ডাক জীবন বীমা-একটি সঞ্চয় স্কিম ও বীমা প্রকল্প।

বাংলাদেশ সরকারের বাংলাদেশ ডাক বিভাগ জনগণের নিরাপত্তার জন্য চালু করেছে ০৭ রকমের বীমা পরিকল্প।

এদের মধ্যে রয়েছে আজীবন বীমা, মেয়াদী বীমা, এন্ডোমেন্ট বীমা, শিক্ষা বীমা, বিবাহ বীমা, যৌথ বীমা ও প্রতিরক্ষা বীমা। ১৯৮৪ সালে প্রবর্তিত রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টিযুক্ত একটি সঞ্চয় স্কীম ও বীমা প্রকল্প। বীমা দলিল চুক্তিতে মহামান্য রাষ্ট্রপতির পক্ষে সহি প্রদান করা হয়।

ডাক জীবন বীমা

  • ডাক জীবন বীমা সরকার কর্তৃক ১৮৮৪ সালে প্রবর্তিত একটি সঞ্চয় ও বীমা প্র্রকল্প ।
  • বর্তমানে Post office Insurance Fund Rules (POIF Rules) দ্বারা ডাক জীবন বীমা পরিচালিত হচ্ছে।
  • বীমা দলিল চুক্তিতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর মহামান্য রাষ্ট্রপতির পক্ষে সহি প্রদান পূর্বক সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি প্রদান করা হয়ে থাকে ।
  • ডাক জীবন বীমা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক পরিচালিত এবং বাংলাদেশ ডাক বিভাগের অন্যতম একটি এজেন্সী সার্ভিস।
  • অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীন সম্পদ বিভাগের পক্ষ থেকে কেবলমাত্র বাংলাদেশ ডাক বিভাগ এ সার্ভিসটি পরিচালনা করে থাকে।
  • অর্জিত বীমা তহবিল থেকে সরকার লাভ বা লোকসানের কোন অংশই গ্রহণ করেন না ।
  • এই তহবিলের সমস্ত টাকা সরকার আপন জিম্মায় রাখেন এবং শুধু মাত্র বীমা কারীদের উপকারার্থে এর তহবিল ব্যবহার করা হয় ।
  • মেয়াদ শেষে আজীবন বীমার ক্ষেত্রে বছরে প্রতি এক লক্ষ টাকায় ৪,২০০/- টাকা এবং মেয়াদী বীমার ক্ষেত্রে বছরে প্রতি ০১ লক্ষ টাকায় ৩,৩০০/- টাকা হারে বোনাস প্রদান করা হয়।

যারা ডাক জীবন বীমা করতে পারেন

  • উপার্জনক্ষম বাংলাদেশের সকল স্থায়ী নাগরিক
  • বে-সরকারি, সরকারি, আধা-সরকারি ও স্বায়ত্ত শাসিত সংস্থার কর্মচারীগ।
  • পদাতিক, নৌ এবং বিমানবাহিনীর সৈন্যগণ।
  • বেসামরিক সশস্র বাহিনী, যেমন- বিজিবি, কোস্টগার্ড, আনসার, পুলিশ ইত্যাদি।

ডাক জীবন বীমার প্রকারভেদ/ পলিসিসমুহঃ

  • জীবন চুক্তি/ আজীবন বিমাঃ ৫০-৭০ বছর বয়স অথবা মৃত্যু, যাহা আগে ঘটে; তবে প্রাপ্য টাকা তার উত্তরাধিকারীগণ বিমাকারীর মৃত্যুর পর প্রাপ্য হবেন।
  • মেয়াদী বিমাঃ (২)(ক) নির্দিষ্ট বয়স ভিত্তিক বীমাঃ নির্দিষ্ট বয়স ভিত্তিক বীমা যেমন – ৩৫, ৪০, ৪৫, ৫০, ৫৫, ৬০ বছর। এক্ষেত্রে মেয়াদ পূর্তির পূর্বে বিমা কারী মৃত্যু বরন করলে তার উত্তরাধিকারীগণ টাকা প্রাপ্য হবেন। আবার বীমাকারী বেচে থাকলেও মেয়াদ পূর্তিতে নিজেই টাকা প্রাপ্য হবেন
  • (খ) নির্দিষ্ট সময় ভিত্তিক বীমাঃ এই বিমা ৫, ১০, ১৫, ২০, ২৫, ৩০ এবং ৪০ বছরের নির্দিষ্ট সময়ের জন্য গ্রহণ করা হয়।
  • মেয়াদী শিক্ষা ও বিবাহ বীমাঃ বীমাকারীর সন্তানের শিক্ষা ও বিবাহের ব্যয় নির্বাহের জন্য এই বীমা গ্রহণ করা জেতে পারে।
  • প্রতিরক্ষা বীমাঃ বাংলাদেশ সশস্র/ প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যগণ (যেমনঃ সেনাবাহিনী, বিজিবি, নৌ ও বিমান বাহিনী) ৫, ১০, ১৫, ২০, ২৫, ৩০ এবং ৪০ বছরের নির্দিষ্ট সময়ের জন্য এই বীমা গ্রহণ করতে পারেন। বর্তমানে ঊর্ধ্ব সীমা ৩,০০,০০০/-, তবে এই ঊর্ধ্ব সীমা ২৫,০০,০০০/- পর্যন্ত বৃদ্ধির বিষয়ে প্রক্রিয়াধীন আছে।
  • আকস্মিক মৃত্যু ও চির অক্ষমতার মঙ্গল বিধান চুক্তিঃ নৌ, পদাতিক ও বিমান বাহিনীর কর্মচারী বিমাকারী আকস্মিক দুর্ঘটনায় প্রান ত্যাগ করলে অথবা তজ্জন্য দুটি অঙ্গ অথবা দুটি চক্ষু অথবা একটি অঙ্গ একটি চক্ষু হারালে এই সর্ত অনুযায়ী তাকে বীমাকৃত টাকার অতিরিক্ত টাকা দেওয়ার বাবস্থা আছে।
  • ডাক্তারী পরীক্ষা ছাড়া পলিসিঃ ডাক জীবন বীমায় ১,০০,০০/- টাকা পর্যন্ত ডাক্তারী পরীক্ষা ছাড়া পলিসি কেনার বাবস্থা আছে।

ডাক জীবন বীমা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে ডাক জীবন বীমা নামে সরকার একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেছে। একনজরে ডাক জীবন বীমা সম্পর্কে জানতে ৫ পৃষ্ঠার একটি লিফলেট তৈরি করো হয়েছে। আপনি চাইলে এখান থেকে দেখে নিতে পারেন। ডাক বীমা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে আপনি এ সংক্রান্ত ই-বুক পড়ে নিতে পারেন।

আপনি চাইলে অনলাইনেই ডাক জীবন বিমার প্রিমিয়াম হিসাব করে নিতে পারেন সেজন্য আপনাকে এই লিংকে প্রবেশ করতে হবে। অঞ্চল ভিত্তিক অফিসের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর লিংক এখান থেকে নিয়ে নিতে পারেন।

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.