইন ২০১৮ এর ৫২ ধারা নিম্নরূপ:-

“৫২। অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণমুক্ত। চাকরি হইতে অবসরে গমনের পর, ধারা ৪৯ এর অধীন চুক্তিভিত্তিক কর্মরত থাকা ব্যতীত কোনো ব্যক্তির বৈদেশিক বা বেসরকারি চাকরি বা কোনে প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কেনো পেশা গ্রহণ, ব্যবসা পরিালনা এবং বিদেশ যাত্রার জন্য সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি গ্রহণের প্রয়োজন হইবে না;

তবে শর্ত থাকে যে, সরকার বা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ, কোনো বিশেষ ক্ষেত্রে, অনুরূপ ভিন্ন চাকরি বা পেশা গ্রহণ, ব্যবসা পরিচালনা বা বিদেশ যাত্রা বারিত করিয়া বা উহার ক্ষেত্রে অনুমতি গ্রহণের বাধ্যবাধকতা আরোপ করিয়া আদেশ প্রদান করিতে পারিবে।”

০৩। এমতাবস্থায়, চাকরি হতে অবসর গমনের পর বা অবসর উত্তর ছুটি (পি.আর.এল.) আরম্ভের তারিখ হতে “সরকারি চাকরি আইন ২০১৮” এর ৫২ ধারা মোতাবেক কোনো ব্যক্তি, চুক্তিভিত্তিক কর্মরত থাকা ব্যতীত, বৈদেশিক বা বেসরকারি চাকরি বা কোনো প্রকল্পে চাকরি গ্রহণ, অন্য কোনো পেশা গ্রহণ বা ব্যবসা পরিচলনা এবং বিদেশ যাত্রা বা এ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কার্যক্রম; যেমন-নতুন পাসপোর্ট গ্রহণ ও পাসপোর্ট নবায়ন ইত্যাদি ক্ষেত্রে সরকার বা কর্তৃপক্ষের অনুমতির প্রয়োজন হবে না।

০৪। উল্লিখিত বিধান অনুসরণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর/পরিদপ্তর/দপ্তর ও সংস্থাকে অনুরোধ করা হলো।

(কাজী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম)

উপসচিব

ফোন: ০২-৯৫১৪৪৯২

 

অনুমতি নেয়া প্রয়োজন হবে না, ব্যবসা ক্ষেত্রে অনুমতি নিতে হবে না: ডাউনলোড

প্রশ্নোত্তর পর্ব-

প্রশ্ন: চাকরি অবস্থায় কি ব্যবসা বানিজ্য করা যাবে?

উত্তর: না। যদি করতে চান কর্তৃপক্ষের অনুমতি লাগবে।

প্রশ্ন: নন ক্যাডারগণ কি পরিবারকে ব্যবসায় সাহায্য করতে পারবে?

উত্তর: হ্যাঁ। পারবে।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3001 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *