সরকারি কর্মচারি মৃত্যুবরণ করলে পরিবার পাবে ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা।

বাংলাদেশ সরকার সরকারি কর্মচারীদের অক্ষমতা, মৃত্যু বা দাফর কাফনের জন্য অনুদান প্রদান করে থাকে। অক্ষমতার জন্য বর্তমান হার ২ লক্ষ টাকা এবং দাফন কাফনের জন্য ৩০ হাজার টাকা বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ড থেকে সংগ্রহ করতে হয় এবং ৮ লক্ষ টাকার মৃত্যুজনিত অনুদান জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সংগ্রহ করতে হয়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২৯ জুলাই ২০১৬ খ্রি: তারিখের ০৫.০০.০০০০.২৩.০৫.০০১.১৬-৭০০ নম্বর গেজেটের মাধ্যমে সরকার বেসামরিক প্রশাসনে চাকরিরত অবস্থায় কোন সরকারি কর্মচারি মৃত্যুবরণ করলে তাঁর পরিবারের সদস্যদেরকে আর্থিক সহায়তার পরিমাণ ৫ লক্ষ টাকা হতে ৮০০০০০ টাকায় ও গুরুতর আগত হয়ে স্থায়ী অক্ষম হলে সরকারি কর্মচারীর আর্থিক সহায়তার পরিমাণ ২ লক্ষ টাকা হতে ৪ লক্ষ টাকায় এবং চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে তাঁর পরিবারের সদস্যদেরকে দাফন-কাফন বাবদ আর্থিক সহায়তার পরিমাণ ২৫ হাজার টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকার ব্যয় সরকারি কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের অনুকূলে বরাদ্দকৃত প্রচলিত কোড থেকে নির্বাহ করা হবে।

৩। ১ জুলাই ২০১৬ তারিখ হতে মৃত্যু/স্থায়ী অক্ষম হওয়ার ক্ষেত্রে প্রজ্ঞাপনটি কার্যকর হবে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে উপসচিব আলেয়া আক্তার প্রজ্ঞাপনটি জারি করেন।

সারসংক্ষেপ:

  • মৃত্যু জনিত কারণে পূর্বে ৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হতো এখন মারা গেলে ৮ লক্ষ টাকা সরকারি অনুদান পাওয়া যাবে। 
  • গুরুতর আহত বা ইনজুরি হতে পূর্বে ২ লক্ষ টাকা দেওয়া হতো বর্তমানে ৪ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়। 
  • সরকারি কর্মচারী মৃত্যুবরণ করলে তাঁর দাফন কাফনের জন্য পূর্বে ২০ হাজার টাকা দেওয়া হতো বর্তমানে ৩০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। 
  1. আর্থিক সহায়তা সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনটির JPG কপি সংগ্রহে রাখতে পারেন: ডাউনলোড

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২৫ নভেম্বর ২০১৩ সাথে বেসামরিক প্রশাসনে চাকরিরত অবস্থায় কোন সরকারি কর্মকর্তা/কর্মচারী মৃত্যুবরণ এবং গুরুতর আহত হয়ে স্থায়ী অক্ষমজনিত কারণে আর্থিক অনুদান নীতিমালা ২০১৩ জারি করেছে।

  • এ নীতিমালা সরকারি ওো বিধিবদ্ধ সকল প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য হবে।
  • শিক্ষা ছুটি, প্রেষন প্রশিক্ষণ ও সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়ে এ ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে না।
  • মৃত্যু/স্থায়ী অক্ষমতাজনিত কারণে আর্থিক অনুদান প্রদানের নিমিত্ত প্রাপ্ত আবেদনপত্র বাছাইয়ের জন্য এ নীতিমালায় ৫ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কমিটি গঠন করা হয়।
  • এ নীতিমালা মোতাবেক মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে।

কিভাবে বা কোন পদ্ধতি অনুসরণ করে এ অর্থ প্রদান করতে হবে তা নিয়ে সরকার একটি নীতিমালা তৈরি করেছে।

  1. চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরন বা স্থায়ী অক্ষমতাজনিত কারনে আর্থিক অনুদান নীতিমালা: ডাউনলোড
  2. আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদন ফরমটি সংগ্রহ করুন: ডাউনলোড

প্রশ্নোত্তর পর্ব:

  • প্রশ্ন: দাফন কাফনের জন্যও সরকার টাকা দিবে?
  • উত্তর: হ্যাঁ, কর্মচারীকে তো দিবেই। পরিবারের কেউ মারা গেলেও সরকার দাফন কাফনের অর্থ অনুদান দেয়।

  • প্রশ্ন: আহত হলে অনুদান পাওয়া যাবে না?
  • উত্তর: যাবে, নীতিমালা অনুযায়ী গঠিত কমিটি যাচাই বাছার ও তদন্ত শেষে অনুদানের পরিমাণ নির্ধারণ করবেন।

  • প্রশ্ন: অস্থায়ী ভাবে অক্ষম হলে কি পেনশন পাওয়া যাবে না?
  • উত্তর: যাবে। পেনশনতো পাবেনই। সাথে অতিরিক্ত অনুদান হিসাবে ৪ লক্ষ টাকা প্রদান করা হবে।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

115 thoughts on “সরকারি কর্মচারি মৃত্যুবরণ করলে পরিবার পাবে ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা।

  • আমার আব্বা গার্লস স্কুলের নাইড গার্ড থাকা অবস্থায় ২০০৮ সালে মৃত্যু বরণ করেন, আমার পরিবার কি সরকারী কোনো টাকা পাওয়ার আশা করতে পারি???

  • এক্ষেত্রে সে রাজস্বখাতভূক্ত ছিল কিনা দেখতে হবে এবং মৃত্যুর ৬ মাসের মধ্যে আবেদন পেশ করার বিধান রয়েছে। তাছাড়া চাকরি স্থায়ী ছিল কিনা দেখার বিষয় রয়েছে।

  • আত্মহত্তা করলে কি ৮ লাখ টাকাৱ অনুদান পাবে?

  • না। কিন্তু পেনশন পাবেন। আর অনুদানের ব্যাপারটি কর্তৃপক্ষ একটি বোর্ড গঠন করে পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয় যে, কত টাকা দেওয়া যেতে পারে।

  • আমার বাবা সরকারি কর্মকর্তা ২০১৬ সালে অক্টোবর মাসে চাকরী অবস্তায় মারা যায়,,মৃত্যুভাতা পাওয়ার কথা এখন শুনতেছি ২০২০ সালের জুন- জুলাই দিকে এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।তো অফিসের বড় যিনি উনি এই বিষয় নিয়ে চেয়ারম্যান এর সাথে কথা বলবে বলছেন,,,এখন এডমিন স্যার চেয়ারম্যান কি অনুমতি দিবে

  • মৃত্যু ভাতা মানে দাফন কাফন ভাতার কথা বলছেন? নাকি কল্যাণ ভাতার কথা বলছেন?

  • আমার শ্বশুর গত সপ্তাহে মারা গেছেন। তিনি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় মহিলা সংস্থার সেনবাগ উপজেলায় কর্মরত ছিলেন। প্রায় সাতাইশ বছর তিনি চাকরি করেছেন। তিনি সরকারি চাকরিতে কর্মরত অবস্থায় মারা গেছেন, তিনি কী সরকারি কল্যাণ তহবিল এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের তহবিল পাবেন।

  • Pingback:

  • সরকারী রাজস্ব খাতে ২০১৮ সালের অক্টোবরে নিয়োগ পেয়ে ২০২১ সালের জানুয়ারী মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলে কি পরিমান আর্থিক অনুদান পেতে পারে?

  • দুই বছরে তার চাকুরী স্থায়ী করণের শর্ত প্রযোজ্য হবে। যদি স্থায়ীকরণ হয়ে থাকে তবে অবশ্যই পাবেন।

  • চাকরিরত অবস্থায়, অসুস্থতার কারণে চিকিৎসাকালীন মারা গেলে পরিবার থেকে অনুদান পাবে? না কর্তব্যরত অবস্থায় মারা গেলে আর্থিক অনুদান পাবেন??

  • চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেও অনুদান পাবেন। একজন কর্মচারী অবসরে যাওয়ার পূর্বে পর্যন্ত কর্তব্যরত ছিলেন বলেই গণ্য হবে।

  • Pingback:

  • আমার বাবা ১১ নভেম্বর ২০১৫ সালে মারা যান।
    সেক্ষেত্রে কল্যাণতহবিল থেকে ৮ লাখ না কি ৫ লাখ পাবো?

  • তিনি কি চাকরিরত অবস্থায় মারা গেছেন?

  • আমার বাবা ৩ বচর চাকরি থাকতে মারা যায় ২০১৬ সালে, আমরা কল্যাণের টাকা পাইনি এখন কি টাকা পাবো আমরা? প্লিজ বলবেন এ ব্যাপারে।

  • sure. but you have to show proper reason

  • Pingback:

  • আমার বাবা সিপিএফধারী জনতা ব্যাংকের একজন সিকিউরিটি গারড ছিলে। উনি গত ২৪/০১/২০২০ সালে চাকুরীরত অবস্থায় মারা যান।উনার চাকুরী স্থায়ী হয় ২৪/৫/২০১১ সালে। উনি কি এই ৮ লক্ষ টাকা পাবেন।

  • না। এটি শুধুমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের জন্য প্রযোজ্য।

  • আমার মা পি আর এল ব্যতিত মারা জায় অবসরের এক মাসের মাযে আমি কি পাবো

  • অবশ্যই।

  • আমার এক আংকেল উনি প্রাইমারীতে চাকরিরত অবস্থায় মারা গেছেন, ওনার কল্যান ভাতা প্রাপ্যের জন্য সর্ব প্রথম কোন অফিসে কাগজপত্রাদি সাবমিট করতে হবে এবং মঞ্জুরকারী কর্তপক্ষ কে হবেন এবং প্রোসেসিংটা যদি একটু বলতেন উপকৃত হতাম।

  • জেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর সাবমিট করবেন। নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ মঞ্জুর করবেন।

  • ১ বছর পার হলে কি সমস্যা হবে????

  • না। যথাযথ কারণ উল্লেখ করবেন।

  • আমার মামা সাব-রেজিস্ট্রার রাজশাহী সদর থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন মামা দুইটি বিয়ে করেন প্রথম স্ত্রীর দুইটি ছেলে দ্বিতীয় স্ত্রীর একটি ছেলে রয়েছে গত 26 শে মার্চ ঢাকা মেট্রোপলিটন হাসপাতালে মারা যান প্রথম স্ত্রী এবং দ্বিতীয় স্ত্রী কারো সাথে কারো মিল নেই ,তাহলেপ্রথম স্ত্রীর করণীয় কি দ্বিতীয় স্ত্রীর করণীয় কি উক্ত টাকা কিভাবে পাবেন এবং পেনশনের টাকা কিভাবে পাবে দ্বিতীয় স্ত্রী চেষ্টা করতেছ যে মামা মৃত্যুকালে অনেক ঋণ রেখে গেছেন উক্ত টাকা পেলে উনি ঋণ পরিশোধ করবেন আমাকে বিস্তারিতভাবে একটু বলুন কিভাবে আবেদন করব কোথায় আবেদন করব কিভাবে যোগাযোগ করবো

  • আমার মা সরকারী স্কুলের শিক্ষক ছিলেন, এক মাস আগে চাকুরীরত অবস্থায় মারা যান। এখন স্ত্রী মারা গেলে সরকারি অনুদান বা কল্যাণ তহবিলের টাকা স্বামী পায় যেহেতু, কিন্তু উনি(বাবা) আমাদের কোন খোঁজ খবর রাখেন না, টাকা পয়সা বা কোনো ভাবেই না, অথবা টাকা পাওয়ার পর ২য় বিয়ে করতে পারেন, যেখানে সন্তানদের ভবিষৎ অনিশ্চিত। এমতাবস্থায় কোন সন্তান ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে হলে তার নামে কি টাকা আসার ব্যাবস্থা আছে কি না? (মৃত চাকরিজীবীর ২ সন্তান নাবালিকা, ১ জন সাবালিকা)

  • অফিসে যোগাযোগ করুন। অবশ্যই অংশ পাবেন আপনারা।

  • আমার বাবা বাংলাদেশ ডাক বিভাগের একজন সরকারি কর্মচারী ছিলেন। তিনি ২০১৬ সালের ১৩ জুন কর্মতর অবস্থা মৃত্যু বরণ করেন। কোন সরকারি কর্মচারী কর্মরত অবস্থায় অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে যে ৮ লক্ষ টাকা তার পরিবারকে প্রদান করা হবে তার আওতায় পড়বে কি? যদি জানাতেন উপকৃত হতাম

  • ডাক অধিদপ্তর একটি র্পূনাঙ্গ পিওর সরকারি প্রতিষ্ঠান। অবশ্যই আপনার বাবা এর আওতায় পড়েন। কিন্তু এতোদিন কেন আবেদন করেননি এ প্রশ্নের সম্মুখীন হবেন তবুও দপ্তরে যোগাযোগ করুন।

  • পেনশনারের বাবা মা মারা গেলে স সে কি দাফন কাফনের টাকা পাবে ?

  • অবশ্যই পাবেন। কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড বরাবর যথাযথ অফিসের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

  • আমার বাবা মারা গেছে আজ ৫ বছর হলো।।।তিনি একটি সরকারী হাসপালের চাকুরী করতেন।। কিন্তু আমরা এখনও আট লক্ষ টাকার অনুদান আজও পাইনি।। এ অনুদান পাওয়ার জন্য আমার এখন কি করতে পারি।।।বিষয়টা যদি একটু বুঝিয়ে দিতেন তাহলে খুব উপকৃত হতাম।।।

  • আগে খোজ নিন তিনি রাজস্ব খাতভূক্ত ছিলেন কিনা। যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডে আবেদন করতে হবে।

  • আসসালামুয়ালাইকুম।আট লাখ টাকা পাওয়ার জন্য যে আবেদন ফরম দিয়েছেন তার জন্য ধন্যবাদ।এই আবেদন ফরমের সাথে কি কি সংযুক্ত করতে হবে তা জানালে উপকৃত হতাম।

  • অনুদানের ফরমের নিচে দেয়া আছে। তারপরও বলি, কর্মচারী ও তার পরিবারের এনআইডি, মৃত্যু সনদ, ক্ষমতাঅর্পন ফরম, ওয়ারিশ নামা, ছবি ইত্যাদি অফিসে যোগাযোগ করলে এর একটি লিস্ট পাবেন।

  • আমার মা একজন সরকারি হাসপাতালের রাজস্ব কর্মচারী ছিলেন। তিনি ০৭ জুলাই ২০২১তাং অবসর গ্রহন করেন এবং মাসিক ফুল এক বছরের বেতন গ্রহন করার পূর্বে অর্থাৎ এগার মাসের বেতন তোলার পর এক মাস হাতে থাকতেই অসুস্থ হয়ে মৃত‍্যু বরন করেন ০৪ জুলাই ২০২১তাং তিনি কি কল‍্যান তহবিলের আট লক্ষ টাকা পাবেন এবং দাফন কাফন এর সুবিধা যদি বলেন উপকৃত হবো।

  • পাবেন না। অবসর উত্তর ছুটিতে ছিলেন তাইতো। তবে যদিও কর্মকালীন থাকার কথা বলা হয়েছে। তবুও আপনি আবেদন করুন। আমার জানা মতে একজন এ রকম অবস্থায় পেয়েছেন। পিআরএল মানে অবসর উত্তর ছুটি, অতীতে এলপিআর ছিল এ সব কারণেই পিআরএল করা হয়েছে। আবেদন করে দেখুন।

  • স্বশাসিত কিংবা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা কর্মচারী পাবে

  • আমার বাবা বাংলাদেশ রেলওয়েতে ছিলেন চাকরির বয়স 43 বছর উনি গত ১৩-২-২১ কর্মস্থলে কর্তব্যরত অবস্থায় মারা যান আমরা কি এই অনুদানের আওতাভুক্ত হব আমার মায়ের সাথে উনার ছাড়াছাড়ি হয় 2006 সালে এখন সে ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে হবে

  • না। তিনি এই অনুদানের আওতাভূক্ত নয়।

  • আমার ভাই ২১/৬/২০২১ সালে মারা গেছেন। তিনি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ছিলেন,তিনি নিঃসন্তান ছিলেন। তার ৮০০০০০ টাকা কারা পাবেন?

  • আমার ভাই প্রাইমারি স্কুলের সহকারি শিক্ষক চাকুরিরত অবস্থায় মারা গেছেন,স্ত্রী আছেন,সন্তান নেই,মা একভাই,দুইবোন রয়েছে,অনুদানের 800000 টাকার বন্টণ বর্তমান নিয়মে কিভাবে হবে?

  • সরকারি চাকুরিরত অবস্থায় আমার ভাই মারা গেছেন, তিনি নি:সন্তান, স্ত্রী,মা,একভাই দুইবোন রয়েছে অনুদানের আটলক্ষ টাকার বন্টণ কিভাবে হবে?

  • আমার বাবা চাকরিরত অবস্থায় মারা গেছে। নমীনি আমার মায়ের নামে।আমার বাবা আর একটি বিয়ে করেছন এ ক্ষেত্রে পেনশনের টাকা কিভাবে বন্টন হবে।

  • সাময়িক বরখাস্ত অবস্থায় মারা গেলে কি টাকা পাবে?

  • মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য কর্তৃপক্ষকে আবেদন দিলে ৬ মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। অবশ্যই পাবেন যদি চাকরি বহাল হয়।

  • আসসালামুয়ালাইকুম। আমার শ্বশুর গত 7 আগস্ট 2021 করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি অগ্রণী ব্যাংকে চাকরিরত অবস্থায় ছিলেন। মৃত্যুকালে তার চাকুরির বয়স হয়েছিল 27 বছর তিন মাস। তিনি 2026 সালের 31 শে ডিসেম্বর অবসরে যাওয়ার কথা। তিনি কি জনপ্রশাসন অনুদান বাবদ 8 লক্ষ টাকা পাবেন।

  • আসসালামুয়ালাইকুম। আমার শ্বশুর গত 7 ই আগস্ট 2021 উনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অগ্রণী ব্যাংকের অফিসার পদে চাকরিরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে উনার চাকরির বয়স হয়েছিল 27 বছর তিন মাস। তিনি 2026 সালের 31 ডিসেম্বর অবসরে যাওয়ার কথা। তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অনুদান বাবদ 8 লাখ টাকা এটা কি পাবেন দয়া করে জানাবেন।

  • আসসালামু আলাইকুম।
    আমার বাবা জনতা ব্যাংকে দীর্ঘ ৩৩বছর কর্মরত ছিলেন। পদবী কেয়ার টেকার (গার্ড)। তিনি গত ০২/০৫/২১ তারিখে মৃত্যুবরন করেন। আবসর উত্তর ছুটিতে ছিলেন। তিনি কি উক্ত সুবিধা পাবেন।
    দয়া করে জানাবেন।
    আরেকটা বিষয় হলো, আমার বাবার কর্মচারী গৃহনির্মাণ ঋন ছিলো ২৭ লক্ষ টাকা, যাহার সুদ প্রায় ১১ লক্ষ টাকা কর্তন করা হয় মুল পেনশন থেকে।
    সুদ কি মওকুফ করা যাবে।
    ধন্যবাদ।

  • রাষ্ট্রাত্ত প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। এটি শুধু সরকারি ও সাংবিধানিক প্রতিস্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। পাারিবারিক অবস্থার প্রেক্ষিতে সরকার বা কর্তৃপক্ষ চাইলে ঋণের অংশ বা পূর্ণ ঋণ মওকুফ করতে পারেন। আবেদন করে দেখতে পারেন।

  • আমার শশুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে মহড়ার পদে 4 বছর তিন মাস রাজস্ব খাতে চাকরি অবস্থায় মারা গেছেন। তিনি কি পেনশন ও মৃত্যুদাবির টাকা পাবে দয়া করে জানান?

  • অবশ্যই পাবেন। সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান।

  • আমার শ্বশুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে রাজস্ব খাতে 4 বছর 3 মাস চাকরিরত অবস্থায় মারা যান। আমার জানামতে পাঁচ বছরের নিচে কেউ পেনশনের আওতায় পড়েন না। তাহলে কি উনার পরিবার পারিবারিক পেনশন পাবেন?

  • না। আমার জানা মতে ৬ মাস প্রমার্জন করা হয়। কিন্তু তাতে ৫ মাস পূর্ন হয় না। তবে তিনি তিনটি মূল বেতন পাবেন। তবে সরকারি কর্মচারিদের জন্য যে ক্ষতিপূরণ সেটি কিন্তু পাবেন। সরকারি কর্মচারি মৃত্যুবরণ করলে পরিবার পাবে ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা।

  • আমার বাবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।কিছু দিন হয়েছে মারা গেছেন কিন্তু আমার বাবার দাফনের জন্য মাত্র 10 হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।উল্লেখ যোগ্য হলো দাফনের জন্য তো 30 হাজার টাকা বরাদ্দ কিন্তু আমাদের তো 10 হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে

  • আমার বাবা ২০১৯ সালে আগষ্ট এর ৩০ তারিখ মারা যায়।তার চাকরি আরো ১০ বছর ছিলো। কিন্তু সে এখন ও কল্যান তহবিল এর কোনো টাকা পায় নাই।এর জন্য জন্য কোনো উপায় কিছু আছে বলবেন।সে ছিলো বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোডের একজন কমচারী।।।

  • আমার বাবা ২০১৯ সালে আগষ্ট এর ৩০ তারিখ মারা যায়।তার চাকরি আরো ১০ বছর ছিলো। কিন্তু সে এখন ও কল্যান তহবিল এর কোনো টাকা পায় নাই।এর জন্য জন্য কোনো উপায় কিছু আছে বলবেন।সে ছিলো বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোডের একজন কমচারী।।।

  • তিনি স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন, আমার জানামতে তাই এই ভাতা প্রাপ্য নয়।

  • সঠিক ফরমে আবেদন করুন। বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ডের ওয়েবসাইটে গিয়ে ফোন করে সঠিক তথ্য জানুন।

  • আমার মা ১০ গ্রেডের সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি 8 august 2021 এ মৃত্যু বরন করেন ।তিনি কি অর্থমন্ত্রনালয়ের বরাদ্দকৃ্ত ক্ষতিপুরন হিসাবে ৩৭ লক্ষ টাকা পাবেন ?

  • কি কারণে মারা গেছেন?

  • তিনি করোনায় মারা গেছেন।

  • আমার জানামতে এটি স্থাগিত রয়েছে। শুধুমাত্র নার্সিং ডিপার্টমেন্টে চলমান দেখেছি

  • সরকারি শিক্ষকদেরকে কি এ ক্ষতিপুরন দেয় না।

  • আমার জানামতে পায়নি। তবে কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের ৮ লক্ষ ৩০ হাজার এটি পাবেন।

  • আমার শ্বশুর প্রাইমারী স্কুলের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। তিনি ৩১ আগষ্ট ২০২১ সালে মারা যান। তিনি পি আর এল অবস্হায় ছিলেন।তিনি কি ৮ লাখ টাকা পাবেন।এই বিষয়ে স্পষ্টভাবে কিছু বলা নেই।আমার জানামতে আপনার পরিচিত একজন পেয়েছেন।তার সাথে যদি যোগাযোগ এর ব্যবস্হা করে দিতেন,খুবই উপক্রিত হতাম।

  • পাবে না ভাই। শুধু মৃত্যু জনিত ২ লক্ষ টাকা অনুদান পাবেন। ৫ লক্ষ টাকার অনুদান পেতে চাকরিকালীন হতে হবে। আমি মনে হয় আপনাকে বলেছি পিআরএল কালীন মৃত্যুতে শুধুমাত্র কর্মচারীকল্যাণ বোর্ড থেকে দাফন ও ২ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে। পূর্বে এটি ১ লক্ষ ছিল।

  • আমার বাবা জনতা ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার। গত ১৪/০৯/২০২১ তারিখে ক্যান্সার আক্রন্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করে। ২৯/০৯/২০২১ তারিখে ওনার পিআরএল -এ যাওয়ার কথা। এখন ওনি চাকুরত অবস্থায় মারা যাওয়ার কারণে ৮ লক্ষ টাকা কি আর্থিক অনুধান পবে? বা কি অন্য কোন আর্থিক অনুধান পাবে?

  • ব্যাংকগুলো রাষ্ট্রায়াত্ত প্রতিষ্ঠান। এগুলোতে প্রাপ্য নয়। পিওর সরকারি প্রতিষ্ঠান হতে হবে।

  • আমার বাবা বাংলাদেশে রেলওয়েতে চাকুরী করতেন। পি আর এল ভোগরত অবস্থায় তিনি মারা যান। এক্ষেত্রে কি উক্ত ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার ভাতা আমার মা পাবেন? তবে অফিসে খোঁজ নিয়ে এও শুনেছি যে, রেলওয়ে স্টাফরা উক্ত ভাতা পান না। এই ব্যাপারে একটু ডিটেইল জানালে উপকৃত হতাম।

  • না। এটি শুধুমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য প্রযোজ্য নয়।

  • আমার বাবা আত্মহত্যা করে মারা যান।তিনি কি কল্যান ভাতা পাবেন?আর না পেলে পেনশন এর টাকা পরিবারবর্গদের কাছে আসতে কত সময় লাগবে?

  • যেভাবেই মারা যাক। পেনশন পাবেন এবং অন্যান্য সুযোগ সুবিধাও পাওয়ার কথা। আপনি আবেদন করে দেখুন। ৬ মাসের মত সময় লাগে।

  • ভাই আমার বোন স্বস্থ্য কমপ্লেক্স এ চাকুরি করতেন গত 9/6/21 ইং তারিখে ক্যানসার এর কারনে মারা যায় কল্যান তহবিলের 800000/- টাকার ভাতা জন্য কি তার স্বমী কে আবেদন করতে হবে। না তার পিতা করতে পারবে। এ সম্পকে সঠিক তথ্যটি আমাকে জানালে খুব উপকার হয়।

  • অবশ্যই স্বামীকে করতে হবে।

  • আমার বাবা ঢাকা ওয়াসারে চাকুরিরত অবস্তায় মারা গেছেন,তিনি কি মৃত্য অনুদান পাবেন?

  • আমার বাবা ১বছর চার মাস হলো মারা গেছেন। মৃত্যুর অনুদানের জন্য আবেদন করা হইছে।কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা টাকা পাইনি। আমার প্রশ্ন এই টাকার দেওয়ার সময় কত দিন

  • এটি প্রসেস করতে একটু সময় লাগে। ৩ মাসের মধ্যেই পাওয়া যায়। প্রতি ১৫ দিন পর পর সভা বা মিটিং বসে।

  • আমার বাবা সোনালি ব্যাংক এ চাকরিরত অবস্থায় মারা যায়। আমরা কি ৮ লক্ষ টাকা পাবেন নাকি?৫ লক্ষ??

  • না। সোনালী ব্যাংক পিওর সরকারি প্রতিষ্ঠান নয়। এটি রাষ্ট্রয়াত্ত বা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান।

  • আমার আব্বু মারা গেছে 9/12/2020 আমরা এখনো কোনো দেয়া আগাতে পারিনি। যৌথ কল্যাণ ও দাফন এর জন্য অনলাইনে আবেদন করতে গিয়েছি সেখানে ইস্যু নম্বর চেয়েছে ইস্যু নম্বরটা কি হবে এবং সোনালী ব্যাংকের কথা উল্লেখ করেছে কল্যাণ এর জন্য আমাদের সোনালী ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট নেই জনতা ব্যাংকে আছে এখন যদি একটু সাহায্য করে বলতেন না কি করতে পারি।

  • শেষ কর্মস্থলে গেলেই ইস্যু নম্বর পাবেন। সোনালী ব্যাংকে একাউন্ট খুলে একাউন্ট নম্বর দিন তাদেরকে।

  • আমার বাবা গতি ২/১১/২১ খ্রি তারিখে চাকুরিরত অবস্থায় মারা যায়। তিনি উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়, এলজিইডি, খানসামা, দিনাজপুরে চাকুরিরত অবস্থায় মারা যায়। আর মাত্র ১ বছর কয়েক মাস চাকুরি ছিল। তিনি কি ৮০০০০০ টাকা পাবে?

  • পিওর সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো শুধু প্রাপ্য হবেন। এক্ষেত্রে তিনি পাওয়ার কথা।

  • আমার বাবা ২০০৬
    মারা যান উনি মা মাসিক পেনশন পান তা হলে আমার মা কি আট লাখ টাকা পাবে

  • কর্মরত অবস্থায় মারা যেতে হবে এবং সম্পূর্ণ সরকারি সংস্থায় কর্মরত থাকতে হবে।

  • সরকারী চাকরি পাওয়ার ৬ মাসের মধ্যে মারা গেলে তার পরিবার কি কোন সুযোগ সুবিধা পাবে? চাকরি স্হায়ী না হয়ে।

  • আমার বাবা ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এ রাজশ্ব বিভাগ, অঞ্চল -1, অফিস সহায়ক, চাকুরীরত অবস্থায় মারা যায় অসুস্থতার কারণে 05/02/2022 তারিখে. আমরা ওয়ারিশ -আমার মা, আমরা 3 ভাই বোন, 1 ভাই 2 বোন. কিন্তু আমার বাবার 2 টি পরিবার. তিনি পরবর্তীতে আরেকটি বিয়ে করে. সেই পরিবারে আরেকটি ছেলে আছে. এখন এই আবেদন আমরা করলে কি আমরা টাকা পাবো?

  • না। কর্পোরেশনগুলো এর আওতায় নাই।

  • আমার বাবা একজন প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সরকারি কর্মচারী ছিলেন। সরকারি কর্মরত অবস্থায়। শারীরিক অসুস্থতার কারণে চিকিৎসকের চিকিৎসা নেওয়ার পরে। তিনি গত 14 ই ফেব্রুয়ারি 2022 সালে ইন্তেকাল করেন। এখন সরকারি কল্যাণ তহবিল থেকে কি কি সহযোগিতা পেতে পারে এবং কি কি তথ্য লাগবে। সে বিষয়ে যদি একটু জানাতেন।

  • আমার বাবা একজন প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সরকারি কর্মচারী ছিলেন। সরকারি কর্মরত অবস্থায়। শারীরিক অসুস্থতার কারণে চিকিৎসকের চিকিৎসা নেওয়ার পরে। তিনি গত 14 ই ফেব্রুয়ারি 2022 সালে ইন্তেকাল করেন। এখন সরকারি কল্যাণ তহবিল থেকে কি কি সহযোগিতা পেতে পারে এবং কি কি তথ্য লাগবে।

  • ২ লক্ষ টাকা বীমা তহবিল, মাসিক ২ হাজার টাকা কল্যাণ ভাতা , ৮ লক্ষ টাকা অনুদান এবং ৩০ হাজার টাকা দাফন কাফন। সরকারি পেনশন, আনুতোষিক, জিপিএফ, লাম্পগ্র্যান্ট এই তো।

  • ২ লক্ষ টাকা বীমা তহবিল, মাসিক ২ হাজার টাকা কল্যাণ ভাতা , ৮ লক্ষ টাকা অনুদান এবং ৩০ হাজার টাকা দাফন কাফন। সরকারি পেনশন, আনুতোষিক, জিপিএফ, লাম্পগ্র্যান্ট এই তো। মাসিক পেনশন তো আজীবন আপনার মা পাবেনই।

  • আমার বাবা গত ৭ই মার্চ ২০২২ইং চিকিতশাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তিনি গনপূর্ত অধিদপ্তরে কার্যভিত্তিক (ওয়ারকচার্জ) এ কর্মরত অবস্থায় ইন্তেকাল করেন এবং কোর্ট হতে রায় হয়েছে তাদের নিয়মিত করার জন্য যা মন্ত্রনালয়ে পক্রিয়াধীন। এমতাবস্থায় আমরা কি কি সহায়তা পেতে পারি ।আমরা কোথায় যোগাযোগ করবো ।

  • নিয়মিত করণ হলেই পাবেন। অন্যথায় খুবই সামান্য সাহায্য পেতে পারেন। তাও কর্তৃপক্ষের ইচ্ছায়।

  • মৃত ব্যক্তির যদি ১ম পরিবারে একটি ছেলে থাকে এবং দ্বিতীয় পরিবারে স্ত্রী সহ তিন কন্যা থাকে তাহলে ৮ লক্ষ টাকা কে কি হারে পাবে?

  • ছেলের বয়স?

  • আমার বাবা একজন হাই স্কুলের ছিলো। ২০১৮ সালে স্কুলটি সরকারী হয়।। গত ২১/০৪/২২ ইং তারিখ আমার বাবা হটাৎ মারা যান । তার আরো ৭/৮ বছর চাকরি ছিলো। এখন কী ৮ লাখ টাকা পাবো…??

  • অবশ্যই পাবেন। তার চাকরি যদি পেনশনযোগ্য চাকরিকাল ৫ বছর অতিক্রম করে এবং স্থায়ী করণ হয়ে থাকে তবে অবশ্যই পাবেন।

  • স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে ২ বছর ১০ মাস চাকরি করে মারা গেছেন। কিন্তু চাকরি স্থায়ী হয়নি।তাহলে কি কি সুবিধা পাবে পরিপত্র সহ দিলে উপকৃত হতাম।

  • না। এটি স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রযোজ্য নয়।

  • amar baba jail police a cakri korten.tini 2015 sale cakri kalin somoye cancer a mara jan.tini ki 5 lakh takar unudanta paben.tokon tar cakrir boyesh cilo 14 bosor.

  • চাকরিরর বয়স ২ বছর পূর্ণ হলেই পাবেন। কারা অধিদপ্তর এ সুবিধার আওতাধীন রয়েছে। তিনি অবশ্যই পেতে কিন্তু মৃত্যুর ৬ মাসের মধ্যে আবেদন করতে হয়। কেন আবেদন করেননি এ মর্মে প্রত্যয়নপত্র সর্বশেষ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক স্বাক্ষর করিয়ে ট্রাই করে দেখতে পারেন।

  • আমার বড় ভাই বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী ব্যাটালিয়ন আনসার স্থায়ী পদে চাকরীরত অবস্থায় গত ০১/০৩/২০২০খ্রিঃ তারিখে মৃত্যুবরণ করেছেন তার পরিবারকি কি ৮ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার অনুদান পাবেন। আর কি ভাবে পেতে পারি তার সমধান বলে দিবেন প্লিজ।

  • না। এই অনুদান পেতে সম্পূর্ণ সরকারি বা রাজস্বখাতভূক্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী বা কর্মকর্তা হতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.