সঞ্চয়পত্রে মুনাফার হার কমানো হয়েছে। এখন তিন হারে মুনাফা প্রযোজ্য হয়। স্ল্যাবভিত্তিক মুনাফা তিন ধাপে প্রদান করা হয়। ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত মুনাফা সকল সঞ্চয়পত্রে একই রাখা হয়েছে। বড় বিনিয়োগকারীদের জন্য মুনাফার হার কমে যাওয়ার কারণে কিছু ক্ষতি হলেও ছোট বিনিয়োগকারী বা সঞ্চয়কারীদের মুনাফা কমার কারণে কোন সমস্যা হয়নি। যদি আপনার বিনিয়োগ ১৫ লক্ষ টাকা ক্রস না করে থাকে তবে আপনি মুনাফা নিয়ে চিন্তা করবেন না। দেশের যে কোন ব্যাংক ডিপোজিট, ফিক্সড ডিপোজিট বা শেয়ার বাজার, ব্যবসা ছাড়া নিরাপত্তা বিনিয়োগ হচ্ছে সঞ্চয়পত্র।

বিভিন্ন সঞ্চয়পত্রে বর্তমান মুনাফার হার কত?

সঞ্চয়পত্রে বর্তমান মুনাফার হার

পরিবার সঞ্চয়পত্র নিয়ে আরও একটু পরিস্কার হওয়া যায় যে, ১৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগে ১১.৫২% মুনাফা প্রাপ্য হবেন ৫% মেয়াদ পূর্ন করলে অন্যথায় ভিন্ন রেট প্রযোজ্য। ১৫ লক্ষ টাকার উপরে কিন্তু ৩০ লক্ষ টাকার নিচে বিনিয়োগ হলে পাবেন ১০.৫০% হারে মুনাফা মেয়াদান্তে কিন্তু ৫ বছর পূর্ণ করার পূর্বে ভাঙ্গলে ভিন্ন রেট প্রযোজ্য। ৩০ লক্ষ টাকার উপরে বিনিয়োগ থাকলে ৯.৫০% হারে মুনাফা প্রাপ্য হবেন। সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের সর্বোচ্চ সীমা ২০২৩

প্রতিলক্ষ টাকা বিনিয়োগে মুনাফার হার ২০২৩

সঞ্চয়পত্র মুনাফার হার ২০২২

২ লক্ষ টাকার নিচের সঞ্চয়পত্র কিনলে টিআইএন সার্টিফিকেট প্রয়োজন পড়বে না। মোট বিনিয়োগ ২ লক্ষ টাকা ক্রস করলেই টিআইএন সার্টিফিকেট প্রয়োজন পড়বে। টিন সার্টিফিকেট তৈরি করা কোন জটিল বিষয় নয়। কোন কম্পিউটারের দোকান হতেই আপনি টিআইএন সার্টিফিকেট করে নিতে পারেন। যদি আপনি অনলাইন সম্পর্কেে কিছুটা ধারণা রাখেন তবে আপনি নিজেই টিন সার্টিফিকেট তৈরি করে নিতে secure.incometax.gov.bd/TINHome এই লিংক ভিজিট করুন।

১০ হাজার টাকার সঞ্চয়পত্র ক্রয় করা যাবে?

জি আবশ্যই যদি আপনার মাত্র ১০ হাজার টাকাও থাকে তা দিয়ে আপনি সঞ্চয়পত্র ক্রয় করতে পারবেন। ১৫ লক্ষ টাকার নিচে হলে পরিবার সঞ্চয়পত্রে আপনি ১১.৫২% মুনাফা পাবেন। স্বল্প অর্থ বলে হয়তো আপনি ব্যাংক একাউন্টে ফেলে রাখেন এবং এতে যে মুনাফা আসে তা খুবই সামান্য। তাই অলস অর্থ ফেলে না রেখে সঞ্চয়পত্র বিনিয়োগ করুন তা কম হলেও।

আমি ৫০ লক্ষ টাকার সঞ্চয়পত্র কিনতে চাই তা কি পারবো?

জি আপনি সকল সঞ্চয়পত্র মিলিয়ে ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সঞ্চয়পত্র কিনতে পারবেন। যদি আপনি পুরুষ হয়ে থাকেন তবে ৩ মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কিনতে পারবেন এবং অবশিষ্ট ২০ লক্ষ টাকার বাংলাদেশ সঞ্চয়পত্র কিনতে হবে। যদি সরকারি চাকরিজীবী হউন তবে আপনি পেনশনার সঞ্চয়পত্র একবারে ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কিনতে পারবেন।

যদি আপনি মহিলা হয়ে থাকেন তবে ৪৫ লক্ষ টাকার পরিবার সঞ্চয়পত্র এবং অবশিষ্ট অর্থ অর্থাৎ ৫ লক্ষ টাকার ৩ মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র কিনতে পারবেন। অবশিষ্ট ৫ লক্ষ টাকার উপর তিনমাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্রের ৩০ লক্ষ টাকার উপরের যে রেট থাকবে সেটি প্রযোজ্য হইবে। সঞ্চয়পত্র স্ল্যাব ভিত্তিক মুনাফা নির্ধারণ করার নিয়ম ২০২৩

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3010 posts and counting. See all posts by admin

8 thoughts on “সঞ্চয়পত্র মুনাফার হার ২০২৩ । ৫০ লক্ষ টাকা রাখলে তিনটি ধাপে মুনাফা পাওয়া যাবে

  • আমার এলাকার পোস্ট মাস্টার বলে এখন সবকিছু বন্ধ করে দিয়েছে সরকার

  • আরে না। ব্যাংকে যোগাযোগ করুন। সঞ্চয়পত্র বিক্রি কমে যাচ্ছে বলে চিন্তিত রয়েছে সরকার। বিক্রি চালু আছে। ডাকঘর সঞ্চয়পত্র এখন ব্যাংকে পাওয়া যায়।

  • মানুষের আন্তরিক বিশ্বাস যোগানো দরকার. ধন্যবাদ

  • একটা বিষয় আমি ক্লীয়ার হতে চাই।
    আমি যদি একসাথে ৫০ লক্ষ টাকার পেনশনার সঞ্চয় পত্র ক্রয় করি তাহলে কি প্রথম বছরে 8.04% হারে মুনাফা পাব?
    যদি তাই হয় তাহলে একসাথে না রেখে তিনভাগে যদি ১৫+১৫+২০ রাখি তাহলে মুনাফা বেশি পাব বলে মনে হয়।
    কোন পদ্ধতিটা বেশি লাভজনক একসাথে রাখা নাকি তিন ধাপে রাখা?
    দয়া করে জানাবেন?

  • একসাথে রাখলেও তিন ধাপে হিসাব হবে।

  • ত্বরিৎ উত্তর দেয়ার জন্য ধন্যবাদ। ৫০ লক্ষ টাকার পেনশনার সঞ্চয়পত্র একসাথে রেখেছিলাম। তিনমাস পর মুনাফা পেলাম ১,০৯,৬৮৭.৫০। আমাকে মনে হয় ফ্লাট রেটে মুনাফা দেয়া হয়েছে। তিন ধাপে নয়। এটা কি ভুল হয়েছে? যদি হয় তাহলে কীভাবে প্রতিকার পাব? দয়া করে জানাবেন?

  • অবশ্যই তিন ধাপে পাবেন। না পেলে যোগাযোগ করবেন। আরও একমাস দেখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *