অফিসের মালামাল ও সার্ভিস ক্রয়ের নিয়ম ও পদ্ধতি ২০২২

Government rules to purchase service or product – ফাইনানসিয়াল রুলস এর রুল-১৫১ অনুযায়ী অফিসের মালামাল সার্ভিস ক্রয়ের নিয়ম

ফাইনানসিয়াল রুলস – ১৫১। নিম্নোক্ত বিধান ব্যতীত সরকারী কাজে ব্যবহৃত ভাক্তারের সকল ৫ স্ব স্ব বিভাগের বিভাগীয় প্রবিধানে বর্ণিত বিস্তারিত বিধি ও নির্দেশনার সহি

(অ) অর্থ বিভাগের সহিত আলােচনাক্রমে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সরবরাহ পরিদর্শন বিভাগের দ্বারা সম্বলিত অফিস পদ্ধতি ম্যানুয়েল (ক্রয়) প্রয়ােজনীয় সংশােধ সাপেক্ষে সরকারী খাতের ক্রয় প্রতিষ্ঠানসমূহ কর্তৃক সাধারণভাবে অনুসৃত হইবে।

(আ) প্রকল্প সাহায্যের আওতায় অর্থায়িত দ্রব্য সামগ্রী সংগ্রহ ও পূর্তকার্যের জন্য ৪রতিক সম্পর্ক কর্তৃক ২৬/৫/১৯৯২ (ERD/Co-ordination-I/Mf-013) ৩ কত নির্দেশিকা অনুসরণ করিতে হইবে। প্রকল্প সাহায্যের আওতায় অথবা কার্য ও সাহায্য চুক্তির বিধান এবং সংশ্লিষ্ট উন্নয়ন সহযােগীর সংগ্রহ পদ্ধতিঃ – পরিচালিত হইবে। নির্দেশিকার বিধান এবং সাহায্য চুক্তির বিধানে বা উন্নয়ন -নগণ দ্বারা সৃষ্ট বিধান কোন অসামঞ্জস্যতা দেখা দিলে শেষােক্ত বিধান কল সব যদি তাহা সংশােধন বা শিথিল করা না হয়।

(ই) পরিশিষ্ট-৬ এ বিধৃত বিশেষ বিধি অফিসের যন্ত্রপাতিসহ মনােহারি ও মুদ্রণ। দ্যারের ক্রয় ইত্যাদি ক্ষেত্রে অনুসরণ করা হইবে।

মন চাইলেই কি ক্রয় করা যায়? / নিজের পকেটের টাকার মত করে ব্যয় করতে হবে।

সরকারি ব্যয়ের ক্ষেত্রে মিতব্যয়ী হতে হবে।

Financial rules of purchase of government

ক্যাপশন: কোন ক্রয় প্রয়োজনের পূর্বে সংগ্রহ না করার নির্দেশনা রয়েছে।

ফাইনানসিয়াল রুলস এর রুল-সেবা ও প্রডাক্ট ক্রয় বিধি ১৫৩ ও ১৫৪

  1. ফাইনানসিয়াল রুল-১৫৩। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমােদনের প্রয়ােজনীয়তা এড়ানাের লক্ষ্যে ক্রয় আদেশে মােট অংকের সূত্র বিভাজন করা যাইবে না।

  2. ফাইনানসিয়াল রুল-১৫৪। (১) যে মঞ্জুরী ও শ্রেণিবিন্যাস কোডে ভান্ডারের ব্যয় বিকলনযােগ্য , যে বরাদ্দ প্রদান করা হইয়াছে এবং প্রতি আইটেমের প্রাক্কলন সকল ফরমায়েশপত্র স্পষ্ট ও শুদ্ধগতভাবে উল্লেখ থাকিতে হইবে। প্রত্যেক আইটেমের খরচের প্রাক্কলন সুস্পষ্ট ও নির্দিষ্টভাবে বিধৃত হইবে।
  3. ফরমায়েশপত্র সরকার কর্তৃক জারীকৃত সাধারণ ও বিশেষ নির্দেশনা এবং ফরম অনুযায়ী প্রস্তুত করা হইবে।
  4. (২) ফরমায়েশপত্র আর্থিক বৎসরের এমন শেষের দিকে পাঠানাে যাইবে না, যখন এগুলি সম্ভবত পালন এবং ব্যবসায়ের মধ্যে পরিশােধ করা যায় না।

সেবা ও প্রডাক্ট ক্রয় বিল কি যে কোন সময় ক্রয় করা যাবে?

সরকারি ক্রয় পদ্ধতি – প্রতিটি আর্থিক বছরে সেবা বা প্রডাক্ট ক্রয়ের বিল সংশ্লিষ্ট আর্থিক বছরেই পরিশোধ করতে হবে। কোন ভাবেই এক আর্থিক বছরের বিল অন্য আর্থিক বছরে পরিশোধ করা যাবে। সাধারণত চলতি আর্থিক বছরের সরকারি ক্রয়কৃত সেবা বা প্রডাক্ট এর বিল চলতি আর্থিক বছরে পরিশোধ করা না গেলে তা তামাদি হয়ে যায়।

অর্থবছর অতিক্রান্ত হওয়ার সাথে সাথে বকেয়া বিল তামাদি হয়ে যায়।

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে [email protected] ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *