সাধারণত সরকারি চাকরি যাদের হয় তাদের একাধিক বারই হয়। এক্ষেত্রে চাকরি হতে ইস্তফা নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে অথবা চাকরি ছেড়ে দিতে চাইলেও এ রকম পত্রের প্রয়োজন পড়ে। নিচে একটি ইস্তফা নমুনা পত্র প্রদান করা হলো।

ইস্তফা পত্র হল একটি আবেদনপত্র বা দাবি পত্র যা কোন ব্যক্তি অথবা প্রতিষ্ঠান দ্বারা কোন কাজের সম্পর্কে প্রধান নির্দেশিকা দেওয়ার জন্য প্রদত্ত পত্র। সাধারণত এই পত্রটি কোন পদে সরকারী কর্মচারী বা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জমা দেওয়া হয়। একটি ইস্তফা পত্র দায়বদ্ধিমূলক হতে পারে এবং এটি একটি আধিকারিক দলিল হিসাবে ব্যবহৃত হতে পারে। সাধারণত ইস্তফা পত্র প্রদত্ত কারণ হল কোন কাজ বা সেবা পেতে অনুরোধ করা যায় যা উপলব্ধ নয় বা সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে। চাকরি ছাড়তেই কেবল ইস্তফাপত্র ব্যবহার করা হয়।

চাকরি ছাড়ার আবেদনপত্র ফরম্যাট । চাকরি হতে অব্যাহতি পত্রের নমুনা

Resign Letter Format 2023 । চাকুরি হতে ইস্তফা প্রদানের দরখাস্ত (নমুনা)

Caption: রিজাইন লেটার বাংলা ফরম্যাট Word File

How to write Resignation letter । Writing a resignation letter is an important part of resigning from a job. Here are the steps to follow when writing a resignation letter । You have to keep in mind-

  1. Address the letter to your supervisor or manager, and include the date of the letter.

  2. Begin the letter with a statement that clearly states your intention to resign. For example, you could write, “Please accept this letter as formal notice of my resignation from my position as [Job Title] at [Company Name].”

  3. Thank your employer for the opportunities you’ve had while working for the company. Be specific about what you appreciate, such as the skills you’ve learned or the people you’ve worked with.

  4. Provide a reason for your resignation, but keep it positive and professional. For example, you might say that you’re leaving to pursue other opportunities, to relocate, or to take a break and re-evaluate your career goals.

  5. Offer to help with the transition process, such as training a replacement or completing any outstanding projects. This shows that you’re committed to leaving on good terms.

  6. Close the letter with a positive statement, such as expressing your appreciation for your time at the company or wishing the company success in the future.

  7. Sign the letter and make a copy for your records.

Remember, a resignation letter should be professional and respectful. Keep it brief and to the point, and avoid negative comments or criticisms of your employer or co-workers. This letter will be a permanent record, so make sure it reflects your professionalism and gratitude for your time with the company.

প্রশ্নোত্তর পর্ব:
  • প্রশ্ন: সরকারি চাকরিতে যোগদানের ০১ মাস পরেই যদি চাকরি হতে ইস্তফা নিতে চাই?
  • উত্তর: হ্যাঁ। নিতে পারবেন। সাধারণ ১ মাস সময় হাতে রেখে আবেদন করতে হয়। অর্থাৎ আমি আজ আবেদন করলে ন্যূনতম ১ মাস বা পনের দিন পরে কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারবেন।
  • প্রশ্ন: অন্য সরকারি চাকরি হয়ে গেছে এখন যদি  ইস্তাফা পত্র না দিয়ে বর্তমান কর্মস্থলে না যাই?
  • উত্তর: না। এটা করতে পারবেন না। তবে আপনি বিভাগীয় মামলা খাবেন। পরবর্তীতে আর কোন চাকরিতে যোগদানই করতে পারবেন না। আর যোগদান করলেও অনলাইন ফিক্সেশনে আটকে যাবেন।
  • প্রশ্ন: তাৎক্ষনিক রিলিজ নিতে চাইলে কি করতে হবে?
  • উত্তর: সাধারণত নিয়োগপত্রের শর্তানুসারে মূল বেতনের ১৫ দিনের বেতন সরকারি কোষাগারে জমা দিয়ে তাৎক্ষনিক রিলিজ নেয়া যায়।
  • প্রশ্ন: একটি সরকারি চাকরি ছেড়ে অন্য সরকারি চাকরিতে যোগদান করতে চাইলে?
  • উত্তর: সরকারি কর্মচারী শৃঙ্খলা ও আপীল বিধিমালা অনুযায়ী আপনাকে একটি সরকারি চাকরিরত অবস্থায় অন্য কোন সরকারি চাকরিতে আবেদন করলেও সরকারের নিকট হতে অনুমতি নিতে হবে। অনুমতি ব্যতীত সরকারি চাকরিতে আবেদন করলে বিভাগীয় মামলা খাবেন।

সরকারি চাকরি হতে ইস্তফা প্রদানের একটি নমুনা পত্র নিচে প্রদান করা হলো।

তারিখ: ২৪/০৯/২০১৮

বরাবর,
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার
রংপুর।

মাধ্যম: যথাযথ কর্তৃপক্ষ।

বিষয়: চাকুরী হতে ইস্তফা প্রদান প্রসঙ্গে।

জনাব/মহোদয়,
বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী সহকারি শিক্ষক, পাঠক শিকড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কান্দিরহাট, পীরগাছা, রংপুর। আমি গত ২৫/১১/২০১৭ খ্রি: তারিখে উক্ত বিদ্যালয়ে যোগদান করি। বর্তমানে আমার ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে ০১/১০/২০১৮ তারিখ হতে  স্বেচ্ছায় স্ব-জ্ঞানে চাকুরী হতে ইস্তফা পত্র প্রদান করছি।

অতএব, মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন অনুগ্রহপূর্বক ০১/১০/২০১৮ খ্রি: তারিখ হতে আমার ইস্তফা পত্র গ্রহণ করিতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

নিবেদক

Your name
সহকারি শিক্ষক
পাঠক শিকড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
পীরগাছা, রংপুর।

নমুনা স্বাক্ষর:

০১। মো: তারিকুল ইসলাম…………………………………..
০২। মো: তারিকুল ইসলাম…………………………………..
০৩। মো: তারিকুল ইসলাম…………………………………..

এ প্রসঙ্গে আরও কিছু জানতে কমেন্ট করুন অথবা alaminmia.tangail@gmail.com এ ইমেইল করুন।

  1. চাকুরি হতে ইস্তফা প্রদানের দরখাস্ত (নমুনা) : ডাউনলোড
  2. Resignation Letter Sample Word File Download
  3. চাকরি হতে অব্যাহতি পত্র JPG File: Download

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 3002 posts and counting. See all posts by admin

95 thoughts on “Resign Letter Format 2024 । চাকুরি হতে ইস্তফা প্রদানের দরখাস্ত (নমুনা) প্রয়োজন?

  • আমার চাক‌রির বয়স ৮ বছর এখন চাক‌রি হ‌তে ইস্তফা নি‌লে কি কি আর্থিক সু‌বিধা পাব

  • সুস্থ্য অবস্থায় যদি ই্স্তফা দেন। শুধু জিপিএফ এর আসল ছাড়া আর কিছুই পাবেন না।

  • বিভাগীয় মামলা থাকলে কি চাকুরী হতে ইস্তফা দেওয়া যায়?

  • আমি একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। আমার চাকরিকাল ২ বছর ২ মাস এবং আমি স্থায়ী হয়েছি। আমাদের কোন ফিক্সেশন করতে হয়নি। শুধুমাত্র কৃষি ব্যাংকে হিসাব খুলে বেতন নিচ্ছি। এখানে পেনশন সুবিধাও নেই। আমি এখন ইস্তফা দিলে কি করণীয়?

  • আমি আমি একটি ব্যাংকের সিকিউরিটি গার্ড, এখন রিজাইন নিতে চাই, কিন্তু কি ভাবে রিজাইন লেটার লিখবো এবং কাকে উদ্দেশ্য করে লিখবো জানাবেন

  • আমার ১ শ্রেনি কর্মকর্তা হিসাবে চাকুরী কাল ১ বছর ১০ মাস। আমি কি ১ মাস পূর্বে আবেদন করলে পদত্যাগের সময় আর কোন আর্থিক বিষয় সামনে আসবে কি?

  • আমি বিগত ২বছর ৫মাস যাবত একটি সরকারী প্রতিষ্টানে কর্মরত আছি।।এখন মনে মনে ভাবতাছি চাকরি টা আর করবো না।যদি ইস্তফা লেটার দিয়ে চাকুরির কর্মস্থলে না গেলে কি কোন সমস্যা হবে?

  • না। সমস্যা হবে না কিন্তু কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ইস্তফা পত্র গ্রহণ করতে হবে। অসৎ আচরণজনিত কারণে ইস্তফাপত্র গ্রহণ না করলে সমস্যা হবে।

  • আমি একটি সরকারি চাকুরি যোগদান করে ৩ দিন ট্রেনিং করি। কিন্তু আমার পোস্টিং অনেক দূরে দেওয়ায় আমি আর সেখানে জয়েন করি নি। এখন আমার কি কোন সমস্যা হতে পারে?

  • কোন সমস্যা হবে না।

  • ডিপিএড প্রশিক্ষণ থাকাকালীন কি চাকুরি থেকে ইস্তফা নেওয়া যায়?

  • যোগদান করে নিতে হবে।

  • আমি একটি দপ্তরে ২বছর 6মাস যাবত অস্থায়ী ভাবে কর্মরত আছি।।।আমার গত সপ্তাহে আরেকটি সরকারি চাকরি হয়েছে।।।আমি আমার দপ্তর প্রধান কে জানালে সে আমাকে পি এস সি থেকে অনুমতি নিতে হবে বলেন,নাহলে সে আমার ইস্তফা পত্র গ্রহণ করবেন না বলেন।।এখন আমি কি করব প্লিজ সাহায্য করুন।।।আমাদের কে এখনও স্থায়ী করা হয়নি।।তবে পে ফিক্সেশন আছে।

  • পি এস সি থেকে অনুমতি নিতে গেলে নাকি আমার চাকরি তাও যেতে পারে অনেক বলছে,,এটা কি সঠিক???

  • অনুমতি বিহীন চাকরি নিলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভাল হয়। একটি ছেড়ে দিয়ে আরেকটিতে জয়েন করুন।

  • আরেক চাকরি নিয়েছেন এটি জানিয়েছেন কেন? পারিবারিক কারণে চাকরি ছেড়ে দিবেন যে কোন সময় এক মাসের মূল বেতন জমা দিয়ে ইস্তফা দিবেন এটিই স্বাভাবিক নিবে না। কেন? অবশ্যই নিবেন।

  • আমি ভেবেছিলাম মানবিক দৃষটিকোণ থেকে সে আমাকে ছেড়ে দিবে,,আর পারলে হেল্প করবে,,কিন্তু এরকম হবে ভাবিনি।।আচ্ছা আমি যদি ইস্তফা পত্র দিয়ে 1 মাসের বেতন দিয়ে চলে যায় সে যদি ইস্তফা পত্র গ্রহণ না করে তাহলে কি সমস্যা হবে।আমাকে কিন্তু এখনও স্থায়ী করা হয়নি।।প্লিজ সাহায্য করুন।।আমি এখন যে পোস্ট এ আছি খুবই ছোট পোস্ট ।

  • আর যদি বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয় তাহলে কি হতে পারে,,আমাকে একটু ধারনা দিলে উপকৃত হতাম

  • বিভাগীয় ব্যবস্থায় চলতি চাকরি খোয়াতে পারেন। হতে পারেন সাময়িক বরখাস্ত এবং পরবর্তীতে কোন চাকরির জন্য অযোগ্য বলে বিবেচিত হতে পারেন।

  • স্যার আমার চাকুরি ১৭ বছর। ইস্তফা দিয়ে অন্য একটি চাকুরী করব।এতে কোন অসুবিধা হবে কি না?

  • যদি যথাযথ কতৃপক্ষের মাধ্যমে অন্যত্র চাকরির আবেদন করে থাকেন তবে নতুন চাকরিতে পেনশনযোগ্য চাকরিকাল বৃদ্ধি পাবে। যদি এটি ছেড়ে বেসরকারি চাকরিতে যোগদান করেন তাতেও কোন সমস্যা নেই।

  • আমি বাংলাদেশ নৌবাহিনী তে জব করতাম।নৌবাহিনীর নিজস্ব শৃঙ্খলা না মানায়,নৌবাহিনীর নিজস্ব আইনে আমাকে চাকরি থেকে বহিঃকার করা হয়।এবং আমাকে নো অবজেকশন সার্টিফিকেট দিয়ে দেওয়া হয়।আমি কি সিভিল সরকারি চাকরি করতে পারবো???

  • আমি পুলিশের একজন সাব-ইন্সপেক্টর। আমার এসপির সাথে সম্পর্ক ভাল না। তিনি আমার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন আমি মাদকাসক্ত, আমি বিভিন্ন জায়গায় মাদক খুঁজে বেড়াই কিন্তু আমার কোন ডুব টেষ্ট না করিয়ে একটা মিথ্যা অভিযোগ এনেছেন।এখন উক্ত অভিযোগের কারণে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি উক্ত বিষয় উল্লেখপূর্বক চাকরি হতে ইস্তফা দেয়ার আবেদন করব। এতে আমার সম্মানহানি হয়েছে বলে মনে করি। উক্ত বিষয় উল্লেখপূর্বক উনি আমাকে গুরু বা লঘু দন্ড দিবেই যেটার দাগ সারাজীবন বয়ে বেড়াতে হবে।

  • আপনি ডোপটেস্ট করে প্রমানক সহ জবাব দিবেন। আমি আশা করছি আপনি অবশ্যই ইস্তফা দিবেন না। কর্মক্ষেত্রে এ রকম ঝামেলা অনেকেরই হয়। এটি দাগ নয়। আপনি নির্দোষ হলে এটি আপনার জন্য সুফল বয়ে আনবে।

  • নো অবজেকশন সার্টিফিকেট থাকে এবং সেখানে আপনাকে যাদি সরকারি চাকরির জন্য অযোগ্য ঘোষনা না করে তবে আপনি সিভিল এ সরকারি চাকরি অবশ্যই করতে পারবেন।

  • আমি একটি সরকারি চাকুরি করি, আঞ্চলিক তথ্য অফিস (পিআইডি) তে। এটি একটি ব্লক এবং বিলুপ্ত পোস্ট। যার কারণে আমি প্রাইমারীতে আবেদন করি এবং সেখানে সরকারি চাকুরি করি এটি উল্লেখ করি। সম্প্রতি রেজাল্ট পাবলিশ হওয়ায় আমি নির্বাচিত হই। এখন আমি মৌখিক পরীক্ষা দেব। এমতাবস্থায় বিভাগীয় অনুমতি কি পাওয়া যাবে? নাকি অন্য কোন ঝামেলা পোহাতে হবে? অভিজ্ঞরা মতামত দিয়ে সাহায্য করবেন।

  • যদি অনুমতি নিয়ে আবেদন করে থাকেন তাহলে কোন সমস্যাই নাই। ভাইভাতে প্রত্যয়ন বা অনাপত্তিপত্র নিয়ে যাবেন। ব্যাস কাজ শেষ।

  • আমি সরকারি চাকরি হইতে ইস্তফা দিয়েছি, কিন্তু ছাড়পত্র নেয়নি বা নেওয়া হয়নি। ইস্তফা দিয়েছি প্রায় ১ মাস হল।
    আমি কি আবার চাকরিতে পুনরায় যোগদান করিতে পারব??? প্রসঙ্গ ঃ আমার সরকারি চাকরি এখনও স্থায়ী হয়নি।।।।
    দয়া করে সাহায্যে করবেন।।।।

  • স্থায়ী হোক বা অস্থায়ী হোক। অবশ্যই পুনরায় নতুন চাকরিতে যোগদান করতে পারবেন। যে চাকরি ছেড়েছেন সেটি অফিস আদেশ কার্যক্রম রেডি হলে আপনি আর ঐ চাকরিতে ফেরত যেতে পারবেন না।

  • বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডার থেকে স্থায়ী চাকুরি থেকে ইস্তফা পত্র কিভাবে লিখতে হবে ধারনা পেলে ভাল হতো।

  • একইভাবে লিখবেন। নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ বা রাষ্ট্রপতি বরাবর। যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে। রেফারেন্স দিয়ে লিখবেন।

  • আমি বাংলাদেশ চিনি শিল্প কপোর্রশনের আওতায় চিনি কলে চাকুরী করি।চাকুরির বয়স১০ বছর ৫ মাস।বেশ কিছু দিন জাবত শারীরিক সমস্যায় ভুগিতেছি এমতবস্থায় বিনা বেতনে কত দিনের ছুটি পেতে পারি।

  • সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত।

  • আমি একটা সরকারি চাকরি করেছি একবছর। তারপর অব্যাহতি দিয়েছি ৩ মাস হলো। এখন আমি কি করলে ওই চাকরি ফিরে পাবো?

  • যদি কর্তৃপক্ষ চূড়ান্ত অব্যহতি পত্র জারি করে থাকে। তাহলে ফিরে পাওয়ার কোন সুযোগ নেই।

  • আমি পুলিশের এ এসআই আমার চাকুরি ২২ বছর আমি পারিবারিক ও মানসিক চাপে স্বেচ্ছায় চাকুরি ছাড়তে চাই। এখন আমি কিভাবে চাকুরী ছাড়তে পারি?

  • না। ২৫ বছর পূর্ণ হলে চাকরি ছাড়তে পারেন। এর আগে ছাড়লে পেনশন ও অন্যান্য আর্থিক সুবিধাদি প্রাপ্য হবেন না।

  • আমার ওয়াইফ প্রাইমারিতে চাকরি করে কিন্তু তা বাবার বাড়ি তাই আবার সে আমার (স্বামী) স্থানে পরিক্ষা দেয় এবং তার চকরি হয়েছে। পূর্বের চাকরির অনুমতি নেয়নি, এখন পুরনটা ছেরে নতুনটায় যোগদানের উপায় কি?

  • প্রথমে ইস্তফা দিয়ে ফিক্সেশন বাতিল করতে হবে। পুনরায় নতুন যোগদান করে পুন: ফিক্সেশন করতে হবে।

  • আমি একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে প্রায় চার বছর যাবত চাকরী করছি,কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যতীত অন্য একটি চাকরীতে সুপারিশ পেয়েছি যা পিএসসির ননক্যাডার। আমার প্রশ্ন হচ্ছে পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরমে উল্লেখ করবো কিনা বর্তমান চাকরীর ব্যাপারটা?যদি উল্লেখ নাও করি কোনো সমস্যা হবে কিনা বা করলেও সমস্যা হবে কিনা?পুলিশ ভেরিফিকেশন এনএসআই ও পুলিশ দুটি সংস্থাই করার সম্ভাবনা আছে,আমি কোনো এনওসি নেই নি বা নিতে পারিনি বিভিন্ন জটিলতার কারণে তবে আমার ইনচার্জ আমি চাকুরী পাওয়াতে খুশি এবং যথাসম্ভব দ্রুত ছেড়ে দিবেন বলেছেন যদি রিজাইন দেই।
    দয়া করে সঠিক উত্তর দিয়ে বাধিত করবেন

  • পূর্বের চাকরির কোন তথ্য দিবেন না। যেহেতু অনুমতি ব্যতীত বা কোন অনুমোদনের কাগজপত্র নেই। কোন সমস্যা হবে না। থানা থেকে জিজ্ঞাসা করলে বলবেন। পূর্বের চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন।

  • আমি একটি সরকারি স্বশাসিত প্রতিষ্ঠান এ প্রায় ৩ বছর যাবৎ কর্মরত আছি। এখন অনুমোদন ক্রমে অন্য একটি সরকারি দপ্তরে যোগদান করবো।এক্ষেত্রে পূর্বের প্রতিষ্ঠানের বিধি অনুযায়ী স্থায়ী চাকুরী হতে ইস্তফা নিতে ৩ মাসের বেসিক জমা দিতে হবে।৩ মাসের বেসিক জমা দিয়ে ইস্তফা নিলে পরবর্তী চাকুরীতে ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ণ থাকবে কিনা।

  • যদি আপনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে চাকুরিতে আবেদন করে থাকেন তবেই কেবল ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন থাকবে। ইস্তফা বা বেসিক জমার সাথে সম্পর্কযুক্ত নয়।

  • আসসালামু আলাইকুম
    অনুমতি ব্যতীত আবেদন করে এনওসি না নিয়ে স্থায়ী সরকারী চাকুরী ছেড়ে অন্য সরকারী চাকুরীতে যোগদান করলে কর্তৃপক্ষ কি কি ক্ষতি করতে পারবে আর করলেও এ থেকে পরিত্রাণের উপায় কি?
    দয়া করে উত্তর দিয়ে সাহায্য করবেন

  • চাকরি হতে বরখাস্তের পদক্ষেপ নিতে পারেন বা নতুন চাকরির নিয়োগ বাতিল হতে পারে। এক্ষেত্রে পূর্বের কর্মস্থলের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন।

  • আসসালামু আলাইকুম
    প্রার্থীর সার্ভিস ম্যাটারে(উচ্চতর গ্রেড সংক্রান্ত) মামলা করা থাকলে স্থায়ী চাকুরী থেকে রিজাইন দেয়া যাবে কিনা?না গেলে এর থেকে পরিত্রাণের উপায় কি?
    উত্তর দিয়ে বাধিত করবেন

  • বিভাগীয় মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত রিজাইন দেয়া যাবে না। দ্রুত মামলা সমাধান করুন যেভাবে সম্ভব অতপর রিজাইন করতে পারবেন্

  • আমি একমাস আগে রিজাইন লেটার জমা দিয়েছি। সেক্ষেত্রে কি আমার ঐ মাসের বেতন কি পাব।
    ধরেন আমি মার্চ মাসের ৪ তারিখে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করি। এবং আবেদনে উল্লেখ করি যে আগামী ০১/০৪/২০২৩ থেকে পারিবারিক সমস্যার কারণে চাকরি করব না। তাহলে কি আমি মার্চ মাসের বেতন পাব?

  • পাবেন। তবে নিয়োগপত্রে লেখা শর্ত দেওয়া থাকে কি পরিমাণ অর্থ ফেরত বা কয় মাস পূর্বে নোটিশ দিতে হবে।

  • আমি একটি সরকারি চাকুরি করছি ১.৫ বছর হলো। আমি চাকুরী পরিবর্তন করতে চাচ্ছি। অন্য চাকুরীতে আবেদনের পূর্বে কর্তৃপক্ষের অনুমতি চাইলেও পাই নাই। সেক্ষেত্রে আবেদনে কি বর্তমান চাকুরীর কথা উল্লেখ করবো কিনা? যদি চাকুরীর কথা উল্লেখ না করে আবেদন করি তাহলে ভবিষ্যতে কি ধরনের ঝামেলা হতে পারে? যদি ভবিষ্যতে আবেদন করা চাকুরী হয় সেক্ষেত্রে ওই চাকুরীতে যোগদান করার পূর্বে করনীয় কি?

  • অনেকেই কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে নতুন চাকরি নিচ্ছে। খুব একটা সমস্যা তো হচ্ছেই না। তবে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিলে ঝামেলায় পড়বেন নতুন চাকরিতে যোগদানও করতে পারবেন না। আবার বিভাগীয় মামলাও হয়ে যেতে পারে।

  • আমি একটি দপ্তরে (আউটসোর্সিং) ৪বছর যাবৎ নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে চাকরি করছি, আমি চাকরিটা ছেড়ে দিতে চাই। মানসিক চাপে আছি এই চাকরি করে এমনকি আমি ক্রমেক্রমে অসুস্থ হয়ে পড়ছি। এমনঅবস্থায় জবটা ছাড়তে চাচ্ছি। টেনশন সবদিক থেকেই, পরিবার, অফিস। কিন্তু এই চাকরি করলে আমি মানসিক ভারসাম্য হারাবো। চাকরি টা ছাড়তে চাই আমি এই প্রসঙ্গে কিভাবে চিঠি লিখবো?

  • পারিবারিক কারণ দেখিয়ে নমুনা পত্র দেখে আবেদন লিখে ফেলুন।

  • আমি আউটসোর্সিং কোম্পানি হয়ে মৎস্য অধিদপ্তরে নিরাপত্তা প্রহরী পদে চাকুরী করছি ৪ বছর হয়। আমি এই চাকুরীটি ছেড়ে দিতে চাই। বিভাগীয় অফিসে আছি এখন কিভাবে চাকুরী ছাড়ার আবেদন করবো আর আবেদন এর কতদিন পর অফিস ত্যাগ করতে পারবো? আমি আর একদিন ও ডিউটি করতে চাচ্ছি না।

  • আমি আউটসোর্সিং কোম্পানি হয়ে মৎস্য অধিদপ্তরে নিরাপত্তা প্রহরী পদে চাকুরী করছি ৪ বছর হয়। আমি এই চাকুরীটি ছেড়ে দিতে চাই। বিভাগীয় অফিসে আছি এখন কিভাবে চাকুরী ছাড়ার আবেদন করবো আর আবেদন এর কতদিন পর অফিস ত্যাগ করতে পারবো? আমি আর একদিন ও ডিউটি করতে চাচ্ছি না।

  • নমুনা অনুসারে আবেদন করুন।

  • নমুনা অনুসারে আবেদন করুন। কেউ ইস্তফা দিতে চাইলে স্বয়ং সরকারও ধরে রাখে না।

  • আসসালামু আলাইকুম, আমি একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করতাম এবং বর্তমানে অন্য একটি সরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরী হয়েছে এবং করছি,৩ মাস হলো চাকুরী ছেড়ে দিয়েছি এবং কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আমার ইস্তফাপত্র গৃহীত হয়েছে, চাকুরী ছাড়ার ২ মাস আগে ঐ প্রতিষ্ঠান ইএফটি চালু করে তবে ইএফটি দ্বারা কোনো বেতন হয়নি শুধু মাস্টার ডাটা এন্ট্রি করা হয়েছে। এখন এসে ইএফটি ও বাতিল করেছে ঐ স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান তবে উপজেলা হিসাবরক্ষণ অফিসে নুতন চাকুরীর বেতন করতে গেলে দেখা যায় পুরাতন ইএফটির তথ্য চলে আসে(বাতিল করার পরও) যার জন্য নতুন চাকুরীর বেতন করতে পারছি না
    বি:দ্র: (নতুন চাকুরী যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে করার সুযোগ হয়নি কারণ এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পুরাতন চাকুরী পাওয়ার আগেই দিয়েছিলো)
    এ মূহুর্তে কি করলে আমি নতুন চাকুরীতে বেতন করতে পারবো পরামর্শ দিয়ে বাধিত করবেন।

  • ঢাকা আপনার দপ্তরের মূল এজি অফিস, সেগুনবাগিচায় যোগাযোগ করুন। সমাধান হবে।

  • আমি একটি প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৯ বছর চাকরি করেছি। নতুন সিইও জয়েন করার পর তিনি আমাকে অনেকটা ই কাজহীন করে দেয়। ফলে আমি প্রায় ৪ মাস আগে ইস্তফা দেই, তারা ইস্তফাপত্র গ্রহন করে। আমার মাসিক বেতন বন্ধ করে দেয় এবং ফাইনাল সেটেলমেন্ট ও করে ফেলে। আমার একটা লোন ছিল, আমি সেটাও পরিশোধ করে দিয়েছি।

    কিন্তু এখনো তারা আমার রিলিজ লেটার দিচ্ছে না।
    আমি কি করতে পারি, দয়া করে জানাবেন

  • কোর্টের দ্বারস্থ হউন।

  • kaoke chakri thake bahisker karle take kono arthik subida daoa jai kina

  • বাধ্যতামূলক অবসর দিলে সরকার সুবিধা উল্লেখ করে আদেশ জারি করবেন।

  • আমি প্রাইমারিতে চাকুরি করতেছি। নতুন একটা চাকুরী তে যোগদান এর ডেট ১ তারিখ।এখন আমি২৪ তারিখ আবেদন দিয়ে ৩০ তারিখ চাকুরী ছারতে চাচ্ছি।কিন্তু ৩০ তারিখ শনিবার। ওই দিন তো সরকারি বন্ধ।এখন কোন সমস্যা হবে?

  • বর্তমানে আমি একটি সরকারি চাকরিতে কর্মরত আছি। আমি চাকরি পরিবর্তন করতে চাচ্ছি। এখন আমি নতুন চাকরির আবেদন ফরমে যদি বর্তমান চাকরির কথা উল্লেখ না করি এবং বর্তমান কর্মস্থল থেকে অনুমতি (এনওসি) না নিই তাহলে আমার নতুন চাকরি পেতে কোন সমস্যা হবে কিনা (নতুন চাকরি হওয়ার পর আমি বর্তমান কর্মস্থলে বলব না যে আমার নতুন চাকরি হয়েছে এবং ব্যক্তিগত/পারিবারিক কারণ দেখিয়ে মূল বেতন জমা দিয়ে ইস্তফা পত্র জমা দিব) ?? আর তখন আমার পুলিশ ভেরিভিকেশন এবং বেতন নির্ধারণে কোন সমস্যা হবে কী?? দয়া করে জানালে খুবই উপকৃত হব……

  • এভাবে অনেকেই নিচ্ছে। এখনও সমস্যা হচ্ছে না। ক্রমান্বয়ে জটিলতা সৃষ্টি হবে কারণ সবাই আইবাস++ এবং অনলাইন ভিত্তিক হচ্ছে।

  • আপনি আরও আগে অর্থাৎ বুধবারে ছাড়েন। এক্ষেত্রে আপনার এক মাসের মূল বেতন চালানের মাধ্যমে জমা দিতে হবে।

  • চাকুরি হতে ইস্তফা দেওয়ার ক্ষেত্রে ১ মাসের মূল বেতন কখন জমা দিয়ে হয়? ইস্তফা পত্র জমা দেওয়ার সময় না পে ফিক্সেশন বাতিলের আবেদনের সময়? দয়া করে জানাবেন।

  • ইস্তফাপত্র জমা দেওয়ার সময়।

  • আমি বর্তমানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত, আমি একটি এমপিওভুক্ত কলেজে লেকচারার পদে সুপারিশ প্রাপ্ত। এখন আমি যদি প্রাইমারিতে ইস্থফা না দিয়ে কলেজে জয়েন করি এবং এমপিও হওয়ার পর ছেড়ে দেই তাহলে কি কোনো সমস্যা হবে? ব্যাকডেটে কি রিজাইন দেযা যায়?

  • অবশ্যই সমস্যা হবে একই সাথে দুটি চাকরি করা যাবে না। বড় ধরনের ঝামেলা এড়াতে এমন অবস্থায় একটি চাকরি ছেড়ে দিয়ে অন্যটি গ্রহণ করুন।

  • Pingback:

  • ভাই বিভাগীয় মামলা শেষ হলে কি চাকুরী ছাড়া যায়,বিভাগীয় মামলায় ২ বছরে ইনক্রিমেন্ট হেলডাপ শাস্তি হয়েছে।এখন কি চাকুরী ছাড়া যাবে?

  • হ্যাঁ। ছাড়তে পারবেন।

  • আসসালামু আলাইকুম। আমি দুইটা চাকরির জন্য সিলেক্ট হয়েছি। বি.এস.টি.আই অন্য একটি ডাক বিভাগে। বি.এস.টি. আই এর পুলিশ ভেরিফিকেশন শেষ, নিয়োগপত্র সম্ভবত আগামী মাসে দিবে। আর ডাক বিভাগে আগামী মাসের ১ তারিখে যোগদান,এরপর ভেরিফিকেশন হবে। কিন্তু আমি বি.এস.টি.আইয়ের চাকরিটা করতে চাই। এক্ষেত্রে ডাক বিভাগে যোগদান করবো কিনা পরামর্শ দিবেন।

  • ডাক বিভাগের নিয়োগপত্র আগে আসলে যোগদান করুন। বিএসটিআই পরে আসলে ডাকবিভাগের চাকরি ছেড়ে বিএসটিআইতে যোগ দিবেন। অনিশ্চয়তায় থাকবেন না। চাকরি ছেড়ে দেওয়া তো কঠিন বিষয় নয়। একটি পদত্যাগ পত্র দিলেই হবে।

  • আমি সরকারী হাসপাতালে ১৩ বছর চাকুরীর পর অসুখের কারনে চাকুরি ছাড়তে চাই, কোন আথি্ক সুবিধা পাব কি

  • অবশ্যই পাবেন তবে স্বেচ্ছায় ছাড়লে পাবেন না। বোর্ড কর্তৃক অযোগ্য ঘোষিত হতে হবে।

  • আমি চাকরির রিজাইন দিয়েছি গত ডিসেম্বরের ৭ তারিখ। এটি জানুয়ারি ৭ তারিখ থেকে কার্যকর হবে, এক্ষেত্রে কী আমি পুরো মাসের বেতন পাবো ? যেহেতু আমি একমাস আগে থেকেই জানিয়েছি।

  • অবশ্যই পুরো বেতন পাবেন।

  • যদি যথাযথ কতৃপক্ষের মাধ্যমে অন্য চাকরিতে আবেদন করা হয় এবং সেটিতে নিয়োগের জন্য বিবেচিত হয় তাহলে কি বর্তমান চাকরি হতে পদত্যাগ করলে ১ মাস বা ৩ মাসের বেতন জমা দিতে হবে?

  • একমাস বা তিন মাস এটি নির্ভর করবে নিয়োগপত্রে যেভাবে লেখার ছিল সেটির উপর। বেসিক জমা দিতে হবে অথবা একমাস চাকরি করে যেতে হবে ঘোষিত ইস্তফার পর।

  • আমি একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছি ৪ বছর ১০ মাস হল। এখন যদি স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে দেই তাহলে কি কি সুবিধা পাব..????
    আমি নতুন একটি সরকারি চাকরিতে যোগদান করতে চাই, উক্ত স্বায়ত্তশাসিত চাকরি না ছেড়ে দিয়ে, এতে কি কোন সমস্যা হতে পারে….??? আমি সরকারি চাকরি তে ২৪ তারিখ যোগদান করে…..
    স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে ২৩ তারিখ ইস্তফা দিলে কোন সমস্যা হবে কি…???
    ইস্তফা পত্রে ২৩ তারিখ চাকরি হতে অব্যাহতির জন্য আবেদন লিখে ২৫ তারিখ জমা দিলে কোন সমস্যা হবে কি…???
    অনুগ্রহ করে একটু সাহায্য করলে উপকৃত হতাম…।।।।

  • বর্তমান চাকরি হতে কোন সুবিধা পাবেন না। ইনস্ট্যান্ট চাকরি ছেড়ে দিতে ১ মাসের মূল বেতন জমা দিতে হয় এবং কর্তৃপক্ষ রাজি থাকতে হবে। সরকারি একটি চাকরি থাকতে অন্য চাকরিতে যোগদান করতে পারবেন না। ২৩ তারিখে যোগদান লিখে ছুটির দিন থাকলে পরবর্তী কর্মদিবসে জমা দিতে হবে অন্যথায় জমা নিবে না।

  • আসসালামু আলাইকুম স্যার, আমি ১১ বছর যাবৎ সশস্ত্র বাহিনীতে চাকরি করছি।বর্তমানে আমি অসুস্থ। এমতাবস্থায় মেডিকেল বোর্ডআউটের মাধ্যমে চাকরি হতে অব্যাহতি প্রদান করা হলে, আমি কি নতুন কোন সরকারি চাকরিতে জয়েন করতে পারবো। যদি পারি তবে এখান থেকে কি ধরনের আর্থিক সুবিধা পেতে পারি?

  • এলজিইডি তে কার্যসহকরী হিসেবে ১/১/২০২৪ জয়েন করি। এবার প্রাইমারিতে জব হয়েছে। এখনো নিয়োগ পত্র ইস্যু হয় নি। আমি কখন LGED তে ইস্তফা পত্র দেব?
    কিভাবে ইস্তফা পত্র দিলে বেতন জমা করতে হবে না?

  • নতুনটি যোগদানের সময় আসলে একদিন পূর্বে ইস্তফা দিবেন। নতুন এপেন্টমেন্ট হাতে পেয়ে তারপর দিবেন। অবশ্যই ১ মাসের মূল বেতন ফেরত দিতে হবে এবং কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে নিবেন তাতে ঝামেলা পোহাতে হবে না।

  • আমি একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে ২০১৫ সাল থেকে চাকুরী করি। মে/২০২০ সাল থেকে এপ্রিল/২০২৪ সাল পর্যন্ত কোম্পানী আমাকে নিয়মিত বেতন ও বোনাস প্রদান করছে না। এতে করে আমি প্রায় ২৪ লক্ষ টাকা বকেয়া বেতন ও বোনাস বাবদ কোম্পানীর নিকট থেকে পাওনা হয়েছি। এখন আমি কিভাবে এই টাকা কোম্পানী থেকে আদায় করতে পারি এবং রিজাইন লেটার দিলে রিজাইন লেটারে পারিবারিক সমস্যার কথা উল্লেখ করব কিনা এবং পাওনা টাকার কথা উল্লেখ করে রিজাইন দিব কিনা জানালে উপকৃত হব। বিষয়টি খুবই জরুরী।

  • পারিবারিক সমস্যার কথা উল্লেখ করবেন এবং আইনি সহায়তায় উক্ত অর্থ আদায় করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *