সাময়িক বরখাস্তের পুনর্বহাল: খোরাকী ভাতা ছুটিকালীন বেতনের সহিত সমন্বয় করিতে হইবে।

সরকারী কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপীল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর বিধি-১৩ এর উপবিধি (২) এর বিধানমতে সাময়িক বরখাস্তের পর পুনর্বহাল বাংলাদেশ সার্ভিস রুলের বিধান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হইবে। এই সম্পর্কে বিএসআর. পার্ট-১ এর ৭২ নং বিধিতে বলা হইয়াছে যে, সাময়িক বরখাস্তকৃত কোন কর্মচারীর সাময়িক বরখাস্ত অন্যায্য হইলে বা সম্পূর্ণ ন্যায় সংগত না হইলে দন্ড আরোপকারী কর্তৃপক্ষ, আপীলেট কর্তৃপক্ষ বা আদেশ সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষ উক্ত কর্মচারীকে নিম্নোক্ত সুবিধাদি মঞ্জুর করিতে পারিবেন-

(ক) অভিযোগ হইতে সসম্মানে অব্যাহতি পাওয়ার ক্ষেত্রে পূর্ণ বেতন ও ভাতাদি মঞ্জুর করিতে পারিবেন। এইক্ষেত্রে অনুপস্থিতকাল কর্মকাল হিসাবে গণ্য হইবে।

(খ) সসম্মানে অব্যাহতি ব্যতীত অন্যান্য ক্ষেত্রে বেতন ও ভাতাদির কি পরিমাণ প্রদান করা হইবে, সে সম্পর্কে আদেশ দিতে হইবে। ইহা ছাড়া অনুপস্থিতকাল কর্মকাল হিসাবে নাকি ছুটি হিসাবে গণ্য হইবে, সে সর্ম্পকে আদেশ দিতে হইবে। ইহা ছাড়া অনুপস্থিতকাল কর্মকাল হিসাবে নাকি ছুটি হিসাবে গণ্য হইবে, সে সম্পর্কেও আদেশ দিতে হইবে। ছুটি হিসাবে গণ্য করা হইলে, উক্ত ছুটি “ছুটির হিসাব” হইতে বাদ যাইবে। প্রদত্ত খোরাকী ভাতা ছুটিকালীন বেতনের সহিত সমন্বয় করিতে হইবে। তবে এই সময়কে অসাধারণ ছুটি হিসাবে গণ্য করা হইলে ইতোমধ্যে প্রদানকৃত খোরাকী ভাতা সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর নিকট হইতে আদায় করা যাইবে না।

admin

আমার ব্লগের কোন কন্টেন্ট সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বা জানাতে ইমেইল করতে পারেন admin@bdservicerules.info ঠিকানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.