অত্যাবশ্যক পরিষেবা আইন ২০২০

জরুরী পরিষেবা বা অত্যাবশ্যক পরিষেবা বলতে যে কোন প্রকার ডাক, ইন্টারনেট, গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি টেলিফোন বা টেলিগ্রাম পরিষেবাসহ এই সকল সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবাকে বোঝায়। সরকার কর্তৃক ঘোষিত সংকটময় মুহুর্তে অত্যাবশ্যক পরিষেবা আইন ২০২০ আওতায় উল্লিখিত সেবা সমূহকে বোঝানো হয়। গত বছর এ সংক্রান্ত নিম্নরূপ আইন জারি করা হয়।

অত্যাবশ্যক পরিষেবা আইন, ২০২০ কতিপয় অত্যাবশ্যক পরিষেবা নিয়ন্ত্রণ ও রক্ষণাবেক্ষণ করিবার লক্ষ্যে প্রণীত আইন। যেহেতু অত্যাবশ্যক পরিষেবা নিয়ন্ত্রণ ও রক্ষণাবেক্ষন করিবার লক্ষ্যে বিধান করা সমীচীন ও প্রয়োজনীয় সেহেতু এদ্বারা নিম্নরূপ আইন করা হয়েছে।

১। সংক্ষিপ্ত শিরোনাম, প্রয়োগ এবং পরিধি: (১) এই আইন অত্যাবশ্যক পরিষেবা ২০২০ নামে অভিহিত হইবে।

২। সংজ্ঞা: (১) বিষয় বা প্রসঙ্গের পরিপন্থী কোন কিছু না থাকিলে এই আইনে-

ক) “অত্যাবশ্যক পরিষেবা বলিতে-

(১) যে কোন প্রকার ডাক, ইন্টারনেট, টেলিফোন বা টেলিগ্রাম পরিষেবাসহ এই সকল পরিষেবার সহিত সম্পর্কিত যে কোন প্রকার পরিষেবা;

(২) বিদ্যুৎ উৎপাদন এবং সরবরাহ কাজের সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবা।

(৩) রেলওয়ে পরিষেবা অথবা স্থল, জল বা আকাশপথে যাত্রী বা পন্য পরিবহন পরিষেবা সমূহ যে সকল বিষয়ে সংসদের আইন প্রণয়ন করার ক্ষমতা রহিয়াছে;

(৪) বিমান বন্দর ও বিমানঘাটি পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ সম্পর্কিত পরিষেবাসমূহ, অথবা বিমান পরিচালনা, মেরামত বা রক্ষণাবেক্ষণ, অথবা বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৭ (২০১৭ সালের ৩ নং আইন) এর অধীন প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্সের যে কোন পরিষেবা;

(৫) স্থলবন্দর, সমুদ্রবন্দর বা বিমান বন্দরে পন্য বোঝাই করা, খালাস করা (লোডিং -আনলোডিং) , স্থানান্তরিত করা বা মজুদ করাসহ এই সকল বন্দরে বা বন্দর সম্পর্কিত যে কোন প্রকার পরিষেবা;

(৬) কাস্টসের মাধ্যমে কোন পন্য বা যাত্রীর ছাড়পত্র প্রদান সম্পর্কিত , অথবা চোরাচালান প্রতিরোধ সম্পর্কিত যে কোন প্রকার পরিষেবা;

(৭) বাংলাদেশের সশস্ত্রী বাহিনীরর কোন প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত কোন পরিষেবা অথবা প্রতিরক্ষার উদ্দেশ্যে স্থাপিত কোন প্রতিষ্ঠানের সহিত সম্পর্কিত কোন পরিষেবা;

(৮) প্রতিরক্ষার উদ্দেশ্যে প্রয়োজনীয় পন্য বা মালামাল উৎপাদনের কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার সহিত সম্পর্কিত কোন পরিষেবা;

(৯) খাদ্যদ্রব্য ক্রয়, সংগ্রহ, সংরক্ষণ, সঞ্চয়, সরবরাহ বা বিতরনের কাজে নিযুক্ত সরকারি মালিকানাধীন বা সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত কোন প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার সহিত সম্পর্কিত কোন পরিষেবা;

(১০) সরকারি মালিকানাধীন বা সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত সংরক্ষণ ব্যবস্থা, পয়: নিষ্কাশন বা পানি সরবরাহ ব্যবস্থা, অথবা হাসপাতাল বা ডিসপেনসারির সহিত সম্পর্কিত কোন পরিষেবা;

(১১) ব্যাংকিং সম্পর্কিত যে কোন প্রকার পরিষেবা;

(১২) কয়লা, বিদ্যুৎ, স্টিল বা সার উৎপাদন, সরবরাহ বা বিতনের কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবা;

(১৩) কোন তেলক্ষেত্র বা শোধনাগার, অথবা পেট্রোলিয়ামজাতীয় পদার্থ উৎপাদন, সরবরাহ বা বিতনের কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবা;

(১৪) টাকশাল বা নিরাপত্তামূলক মুদ্রণ কাজের সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবা;

(১৫) প্রজাতন্ত্রের কাজের সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবা যাহা পূর্বোক্ত কোন উপদফায় বর্ণিত হয়নি;

(১৬) কৃষি উৎপাদন কাজের জন্য অত্যাবশ্যক কোন সার বা পদার্থ উৎপাদন কাজের সহিত সম্পর্কিত কোন পরিষেবা;

(১৭) যে সকল বিষয়ে সংসদের আইন প্রনয়নের ক্ষমতা রহিয়াছে এবং সরকারের বিবেচনা মোতাবেক যেসকল বিষয়ের ক্ষেত্রে কোনরূপ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হইলে জনউপযোগমূলক পরিষেবা, জননিরাপত্তা বা কোন দেশের জনগোষ্ঠীর জীবনযাপনের জন্য প্রয়োজনীয় সরবরাহ ও পরিষেবাগুলির রক্ষনাবেক্ষণ চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হইবে, অথবা দেমের জনগোষ্ঠীর জন্য অসহনীয় কষ্টের কারণ হইবে, যে সকল বিষয়ের সহিত সম্পর্কিত যে কোন পরিষেবাকে সরকার সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা এই আইনের উদ্দেশ্যে অত্যাবশ্যক পরিষেবা হিসাবে ঘোষণা করিতে পারিবে।

বিস্তারিত জানতে অত্যাবশ্যক পরিষেবা আইন ২০২০ দেখে নিন: ডাউনলোড

admin

এই ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে বা কোন তথ্য যুক্ত করতে বা সংশোধন করতে চাইলে অথবা কোন আদেশ, গেজেট পেতে এই admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.