সরকারি কর্মচারীদের চাকুরীর মূল খতিয়ান বহিতে হিসাব সংরক্ষণ করতে হয়। সে মতে প্রত্যেকেরই সার্ভিস বুক থাকে। এবার আপনিও শিখে নিতে পারেন সার্ভিস বহিতে ছুটির হিসাব কিভাবে করতে হবে?- Service Book Calculation Rules

যোগদানকাল হতে ছুটির হিসাব হবে? যোগদান দানের তারিখ থেকে পরবর্তী আদেশ এন্ট্রি পর্যন্ত হিসাব করতে হবে। বছরকে ৩৬৫ দিন ধরে হিসাব করতে হবে। গড় বেতনে  ছুটি ১১ দিনে ১ দিন হিসাব করতে হবে। অর্ধ গড় বেতনে ১২ দিনে ১ দিন হিসাব করতে হবে।

সরকারি কর্মচারি ছুটি বীধিমালা অনুসারে আমরা অনেকেই এটা জানি যে একজন স্থায়ী কর্মচারির প্রতি ১১ দিনে ১ দিন পূর্ণগড় বেতনে আর ১২ দিনে ১ দিন ১ দিন অর্ধ -গড় বেতনে ছুটি তার ছুটির হিসাবে জমা হতে থাকে । যদিও পূর্ণ গড় বেতনের ক্ষেত্রে ৪ মাস পর্যন্ত ছুটি তার হিসাবে জমা হয়, ৪ মাসের অধিক হলে তা আলাদাভাবে হিসাব রাখা হয়। এ বিষেয় অন্য কোন পোস্টে আলচোনা করব আজ শুধুমাত্র কীভাবে অর্জিত ছুটির পরিমান হিসাব করতে হয় তা উদাহরনের মাধ্যমে বোঝানর চেষ্টা করব।

অর্জিত ছুটির পরিমান হিসাব করতে হলে প্রথমেই আপনাকে একজন কর্মচারির ছুটির আবেদনের তারিখ বা অবসরে যাওয়ার তারিখ এর মধ্যে মোট চাকুরীকাল হিসাব করতে হবে। সহজ কথায় যে সময়ের মধ্যে অর্জিত ছুটির পরিমান হিসাব করতে চান সে সময়কালটা বের করতে হবে । এর জন্য তার যোগদানের তারিখ ও ছুটির আবেদনের তারিখ বা অবসরের তারিখটি জানতে হবে। এরপর উক্ত সময়কালেক দিনে রুপান্তরিত করে পূর্ন গড় বেতনের ক্ষেত্রে ১১ দিয়ে আর অর্ধ গড় বেতনের ক্ষেত্রে ১২ দিয়ে ভাগ করে ছুটির পরিমান হিসাব করতে হবে। এখানে লক্ষ্য রাখতে হবে যে উক্ত সময়কালের মধ্যে যদি সংশ্লিষ্ট কর্মচারি কখনও বিনা বেতনে ছুটি বা নির্দিষ্ট কোন অপরাধে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সাসপেন্ড থাকেন যে সময়ে তিনি কোন বেতন পান নাই তাহলে উক্ত সময়িট তার হিসাবকৃত চাকুরীকাল হতে বাদ দিতে হবে। মোদ্দা কথা তিনি যে সময়টাতে বেতন পাবেন না তা হিসাব হতে বাদ দিতে হবে।

২০×৩৬৫ = ৭৩০০ দিন। আমরা জেনেছি পূর্ণ গড় বেতনের ক্ষেত্রে প্রতি ১১ দিনে ১ দিন ছুটি প্রাপ্য হয় তাই পূর্ন গড় বেতনের ছুটি হিসাবের জন্য এই ৭৩০০ দিনকে ১১ দিয়ে ভাগ করতে হবে।
৭৩০০÷১১= ৬৬৩ আর ভাগেশষ থাকেব ৭ দিন । ভাগশেষ ৬ এর চেয়ে বেশি হলে ১ দিন যোগ করতে হবে, আর ৬ এর কম হলে যোগ করা যাবে না।

তাহলে এক্ষেত্রে তার ছুটি পাওনা হবে ৬৬৩+১= ৬৬৪ দিন। এই ৬৬৪ দিনেক বছর মাসে রুপান্তর করলে পাওয়া যাএব ১ বছর ৯ মাস ২৯ দিন। (দিনেক বছর মাস ইত্যাদিতে রুপান্তর করার নিয়ম আপনারা জানেন, যে যেভাবে সুবিধা হয় রুপান্তর করেবন।)

সাময়িক বরখাস্তকাল কি হবে? অর্ধ গড় বেতনের ছুটি হিসাব করেত ৭৩০০ দিনেক প্রথেম ১২ দ্বারা ভাগ করে তারপর বছর দিন বানাতে হবে।  ৭৩০০÷১২= ৬০৮। ভাগেশেষ হবে ৪, তাই আর ১ যোগ হবে না। ৬০৮ দিনেক বছর মাসে রুপান্তর করলে পাওয়া যাবে ১ বছর ৮ মাস ৪ দিন। যা তার অর্ধগড় বেতনে প্রাপ্য ছুটি। এখন ধরে নেই এই ব্যক্তি ১/১/১৯৯৮ তারিখ হতে ৬ মাস অননুমোদিত ছুটিতে ছিলেন, ২/০৩/২০০৩ তারিখ হতে ১ বছর সাসেপেন্ড ছিলেন এবং ৩/৫/২০০৬ তারিখ হতে ৩ মাস বিনা বেতনে চিকিৎসা ছুটিতে ছিলেন। উক্ত সময়গুলোতে তিনি কোন বেতন পান নাই। তাহলে এই ১ বছর ৯ মাস তার বিবেচ্য সময় হতে বাদ দিতে হবে। আমরা আগেই দেখেছি তার চাকুরীকাল ২০ বছর। তাহলে এবার তার প্রকৃত সময়কাল হবে পাওনা আছে।

service book calculation

সরকারি কর্মচারীর সার্ভিস বুকের ছুটির হিসাব করুন সহজেই সার্ভিস বুকের হিসাবের বইটি সংগ্রহে রাখুন: ডাউনলোড

admin

আমি একজন সরকারী চাকরিজীবি। দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চাকুরির সুবাদে সরকারি চাকরি বিধি বিধান নিয়ে পড়াশুনা করছি। বিএসআর ব্লগে সরকারি আদেশ, গেজেট, প্রজ্ঞাপন ও পরিপত্র পোস্ট করা হয়। এ ব্লগের কোন পোস্ট নিয়ে বিস্তারিত জানতে admin@bdservicerules.info ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।

admin has 2959 posts and counting. See all posts by admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *